শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২ আশ্বিন ১৪২৮, ০৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নোরো ভাইরাস বিশ্বে থাবা বসাচ্ছে

ডেলটা (ভারতীয়) প্রজাতি নিয়ে হু’র শঙ্কা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ জুলাই, ২০২১, ১২:০১ এএম

করোনাভাইরাস সামাল দিতে নাজেহাল বিশ্ব। একের পর এক ঢেউ আছড়ে পড়ছে বিভিন্ন দেশে। করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কায় রয়েছে গোটা বিশ্ব। এর মধ্যেই ডেলটা প্রজাতি (ভারতীয়) নিয়ে আরও আশঙ্কার কথা শোনাল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।
আর এমন পরিস্থিতিতে গোদের উপর বিষফোঁড়ার মতো চেপে বসেছে নতুন আতঙ্ক নোরো ভাইরসে। পেটের রোগে নাজেহাল বিশ্বের বহু মানুষ। চিন্তা বাড়াচ্ছে শিশুদের দেহে এই ভাইরাসের সংক্রমণ। ইতোমধ্যে ব্রিটেনে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫৪ জন। ইতোমধ্যে ব্রিটিশ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় দেশবাসীকে সতর্ক করেছে। পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড-এর রিপোর্টের দাবি, গত মে’র শেষ দিক থেকে ঊর্ধ্বমুখী নোরো ভাইরাসের সংক্রমণ। ইতোমধ্যে ১৫৪ জনের দেহে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। অন্যান্য বছরের তুলনায় নোরো ভাইরাসের সংক্রমণ তিনগুণ বেড়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বিশেষ করে নার্সারি ও শিশুদের দেহে এই ভাইরাসের প্রকোপ বেশি।
কী এই নোরো ভাইরাস? : নোরা হচ্ছে অত্যন্ত সংক্রামক ভাইরাস। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সংক্রমিত ব্যক্তি কোটি ভাইরাস ছড়িয়ে দিতে পারেন। তার ছড়ানো ভাইরাসের সামান্য অংশ অন্য কারো দেহে গেলে সংক্রমিত হতে পারেন যে কেউই। তাই আগেভাগে সকলকে সতর্ক করছেন চিকিৎসকরা।
কীভাবে ছড়াতে পারে সংক্রমণ? : চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, সংক্রমিত ব্যক্তির বমি থেকে ছড়াতে পারে সংক্রমণ। এমনকী, সংক্রমিত পানি, খাবার থেকে ছড়ায় সংক্রমণ। হাত থেকে মুখের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে এই ভাইরাস। তাই খাওয়ার আগে ভালো করে হাত ধুয়ে নেওয়া দরকার। তবে পুকুরের পানি পান করলে সেখান থেকেও ছড়াতে পারে সংক্রমণ।
নোরো ভাইরাসের লক্ষণ? : বমি, পেট ব্যথা, জ্বর ও ডায়রিয়া। এছাড়া শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে ব্যথা বাড়াতে পারে।
কীভাব ধরা পড়বে এই সংক্রমণ? : বারবার বমি হলে, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভেঙে পড়লে মল পরীক্ষা করাতে হবে। তাতেই শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি টের পাওয়া যেতে পারে।
কীভাবে হবে এই রোগের চিকিৎসা? : বমির ফলে শরীর থেকে অতিরিক্ত পানি বেরিয়ে যায়। তাই চিকিৎসকরা বেশি করে পানি বা তরল খাবার খেতে বলেন। তবে নোরো ভাইরাসের এখনো কোনও নির্দিষ্ট ওষুধ তৈরি হয়নি।
এদিকে ডব্লিউইএচও-এর দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রধান ডা. পুনম ক্ষেত্রপাল বলেন, ‘বর্তমানে শতাধিক দেশে ছড়িয়ে পড়েছে করোনার ডেলটা প্রজাতি। আগামী দিনে আরও ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করবে এটি। ক্রমশই বাড়াবে দাপট। এ পর্যন্ত ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরসহ বিশ্বের ১১১টি দেশে মিলেছে করোনার ডেলটা প্রজাতি।
ডা. ক্ষেত্রপাল আরও জানান, করোনার অন্য প্রজাতিগুলোর মধ্যে ডেলটায় সংক্রমণের হার সবচেয়ে বেশি। ডা. এনকে আরোরা জানিয়েছেন, আলফার চেয়ে ডেলটা প্রজাতির সংক্রমণের হার ৪০ থেকে ৬০ শতাংশ বেশি। গত বছরের অক্টোবরেই ভারতে প্রথম শনাক্ত হয় করোনার ডেলটা প্রজাতি।
তবে কেবল ডা. পুনম ক্ষেত্রপাল নন, ডেলটা প্রজাতি নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষক ডা. অ্যান্তোনি ফাউসিও। তিনিও জানান, বিশ্বের সবচেয়ে ভয়াবহ করোনা প্রজাতি হয়ে উঠতে পারে ডেলটা। এর জন্য প্রয়োজন চূড়ান্ত পর্যায়ের সতর্কতা এবং প্রস্তুতি। সূত্র : বিবিসি নিউজ, টাইমস অব ইন্ডিয়া, দ্য ইকনোমিক টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
Mohammed Atiquzzaman ২৪ জুলাই, ২০২১, ৫:০৫ এএম says : 0
রোগ জীবাণু হাজার বছর আগেও ছিল ,এখনো আছে , ভবিষ্যতেও থাকবে। আর এই সব জীবাণু মিথ্যাকেই আক্রমন করে বেশী।
Total Reply(0)
MD Tarak ২৪ জুলাই, ২০২১, ৫:০৫ এএম says : 0
আল্লাহ আমাদের সবাইকে মাপকরেদিন আমিন।
Total Reply(0)
Rabi Rangamatia ২৪ জুলাই, ২০২১, ৫:০৫ এএম says : 0
এই ভারতীয় ভ্যারীয়েন্টই দেশের সর্বনাস ঘটায়ে ছাড়বে
Total Reply(0)
Md Atik ২৪ জুলাই, ২০২১, ৫:০৫ এএম says : 0
যাক অনেক দিন পর হলেও বাসতব তথ্য পেলাম ! গবেষক দের কাছ থেকে!
Total Reply(0)
মনির হোসেন মনির ২৪ জুলাই, ২০২১, ৫:০৫ এএম says : 0
ইন্ডিয়ান পেয়াজের ঝাঁজে নাকে পানি না আসলেও, ইন্ডিয়ান করনায় নাকে পানি আসবে
Total Reply(0)
BK Raja ২৪ জুলাই, ২০২১, ৫:০৬ এএম says : 0
নিয়মিত সাবান দিয়ে হাত ধুইলে বা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকলে করোনা ১০ হাত দুরে থাকবে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন