রোববার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মসজিদ ও মুসলমান বাড়িতে অগ্নিসংযোগ

দক্ষিণ আফ্রিকায় সহিংসতায় নিহত ৩২, সেনা মোতায়েন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জুলাই, ২০২১, ১২:০০ এএম

দক্ষিণ আফ্রিকায় সহিংসতা, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। এবার সন্ত্রাসীরা একটি মসজিদে ও মুসলিমদের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। জানা যায়, দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমার মুক্তির দাবির আন্দোলন চরম সহিংতায় রূপ নিয়েছে। ব্যাপক লুটপাট ও অগ্নিসংযোগের মধ্য দিয়ে এবার মসজিদে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার কাওয়াজুলু নাটাল প্রদেশের ডারবান মসজিদে এই অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। কে বা কারা, কি উদ্দেশ্যে মসজিদে আগুন দিয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ডারবানে মুসলিম জনগোষ্ঠীর এলাকাটিতে মসজিদের পার্শ্ববর্তী আরও একটি ভবনে আগুন দেয়া হয়েছে। মসজিদে অগ্নিসংযোগের একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন জাতি-গোষ্ঠী ও ধর্মের মানুষ প্রতিক্রিয়া জানাতে শুরু করে। তারা বলছেন, ‘অবশ্যই সা¤প্রদায়িক এসব হিংসাত্মক তৎপরতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো উচিৎ। মুসলমান, হিন্দু, খ্রিস্টান সব ধর্মের মানুষকে একত্রিত হয়ে এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে।’ এদিকে আন্দোলনের নামে ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ড বন্ধ করতে দেশটির জোহান্সেনবার্গ, ডারবান ও প্রিটোরিয়া এলাকাগুলোতে সেনাবাহিনীর টহল বাড়ানো হয়েছে। চলমান সংহিতায় এই পর্যন্ত পুলিশের গুলিতে ছয়জন মারা গেছেন। বিবিসির খবরে বলা হয়, সহিংসতায় এখন পর্যন্ত ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত সপ্তাহে জুমার আত্মসমর্পণের পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৫০০ বিক্ষোভকারীকে আটক করেছে পুলিশ। দোকানপাটে ভাঙচুর, লুটপাট, ভবনে আগুন দেয়াসহ দেশব্যাপী চলমান নৈরাজ্যের মুখে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে বিভিন্ন প্রদেশে। ক্ষমতায় থাকাকালীন দুর্নীতির অভিযোগে একটি মামলায় অনুসন্ধানে সহযোগিতা না করায় আদালত অবমাননার দায়ে ১৫ মাসের কারাদন্ড ভোগ করতে হবে তাকে। দুর্নীতির অভিযোগ অবশ্য প্রত্যাখ্যান করেছেন ৭৯ বছর বয়সী এ নেতা। দেশটির সাংবিধানিক আদালত তার সাজা মওকুফ অথবা লঘু করবে বলে আশাবাদী তিনি। তবে জুমার এ আশা বাস্তবে রূপ নেয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে বলে মত আইন বিশেষজ্ঞদের। টেলিভিশনে দেয়া ভাষণে স্থানীয় সময় সোমবার প্রেসিডেন্ট সিরিল রামাফোসা সহিংসতার নিন্দা জানান। তিনি বলেন, ‘আমাদের গণতন্ত্রের ইতিহাসে এমন সহিংসতা বিরল ঘটনা।’ সহিংস পরিস্থিতির কারণে দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা কার্যক্রম থমকে গেছে। অনেক টিকাকেন্দ্রেও ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়েছে। এএফপি, বিবিসি।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
বাশীরুদ্দীন আদনান ১৪ জুলাই, ২০২১, ১২:৩১ পিএম says : 0
এগুলো করে তারা তাদের ধ্বংস ডেকে আনছে
Total Reply(0)
তফসির আলম ১৪ জুলাই, ২০২১, ১২:৩৬ পিএম says : 0
অবশ্যই সা¤প্রদায়িক এসব হিংসাত্মক তৎপরতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো উচিৎ।
Total Reply(0)
হুমায়ূন কবির ১৪ জুলাই, ২০২১, ১২:৩৬ পিএম says : 0
মুসলমান, হিন্দু, খ্রিস্টান সব ধর্মের মানুষকে একত্রিত হয়ে এর বিরুদ্ধে লড়াই করতে হবে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন