রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৮ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

যত টাকা লাগুক ভ্যাকসিন সংগ্রহ করব : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুন, ২০২১, ১১:৪৬ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ ভ্যাকসিনের প্রাপ্যতা সম্পর্কে দেশবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, যত টাকাই লাগুক সরকার প্রয়োজনীয় ভ্যাকসিন সংগ্রহ করবে এবং পর্যায়ক্রমে ৮০ শতাংশ মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী জীবন-জীবিকার প্রয়োজনে এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের যে কোনো প্রয়োজনে দ্রুততার সাথে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে মানুষের পাশে দাঁড়াবেন বলেও উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, আমরা দেশের সকল নাগরিককে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেয়ার ঘোষণা দিয়েছি কাজেই ভ্যাকসিন সংগ্রহে যত টাকাই লাগুক না কেন আমরা সেই টাকা দেবো। পর্যায়ক্রমে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি।

তিনি বলেন, জনগণকে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি যে জীবন-জীবিকার সুরক্ষা দেয়া এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে কোনো উদ্যোগ নেয়ার প্রয়োজন হলে দ্রুততার সাথে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবো এবং মানুষের পাশে আমরা দাঁড়াবো।
গতকাল প্রধানমন্ত্রী এবং সংসদ নেতা শেখ হাসিনা একাদশ জাতীয় সংসদের ত্রয়োদশ অধিবেশন (২০২১-২২ সালের বাজেট অধিবেশন) এর সমাপনী ভাষণে একথা বলেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এ সময় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি ইতোমধ্যেই ঘোষণা দিয়েছি সরকার দেশের সকল নাগরিকের বিনামুল্যে ভ্যাকসিন প্রদান নিশ্চিত করবে। এই লক্ষ্যে ভ্যাকসিন সংগ্রহের জন্য যত টাকাই লাগুক না কেন আমরা সে টাকা দেব। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন কেনার জন্য বাজেটে আমরা ১৪ হাজার ২০০ কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছি। বিভিন্ন উৎস হতে ইতোমধ্যে এক কোটি ১৪ লাখ ৬ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন সংগ্রহ করেছি।

তিনি বলেন, যখন ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা চলছিল পৃথিবীর সব জায়গায়। আমরা যোগাযোগ করি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অনুমোদন দেয়ার আগেই আমরা টাকা পাঠিয়ে ভ্যাকসিন বুক করেছি। দুর্ভাগ্যজনক যে ভারতে হঠাৎ করোনা এত ব্যাপকহারে বেড়ে গেল যে তারা ভ্যাকসিন রফতানি বন্ধ করে দেয়ায় আমরা সাময়িকভাবে সমস্যায় পড়ে গেছি। কিন্তু আল্লাহর রহমতে বর্তমানে আমাদের ব্যবস্থা হয়ে গেছে। এখন আর কোনো সমস্যা হবে না। চীন, রাশিয়া, যুক্তরাষ্ট্রসহ ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী সব কোম্পানির সাথে আমাদের যোগাযোগ অব্যাহত আছে। আশা করছি, জুলাই মাস থেকে আরও ভ্যাকসিন আসবে। ব্যাপকভাবে ভ্যাকসিন প্রদান শুরু করবো। সরকার পর্যায়ক্রমে দেশের ৮০ শতাংশ মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে উল্লেখ করে সংসদ নেতা বলেন, কোন ভ্যাকসিন কোন বয়স পর্যন্ত দেয়া যাবে তার সীমাবদ্ধতা রয়েছে। তা বিবেচনায় রেখে আমরা স্কুল থেকে শুরু করে সকলে যাতে ভ্যাকসিন পায়, এর মাধ্যমে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে পারি সেই ব্যবস্থা নেবো। যারা বিদেশ যাচ্ছে তাদের আগে ভ্যাকসিন দেয়ার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। যাতে বিদেশে গিয়ে তাদের কোয়ারেন্টাইন করতে না হয়। কর্মস্থলে যেতে পারে সেই ব্যবস্থা নিয়েছি।

শেখ হাসিনা বলেন, মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রভাব সত্ত্বেও সরকারের পদক্ষেপে আমাদের অর্থনীতি পূর্ণাঙ্গভাবে পুনরুদ্ধারের পথে রয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের সরকার সঙ্কটকালে দেশের মানুষের পাশে আছে। মানুষের পাশে থাকবে। জনগণকে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি যে জীবন-জীবিকার সুরক্ষা দেয়া এবং অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে কোনো উদ্যোগ নেয়ার প্রয়োজন হলে দ্রুততার সাথে সিদ্ধান্ত গ্রহণ কররো। মানুষের পাশে আমরা দাঁড়াবো।

শেখ হাসিনা বলেন, এই বাজেটে স্বাস্থ্যখাতকে সর্বাপেক্ষা অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে। গত বছর আমরা করোনার প্রথম ঢেউ সফলভাবে মোকাবিলা করেছি। সেই অভিজ্ঞতায় দ্বিতীয় ঢেউয়ে আমরা দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। মহামারি মোকাবিলা করে জনস্বাস্থ্য ও জনজীবন সুরক্ষা করতে আমরা সক্ষম হবো, ইনশাআল্লাহ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসে সারাবিশ্ব ক্ষতিগ্রস্ত এমন সময় আমরা বাজেট দিয়েছি। একদিকে সারাবিশ্ব করোনায় আক্রান্ত অপরদিকে আমাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সময়। আমরা জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছি। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করছি। একই সময় বাংলাদেশকে আমরা উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত করতে পেরেছি। যে দেশকে জাতির পিতা স্বল্পোন্নত দেশ হিসেবে রেখে যান। এই তিনটি গৌরবময় অধ্যায়ের মাঝে করোনায় জর্জরিত আমাদের এই বাজেট।

সরকার প্রধান বলেন, এই করেনায় যে বিশ^ অর্থনীতর স্থবিরতা তারমধ্যেও যেন বাংলাদেশের মানুষের জীবন গতিশীল থাকে সেজন্য এই বাজেটে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। অর্থনীতিতে করোনার নেতিবাচক প্রভাব পড়লেও তাঁর সরকার দেশের অর্থনীতিকে সচল রাখতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা এই পরিস্থিতিতে আমাদের দেশের মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং জীবিকার সুযোগ যাতে অব্যাহত থাকে এবং অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে নানা ধরনের সময়োপযোগী পদক্ষেপ তাঁর সরকার গ্রহণ করেছে। সারা বিশে^ প্রায় ১৮ কোটি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং ৩৯ লাখের ওপর মানুষ মৃত্যুবরণ করেছে উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, বাংলাদেশেও ৮ লাখ ৮২ হাজার মানুষ সংক্রমিত এবং প্রায় ১৪ হাজারের মত মানুষ মৃত্যুকরণ করেছে।

তিনি বলেন, হয়তো বিশ^ পরিস্থিতিতে আমাদের মৃত্যুহার কম তবুও আমরা চাই না আমাদের একজন মানুষও মৃত্যুবরণ করুক। তিনি করোনায় স্বজনহারাদের সমবেদনা জানিয়ে ’৭৫-এর বিয়োগান্তক অধ্যায় স্মরণ করে বলেন, স্বজনহারবার বেদনা সহ্য করা যে কত কঠিন সেটা যারা স্বজন হারিয়েছে কেবল তারাই উপলদ্ধি করতে পারে।

করোনা নিয়ন্ত্রণে স্বাস্থ্যখাতে অতিরিক্ত বরাদ্দ, প্রণোদনা ও ক্ষতিপূরণ দেয়ার ব্যবস্থার কথা উল্লেখ করেন সরকার প্রধান। সরকারপ্রধান আরও বলেন, করোনা রোগীদের সেবায় নিয়োজিত ২০ হাজার ৫০০ চিকিৎসক ও নার্সকে ১০৪ কোটি টাকা বিশেষ সম্মানি দেয়া হয়েছে।

‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চালু না থাকায় শিক্ষার্থীদের খুবই কষ্ট হচ্ছে’ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের টিকাদান ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। এই কার্যক্রম সম্পন্ন হলে আমরা কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দিতে সক্ষম হবো। কোভিড-১৯ সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের স্কুল ও মাদ্রাসা খুলে দেয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
Nazmul Hasan ৩০ জুন, ২০২১, ২:৫২ এএম says : 1
ইনশাআল্লাহ নেত্রীর কথা আমরা বিশ্বাস করি।
Total Reply(0)
Reduaoun Chowdhury ৩০ জুন, ২০২১, ২:৪৮ এএম says : 0
আমরা উন্নয়ন চাই কিন্তু এমন দুর্নীতি চাই না।ন্যায্য টাকায় টিকা আসুক এটাই চাই
Total Reply(0)
Mizanur Rahman ৩০ জুন, ২০২১, ২:৫০ এএম says : 0
এইটা থেকে বুঝা যাই দেশে কি অবস্থা
Total Reply(0)
Md Sohid ৩০ জুন, ২০২১, ২:৫০ এএম says : 1
শেখ হাসিনার হাত ধরে এগিয়ে যাবে দেশ জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু
Total Reply(0)
Ataur Rahman ৩০ জুন, ২০২১, ২:৫১ এএম says : 1
অনেক অনেক ধন্যবাদ মাননীয় প্রাইম মিনিস্টার আল্লাহ আপনাকে সুস্থ দীর্ঘায়ু দান করেন আমিন
Total Reply(0)
Shamser Rana ৩০ জুন, ২০২১, ২:৪৮ এএম says : 0
চায়নার কোন ভাকসিন আনা ঠিক হবে না। তাদের ভ্যকসিনের গুনগতমান প্রশ্নযুক্ত।
Total Reply(0)
Sadif Hassan ৩০ জুন, ২০২১, ২:৫৩ এএম says : 0
গ্লোব বায়োটেক কে অনেক আগে থেকেই সুযোগ দিতে হতো
Total Reply(0)
Billal Hosen ৩০ জুন, ২০২১, ৯:০৪ এএম says : 0
পুরো দেশে আল্লাহর দ্বীনের কাজের পরিবেশ করে দিলে আল্লাহ আমাদের সকল বিপদ আপদ দূর করে দিবেন। আজকে আমাদের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করুক যে, এখন থেকে সব মুসলমান পাঁচ নামাজ পরতে হবে । তাহলে দেখবেন আল্লাহ আমাদের প্রতি রহম করবেন।
Total Reply(0)
Harunur Rashid ৩০ জুন, ২০২১, ৯:০৫ এএম says : 0
Invest the money in your own country's research and development so you don't have to rely on others. Cut the hands off the thieves who steal the fund from the tax payers.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন