শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২ আশ্বিন ১৪২৮, ০৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মাদরাসাছাত্রীকে ছুরিকাঘাত

রংপুর থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ জুলাই, ২০২১, ৯:০৩ পিএম

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ভোরে ঘুম থেকে ডেকে তুলে উপুর্যপুরি ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত করা হয়েছে এক মাদরাসাছাত্রীকে। গুরুতর আহত ওই ছাত্রী বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার অবস্থা অত্যন্ত আশঙ্কাজনক। ঘটনাটি ঘটেছে আজ বুধবার সকালে উপজেলার লোহানীপাড়া ইউনিয়নের প্রত্যন্ত এক পল্লীতে।


জানা গেছে, লোহানী পাড়া ইউনিয়নের তোয়াব আলীর মেয়ে তারমিনা আক্তার (১৪) পার্শ্ববর্তী লোহানীপাড়া দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রী। তার বড় বোন তাহমিনার বিয়ে হয় মিঠাপুকুর উপজেলার বড়বালা ইউনিয়নের পশ্চিম বড়বালা এলাকায়। বড় বোনের বাড়ি যাতায়াতের কারণে ওই এলাকার মোনায়েম হোসেনের বখাটে ছেলে শাখাওয়াত হোসেনের কুনজরে পড়ে তারমিনা। এক পর্যায়ে শাখাওয়াত তাকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। তারমিনা এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করলে শাখাওয়াত হোসেন তারমিনাকে নানাভাবে উত্যক্ত করতে থাকে। এরইমধ্যে বুধবার তারমিনা আক্তারের অন্যত্র বিয়ের দিন ঠিক করেন তার বাবা-মা। এ ঘটনা জানতে পেয়ে শাখাওয়াত হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং বুধবার ভোরে মোটরসাইকেল যোগে নিজ বাড়ি থেকে প্রায় ৮ কিলোমিটার দূরে তারমিনার বাড়িতে আসে। এ সময় বাড়ির সবাই ঘুমিয়ে থাকায় কৌশলে ঘুমন্ত তারমিনাকে ডেকে ওঠায়। তারমিনা দরজা খুলতেই শাখাওয়াত ধারালো ছুরি দিয়ে দুই পা, মুখ, কপাল ও পাজরে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। তারমিনা চিৎকার দিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে বাড়ির লোকজন তার চিৎকার শুনে ঘুম থেকে উঠে এসে মুমুর্ষ অবস্থায় তারমিনাকে উদ্ধার করে। এ সময় শাখাওয়াত হোসেনকে ধাওয়া করলে মোটরসাইকেল নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে তারমিনাকে গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেখানে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার অবস্থা সংকটজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন