ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ব্যয় কমান মুঠোফোন গ্রাহক এসোসিয়েশন

প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ব্যয় কমানোর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক এসোসিয়েশন। এই ব্যাংকিংয়ের ব্যয় না কমালে একদিকে যেমন প্রান্তিক অর্থনীতি ধ্বংস হয়ে পড়বে, অন্যদিকে তেমনি এর তদারকির জন্য একটি আলাদা সংস্থা গঠন না করলে এ খাতে শৃঙ্খলা আসবে না বলেও মন্তব্য করেছেন বক্তারা। গতকাল (শনিবার) রাজধানীর শিশু কল্যাণ পরিষদের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত “মোবাইল ব্যাংকিং এর ভবিষ্যৎ, নিরাপত্তা ঝুঁকি ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর প্রাপ্তি : আমাদের ভাবনা” শীর্ষক এক আলোচনা সভা একথা বলা হয়। সংগঠনটির সভাপতি মহিউদ্দীন আহমেদ আহমেদের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ নেন, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল বাসদের কেন্দ্রীয় নেতা রাজেকুজ্জামান রতন, প্রকৌশলী সৈয়দ হাসান ঈমাম ফিরোজ, মেজর (অবঃ) ড. হাবিবুর রহমান, মোবাইল ফোন গ্রাহক এসোসিয়েশনের আইন উপদেষ্টা এ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম, দুর্নীতি প্রতিরোধ আন্দোলনের সভাপতি হারুন অর রশীদ খান, ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-ন্যাপ ভাসানী’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ ইব্রাহিম, মোবাইল ব্যাংক রিচার্জ এসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ শফিকুর রহমান, সংগঠনের মহাসচিব এ্যাড. আবু বকর সিদ্দিক প্রমুখ।
রাজেকুজ্জামান রতন বলেন, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ব্যয় আমাদেরকে সত্যিই ভাবিয়ে তুলেছে। যেখানে ডাক বিভাগের মাধ্যমে টাকা পাঠালে খরচ পড়তো বছরে ৯২ কোটি টাকা সেখানে বিকাশের মাধ্যমে পাঠাতে খরচ পড়ছে ৪ হাজার ৬৪২ কোটি টাকা। এ অর্থ প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে ব্যয় করলে দেশ উপকৃত হত। মেজর (অবঃ) হাবিবুর রহমান বলেন, স্মার্ট কার্ড প্রদানের জন্য সরকার যে উদ্যোগ নিয়েছে এটি দিয়েই যদি আর্থিক লেনদেনের সুযোগ থাকতো তাহলে জনগণ উপকৃত হতো। সভায় লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, বর্তমানে মোট জনসংখ্যার প্রায় ৮৫ শতাংশ লোক ব্যাংকিং সেবা থেকে বঞ্চিত। আর এসকল জনগোষ্ঠিকে ব্যাংকিং সেবা প্রদানের উদ্দেশেই মোবাইল ব্যাংকিং-এর যাত্রা শুরু হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন