শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

মায়ের বুকেই চিরনিদ্রায় শায়িত অমিত

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ জুলাই, ২০২১, ৭:১০ পিএম

দেশের ক্রীড়াঙ্গনে সবার পছন্দের ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) হেড অব মিডিয়া এবং বাংলাদেশ টেবিল টেনিস ফেডারেশনের নির্বাচিত অর্থ সম্পাদক আহসান আহমেদ অমিত। প্রায় ৩০ বছর আগে সংগঠক হিসেবে ক্রীড়াঙ্গনে যার পথচলা শুরু হয়েছিল বাফুফের হেড অব মিডিয়া পদে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি দায়িত্বে ছিলেন। সেই অমিত সবাইকে কাঁদিয়ে গত ৩০ জুন পাড়ি জমিয়েছেন না ফেরার দেশে। মা ভক্ত অমিত তার মা’কে খুবই ভালবাসতেন। শেষ মায়ের বুকেই চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন তিনি।

সোমবার দুপুরে আজিমপুর গোরস্থানে মায়ের কবরেই দাফন করা হয় অমিতকে। দাফনের আগে দু’টি জানাজা হয়েছে। একটি গোপীবাগে, অন্যটি অমিতের দীর্ঘদিনের প্রিয় কর্মস্থল বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। কঠোর লকডাউনের মধ্যেও ক্রীড়াঙ্গনের অনেক মানুষ শরিক হয়েছিলেন তার জানাজায়। তারা শেষ বিদায় জানিয়েছেন প্রিয় মানুষটিকে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের জানাজায় উপস্থিত ছিলেন বাফুফের সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, সাধারণ সম্পাদক মো. আবু নাইম সোহাগ, সদস্য মাহফুজা আক্তার কিরণ, জাকির হোসেন চৌধুরী, আমের খান, মহিদুর রহমান মিরাজ, বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের উপ-মহাসচিব আশিকুর রহমান মিকু, খো খো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান বাবুল, টেবিল টেনিস ফেডারেশনের সহ-সভাপতি খন্দকার হাসান মুনীর, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুর রকিব মন্টু, বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিস্টস কমিউনিটির (বিএসজেসি) সিনিয়র সহ-সভাপতি জাহেদ হোসেন খোকন, সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শামীমসহ বাফুফের কর্মকর্তা-কর্মচারী বৃন্দ এবং বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

ক্রীড়াঙ্গনে অমিতের যাত্রা সংগঠক হিসেবেই। তাই শুরু থেকেই বরেণ্য সংগঠকদের সঙ্গে সুসম্পর্ক ছিল তার। বাফুফের হেড অব মিডিয়া হিসেবে চাকরি নেয়ার পর সাংবাদিকদের সঙ্গেও তার সখ্য গড়ে ওঠে। সোমবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নামাজে জানাজা শেষে অমিতের কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছে বাফুফে, টেবিল টেনিস ফেডারেশন, ভলিবল ফেডারেশন, অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন, বাংলাদেশ ফুটবল খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতি, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশনসহ বিভিন্ন সংগঠন।

মাত্র ৪৩ বছর বয়সে অমিত গত বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় দিল্লির একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। রোববার রাতে তার লাশ দেশে আনা হয়। বেনাপোল বর্ডারে অমিতের লাশ গ্রহণ করেন টেবিল টেনিস ফেডারেশনের সহ-সভাপতি খন্দকার হাসান মুনীর ও বাফুফের গ্রাসরুট ম্যানেজার মো. হাসান মাহমুদ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন