বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সফর ১৪৪৩ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

আফগানিস্তানে চীনা বিনিয়োগকে স্বাগত জানাবে তালেবান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ জুলাই, ২০২১, ১২:০২ এএম

চীনকে বন্ধুদেশ হিসেবে উল্লেখ করে তালেবান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে তারা আফগানিস্তানে চীনা বিনিয়োগকে স্বাগত জানাবে। মঙ্গলবার এ সংবাদ জানিয়েছে তুর্কি গণমাধ্যম ইয়েনি সাফাক। তালেবান কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র সুহেল শাহিন চীনের সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট পত্রিকাকে বলেছেন, আমরা চীনা কর্তৃপক্ষকে স্বাগত জানাই (বিনিয়োগের জন্য)। যদি তারা আফগানিস্তানে বিনিয়োগ করে অবশ্যই আমরা তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করব। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, ‘আমরা বহুবার চীনে গেছি এবং তাদের সাথে আমাদের ভালো সম্পর্ক আছে। চীন আমাদের বন্ধুদেশ। আফগানিস্তানের উন্নয়ন ও পুনর্গঠনে আমরা তাদের স্বাগত জানাই।’

২০ বছর পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্র দেশগুলোর সেনাবাহিনী (ন্যাটো) আফগানিস্তান ছেড়ে চলে যাওয়ার সময়ে তালেবান কর্তৃপক্ষ চীনা বিনিয়োগকে স্বাগত জানালো। গত ফেব্রুয়ারিতে তালেবান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একটি চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছে। এর মাধ্যমে বিদেশী সেনাদের আফগানিস্তান ছেড়ে যাবার পথ প্রস্তুত হয়েছে। এ চুক্তির আওতায় তালেবান সদস্যরা কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন। তালেবান নেতাদের সন্ত্রাসের কালো তালিকা থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। এছাড়া আন্তর্জাতিক সমর্থন নিয়ে এক নতুন আফগানিস্তান পুনর্গঠনের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। বিদেশী সেনারা চলের যাওয়ার পর আফগানিস্তানের বেশিরভাগ জেলা ও অঞ্চল দখল করার মাধ্যমে তালেবানরা আশরাফ গনি সরকারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করেছে।

আফগানিস্তানের বিভিন্ন জেলাগুলোর প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণ নেয়ার সাথে সাথে তালেবান কর্তৃপক্ষ তাদের কুটনীতিক কার্যক্রমও চালু করেছে। তারা তাদের ক‚টনীতিক প্রতনিধিদের রাশিয়া ও ইরানে পাঠিয়েছে। একইসাথে তালেবান কর্তৃপক্ষ ইস্ট তুর্কিস্থান ইসলামিস মুভমেন্টকে আফগানিস্তানের ভুখন্ড ব্যবহার করতে দেবে না বলে চীনকে নিশ্চয়তা দিয়েছে। তারা বলেছেন, আফগানিস্তানের মাটি কোনো দেশের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেয়া হবে না। এমনকি চীনের বিরুদ্ধেও না। আমরা দোহা চুক্তির মাধ্যমে এ বিষয়টিতে একমত হয়েছি। মার্কিন সেনাদের চলে যাওয়ার এ মুহ‚র্তে তালেবান মুখপাত্র সুহেল শাহিন বলেন, চীনের সাথে আলোচনা হওয়া দরকার। ইয়েনি সাফাক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Al Amin ১৫ জুলাই, ২০২১, ২:৫১ এএম says : 0
তালেবান সংখ্যা গরিষ্ঠ...... তাদের সাথে যুদ্ধ না করে ক্ষমতা তাদের হাতে ছেড়ে দেওয়া দরকার। এতে প্রাণহীন ঘটবে না।
Total Reply(0)
Omar Faruk Bhuiyan ১৫ জুলাই, ২০২১, ২:৫২ এএম says : 0
· এই অসুস্থ পৃথিবীকে সুস্থ করতে হলে খেলাফত ব্যবস্থার বিকল্প নেই
Total Reply(0)
Mohammed Ismail Khan ১৫ জুলাই, ২০২১, ২:৫২ এএম says : 0
মার্কিনীদের অবস্থা দেখো পালিয়ে যাচ্ছে, আর আফগান সেনারা তো তালেবানদের সামনে সে তুলনায় দুধভাত!!
Total Reply(0)
rahim Ed ১৫ জুলাই, ২০২১, ২:৫২ এএম says : 0
শুধু আফগান সৈন্যরা নয়, আমেরিকান ও ন্যাটো সৈন্যরাও তালেবানের ভয়েই আফগান ছেড়ে পালাচ্ছে!
Total Reply(0)
Muhammad Ikhtiar Khandakar ১৫ জুলাই, ২০২১, ২:৫৩ এএম says : 0
ওটা আফগান না,'সাম্রাজ্যবাদের কবরস্থান'। রাশিয়া পারেনাই, আমেরিকা পারেনাই আর লোকাল সেনাতো দুধভাত।
Total Reply(0)
Golam mostafa ১৫ জুলাই, ২০২১, ৯:৩৯ এএম says : 0
What a terrible bloodflow of gangis khan and alekzandar in afgan. War war and war is their passion. By this war game they will come new gentle civilization. Actually this is fsct
Total Reply(0)
Mobashir Hosain ১৫ জুলাই, ২০২১, ৫:৩৪ এএম says : 0
যুগে যুগে বিশ্বাসীদে বিজয় হয়েছে। যদিও এই বিজয়ের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। আল্লাহ পাক তালেবানের এই বিজয় কে মহিমান্বিত করুন।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন