মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬ আশ্বিন ১৪২৮, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিজরী

সম্পাদকীয়

অবহেলিত সাত কলেজের দিকে নজর দিন

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ৩ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

করোনায় ঘর বন্দি মানুষ। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে। বেশ কয়েকবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কথা থাকলেও পরিস্থিতির জন্য খোলা হয়ে ওঠেনি। সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার আগে ছাত্র-ছাত্রীদের করোনার ভ্যাক্সিন দিতে হবে। গত ১ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন স্নাতক পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীদের টিকার তালিকা দিয়েছেন। সেখানে দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম তালিকাভুক্ত আছে। আছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত কলেজসমূহও। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা এই তালিকা ভুক্ত কি না তা নিয়ে দ্বিধা-দ্ব›েদ্ব পড়েছে শিক্ষার্থীরা। এমনটা হওয়া অস্বাভাবিক না। ২০১৭ সালে স্বনামধন্য সাতটি সরকারি কলেজ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হয়। যে কারণে এই সাতটি কলেজ তথা ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, সরকারি তিতুমীর কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, সরকারি বাংলা কলেজ ও বেগম বদরুন্নেসা মহিলা কলেজ এখন কাগজে কলমে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্ত নয়, এর দায়দায়িত্ব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের। কিন্তু অন্তর্ভুক্তির শুরু থেকেই বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এ সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। স¤প্রতি করোনা ভ্যাক্সিন কার্যক্রম থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তারা। এবারো তারা দ্বিধা-দ্ব›েদ্ব পড়েছে তালিকায় সাত কলেজের নাম না থাকায়, এখন তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে নাম এন্ট্রি করবে নাকি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হয়ে? এহেন কার্যক্রমে শিক্ষার্থীরা নিজেদের পরিচয় নিয়ে শঙ্কিত। উল্লেখ্য সাত কলেজের আবাসিক শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ত্রিশ হাজার। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলেছে, তালিকার বাইরে তারা টিকা দেবে না। তাহলে কি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে খুলবে না এই সাত কলেজ? দীর্ঘদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় চরম সেশন জটে আটকে আছে শিক্ষার্থীরা। এখন যদি টিকা না দিতে পারে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা তাহলে তারা আরো দীর্ঘ ও ভয়ঙ্কর সেশন জটের শিকার হবে। তাই, এই সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের দাবি, ইউজিসির করোনা ভ্যাক্সিনের তালিকায় স্বতন্ত্রভাবে সাত কলেজকে অন্তর্ভুক্ত করা এবং একইসাথে টিকা কার্যক্রম চালিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সাত কলেজ খোলা।

বিশাল সাহা
শিক্ষার্থী, ঢাকা কলেজ, ঢাকা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন