বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

১০ আগস্ট থেকে ফের চালু হচ্ছে পবিত্র ওমরাহ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুলাই, ২০২১, ১১:২৫ এএম

আগামী ১০ আগস্ট থেকে বিদেশি মুসল্লিদের পবিত্র ওমরাহ পালনের অনুমতি দেবে সউদী সরকার। এর আগে করোনার কারণে বিদেশিদের হজ ও ওমরাহ পালনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল সউদী আরব।
তবে সব দেশের মানুষ ওমরাহ পালনের অনুমতি পাবেন না। কোন কোন দেশকে অনুমতি দেওয়া হবে সেই তালিকা প্রকাশ করবে দেশটির সরকার। সউদীর হজ ও ওমরাহ বিষয়ক জাতীয় কমিটির সদস্য হানি আল-ওমাইরি আল আরাবিয়াকে বিশেষ সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানান।
তিনি জানান, ওমরাহ পালন করতে আসা বিদেশিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে করোনা সংক্রান্ত সব ধরনের সাবধানতা ও নিয়ম-কানুন কঠোরভাবে মেনে চলা হবে।  
এর আগে গত বছরের ১ নভেম্বর সউদী আরবের বাইরে থেকেও মুসল্লিরা ইবাদতের উদ্দেশে মসজিদুল হারামে প্রবেশের সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু কয়েকটি দেশে করোনার দ্বিতীয় ও তৃতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়ায় সংক্রমণ এড়াতে তা স্থগিত করা হয়। আর এ বছর ‘বিশেষ শর্ত’ অনুযায়ী হজ আয়োজন করেছে সউদী আরব সরকার।
সউদী প্রেস এজেন্সি (এসপিএ) জানিয়েছে, হজ মৌসুম শেষ হওয়ায় ওমরাহ পালনের জন্য রোববার থেকে ইসলামিক পবিত্র স্থাপনাগুলো পুনরায় খুলে দিয়েছে সউদী আরব। মক্কার পবিত্র মসজিদুল হারামের ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত উপ-প্রধান সাদ বিন মোহাম্মদ আল-মুহাইমিদ রোববার জানান, ‘ইবাদতকারী ও ওমরাহ পালনকারীদের গ্রহণে প্রস্তুত পবিত্র মসজিদুল হারাম।’
এদিকে বাইরের দেশ থেকে ওমরাহ পালনে সউদীতে প্রবেশ করতে ইচ্ছুক মুসল্লিদের জন্য কিছু শর্ত আরোপ করেছে দেশটি। কেবল ৯টি দেশ ছাড়া বিশ্বের সকল দেশ থেকেই সরাসরি ফ্লাইটে সউদী আরবে প্রবেশ করা যাবে।
এই ৯টি দেশ হচ্ছে- ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, মিসর, তুরস্ক, আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা ও লেবানন। এই দেশগুলো থেকে কোনো মুসল্লি সউদী আরবে প্রবেশ করতে চাইলে তৃতীয় কোনো দেশে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।
এছাড়া ওমরাহ পালনে ইচ্ছুক সবাইকে বাধ্যতামূলকভাবে করোনার টিকার উভয় ডোজ গ্রহণ সম্পন্ন করতে হবে। টিকা হতে হবে ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের।
তবে যারা চীনের তৈরি টিকার উভয় ডোজ নিয়েছেন, ওমরাহ পালনে সউদী আরবে ঢুকতে হলে তাদেরকে ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার বাড়তি বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে হবে।
১৮ বছর বা এর ঊর্ধ্ব বয়সীরাই কেবল ওমরাহ পালনের অনুমতি পাবেন। এছাড়া সউদী আরবের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় থেকে স্বীকৃত ওমরাহ এজেন্সির মাধ্যমেই কেবল সউদী আরবে আসতে পারবেন মুসল্লিরা।
উল্লেখ্য, গত বছরের মতো এ বছরও করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে পালিত হয় পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা। বাইরের দেশ থেকে কেউ অনুমতি না পেলেও চলতি মাসে সীমিত পরিসরে ও কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সউদী আরবে থাকা ১৫০টি দেশের নাগরিকসহ এবারের হজে অংশ নেন ৬০ হাজার মুসল্লি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন