বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

লালপুরে লোকালয়ে দলছুট মুখপোড়া হনুমান

লালপুর (নাটোর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩১ জুলাই, ২০২১, ৭:২৮ পিএম

এবার নাটোরের লালপুর উপজেলার ওয়ালিয়া এলাকায় দেখা মিলেছে বিরল প্রজাতীর মুখপোড়া হনুমানের। শনিবার (৩১ জুলাই) সকাল থেকে দলছুট হয়ে মুখপোড়া হনুমান কে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায় ওয়ালিয়ার বিভিন্ন এলাকায়। হনুমানটি যেখানেই যাচ্ছে, সেখানেই কৌতূহলী এলাকাবাসী ভিড় করে সেটিকে দেখছে। কেউ কেউ আবার তাকে কলা-রুটি খেতে দিচ্ছে।


স্থানীয়রা জানান, সকাল ৯টার দিকে ওয়ালিয়া বাজারের ব্রিজ এলাকায় প্রথম এই হনুমান কে দেখা যায়, কৌতূহলী জনতার ভির বাড়লে হনুমানটি বাজারের বিভিন্ন উঁচু স্থানে আশ্রয় নেয়। মানুষের ভিড় বেড়ে গেলে হনুমানটি স্থান পরিবর্তন করে অন্যত্র সরে যাচ্ছে। কেউ কেউ এটিকে কলা, বিস্কুট, পাউরুটি খাওয়ানোর চেষ্টা করছে। তবে প্রাণীটি কীভাবে এবং কোথা থেকে ওয়ালিয়া বাজারে এসেছে, তা কেউ জানে না।


স্থানীয় সামাজিক সংগঠন ওয়ালিয়া তরুণ সমাজের উপদেষ্টা মোস্তফা বায়েজিদ কাদের বলেন,‘মুখপোড়া হনুমান বৃক্ষচারী শান্তিপ্রিয় প্রাণী। চলাফেরা, ঘুম, খাবার সংগ্রহ, প্রজনন, খেলাধুলা, বিশ্রাম সবকিছু এরা গাছে সম্পন্ন করে। মূলত গাছের পাতা খেয়ে জীবনধারণ করে। তাছাড়া বিভিন্ন উদ্ভিদের পরাগায়ণ ও বংশবৃদ্ধিতেও এরা সহায়তা করে থাকে। বর্তমানে জনসংখ্যার চাপ, শিল্পায়ন ও কৃষিক্ষেত্রের স¤প্রসারণের জন্য বনভূমি হ্রাস পাওয়ায় অস্তিত্বর সংকটে পড়ার কারণেই এরা লোকালয়ে এসেছে বলে জানান তিনি।’


লালপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম জানান,‘বণ্যপ্রাণী আমাদের দেশের জাতীয় সম্পাদ। এরা খাবারের সন্ধানে বন ছেড়ে লোকালয়ে এসেছে। এলাকাবাসী প্রাণীটির যেন কোনো ক্ষতি না করে, সে বিষয়ে সবার সচেতনতা কামনা করছি এবং বিষয়টি স্থানীয় প্রশসন সহ কলকে জানোনো হয়েছে। ’


স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান জানান, ‘হনুমানটি সকাল থেকে ওয়ালিয়া বাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। প্রাণীটি খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে এসেছে। এলাকাবাসী প্রাণীটির যেন কোনো ক্ষতি না করে, সে বিষয়ে সবার সচেতনতা কামনা করছি।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন