সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫ আশ্বিন ১৪২৮, ১২ সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ইন্দুরকানীতে স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগ

অভিযুক্তকে চেয়ারম্যান কর্তৃক শালিশ বিচারে ৫০হাজার টাকা জরিমানা ও ১শত জুতা পিটা, অতপর থানায় মামলা

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ জুলাই, ২০২১, ১:৪৯ পিএম | আপডেট : ৩:৩৯ পিএম, ১৯ জুলাই, ২০২১

ইন্দুরকানীতে স্কুল ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে অভিযুক্তকে চেয়ারম্যান কর্তৃক শালিশ বিচারে ৫০হাজার টাকা জরিমানা ও ১শত জুতা পিটা অতপর থানায় মামলা । রোববার রাতে ওই স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে উপজেলার পাড়েরহাট ইউনিয়নের বাটাজোড় বায়তুল জান্নাত জামে মসজিদের ইমাম আল-হাফিজ ওরফে হাফিজুল ইসলামের বিরুদ্ধে ইন্দুরকানী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

হাফিজুল ইসলাম জেলার কাউখালী উপজেলার সদর ইউনিয়নের নাংগুলি গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে।আর ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রী উপজেলার বাড়ৈখালী এসজিএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। সে ওই অভিযুক্তর কাছে আরবী শিক্ষা গ্রহন করতো।
থানায় দায়ের হওয়া মামলা ও ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই স্কুল ছাত্রী তার খালা বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে অভিযুক্ত হাফিজুল ইসলাম তাকে কথা আছে বলে ফুসলিয়ে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই মসজিদ সংলগ্ন উত্তর পাশে তার থাকার কক্ষে নিয়ে যায় । সেখানে নিয়ে ওই স্কুল ছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন স্পর্শ কাতর স্থানে হাত দেয়। এসময় ওই স্কুল ছাত্রী ডাক চিৎকার দিতে চাইলে গলা কেটে হত্যা করা হবে বলে হুমকী দেয়।পরে ওই কক্ষে তালা দিয়ে তাকে আটকে রাখে। ওই রাতে স্কুল ছাত্রীর স্বজনরা তাকে অনেক খোঁজা-খুজির পর ওই ইমামের ঘরে তালা বদ্ধ ও অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করেন।
ওই রাতে স্থানীয়রা হাফিজুল ইসলামকে আটক করে পাড়েরহাট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও উপজেলা জাতীয় পার্টি (জেপি) এর সহ সভাপতি মো. গোলাম সরোয়ার বাবুলের কাছে নিয়ে যান। পরে ইউপি চেয়ারম্যান হাফিজুল ইসলামকে একশত জুতা পেটা ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।
তবে ইউপি চেয়ারম্যান মো. গোলাম সরোয়ার বাবুল জানান, ওই রাতে স্থানীয়রা তাকে আটকে আমার কাছে নিয়ে আসেন। এ সময় বিক্ষুদ্ধ লোকরা অভিযুক্ত ব্যক্তির বিচার দাবী করেন। এসময় উপস্থিত জনতাকে সামলাতে ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে ওই হুজুরের শারীরিক শাস্তি দেয়া সহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করা হয়।
ইন্দুরকানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির জানান, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদীয় হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত কে গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন