মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

আমি মাসিক ১৭০০০ হাজার বেতনে চাকুরী করি, আমার বাবা-মা ও স্ত্রী দুই সন্তান নিয়ে একই সংসারে থাকি, বাড়িতে আমাদের প্রায় ৪ লাখ টাকা মূল্যের গরু, প্রায় ৩ লাখ টাকা মূল্যের নিজের ফসলি জমি, প্রায় ২ লাখ টাকা মূল্যের বন্দকি (টাকা ফেরত দিলে জমি ফেরত দেওয়া হয়) ফসলি জমি ও প্রায় ১ লাখ টাকা মূল্যের মুদি দোকান আছে। প্রশ্ন হল আমার উপর কোরবানি,যাকাত ফরজ কিনা?

সাজেদুল করিম
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ১৭ জুলাই, ২০২১, ৯:২২ পিএম

উত্তর : যে সব অর্থ সম্পদের কথা বললেন এর সব যাকাত যোগ্য নয়। নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও ব্যবসা পণ্য যদি বছর শেষে যাকাত হিসাবের দিন আপনার হাতে নেসাব পরিমাণ থাকে, তাহলে এসবের যাকাত দিতে হবে। যাকাতের দিন ধার্য করা, যাকাতযোগ্য সম্পদ নির্ধারণ করা, যাকাত নিরূপণ করা ইত্যাদির ব্যাপারে ভালো কোনো আলেমের সহায়তা নিন। আপনার হাতে যদি ঈদুল আযহার তিনটি দিন যাকাতের নেসাব পরিমাণ টাকা, সোনা-রূপা বা ব্যবসাপণ্য থাকে, তাহলে কোরবানি দিতে হবে। কোরবানি ফিতরার মতো। এর নেসাব এক বছর থাকতে হয় না। ফিতরা আদায়ের দিন কিংবা কোরবানির দিন সম্পদটুকু থাকলে সদকায়ে ফিতর এবং কোরবানি আদায় করতে হয়। কোরবানি যে দামেরই হোক, ঘরের প্রাণীই হোক কিংবা সাত ভাগের এক ভাগ হোক, যে কোনো একটি আদায় করলেই হলো।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন