বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

নিরাপত্তার অবনতিতে যুক্তরাষ্ট্রকে দুষলেন প্রেসিডেন্ট গনি

১০ সেনা-পুলিশ হত্যার দাবি তালেবানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০২১, ১২:০১ এএম

আফগানিস্তানে দ্রæত অবনতিশীল নিরাপত্তা পরিস্থিতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের আকষ্মিকভাবে নেওয়া সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে দায়ী করেছেন প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি। তবে তিনি বলেন, ছয় মাসের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার পরিকল্পনা তার সরকারের আছে। তালেবান যোদ্ধারা গত কয়েকদিনে তিনটি প্রাদেশিক রাজধানীতে প্রবেশ করেছে। যুক্তরাষ্ট্র আগামী সেপ্টেম্বর সময়সীমার মধ্যে সেনা প্রত্যাহার শেষের পরিকল্পনা ঘোষণার পর থেকেই আফগানিস্তানে দ্রæত তালেবানের অগ্রযাত্রা ঘটেছে।
আফগানিস্তানের পার্লামেন্টে এক ভাষণে প্রেসিডেন্ট গনি বলেছেন, ‘হঠাৎ বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তের কারণে বর্তমান পরিস্থিতির উদ্ভব ঘটেছে। গত তিন মাসে আমরা অপ্রত্যাশিত এক পরিস্থিতি দেখতে পেয়েছি’। তবে গনি বলেন, ছয়মাসের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার একটি পরিকল্পনা আফগান সরকারের আছে। যুক্তরাষ্ট্র এ পরিকল্পনা সমর্থন করেছে। অবনতিশীল এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আনা পর্যন্ত তালেবান শান্তির পথে হাঁটবে না।
আফগান সরকার এবং তালেবান আলোচকদের মধ্যে গতবছর কাতারের রাজধানী দোহায় শান্তি আলোচনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু সে আলোচনায় তেমন কোনও অগ্রগতি হয়নি। যদিও স¤প্রতি দোহায় উচ্চ পর্যায়ের আফগান প্রতিনিধিদল এবং তালেবানের মধ্যে এক সা¤প্রতিক বৈঠকে দু’পক্ষ আলোচনা ত্বরান্বিত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয়েছে। আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি বলেন, জঙ্গিরা সন্ত্রাসী গ্রæপগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেনি, বরং তারা নারী ও নাগরিক সমাজের ওপর হামলা জোরদার করেছে।
তালেবান এবং আফগান সরকারের একে অপরকে মেনে নেওয়া এবং সহিংসতার শান্তিপূর্ণ সমাধানের পথে এগিয়ে যাওয়ার এখনই সময়, বলেন তিনি। তবে হামলা জোরদারের বিষয়ে গনির অভিযোগ তালেবান অস্বীকার করেছে। তালেবানের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ টুইটারে বলেছেন, ‘যুদ্ধ ঘোষণা, অভিযোগ এবং মিথ্যাচার গনি সরকারকে দীর্ঘস্থায়ী করবে না। আল্লাহর ইচ্ছায় তার সময় শেষ হয়ে এসেছে’।
১০ সেনা-পুলিশ হত্যার দাবি তালেবানের
এদিকে আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশে হামলা চালিয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর ১০ সদস্যকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে তালেবান। আফগান বাহিনীর সঙ্গে তালেবান যোদ্ধাদের কান্দাহার, হেরাত ও লস্করগাহে তীব্র লড়াইয়ের পর এবার নানগারহার প্রদেশে হামলার খবর এলো। খবরে বলা হয়, তালেবান নানগারহার প্রদেশে হামলা চালিয়ে ১০ সেনা ও পুলিশকে হত্যা করেছে। যদিও তালেবানের এ দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে কর্তৃপক্ষ। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, এ সংঘর্ষে তালেবানের ১৪ জন নিহত হয়েছে। অপরদিকে সরকারি বাহিনীর মাত্র দুজন প্রাণ হারিয়েছেন। সূত্র : রয়টার্স ও আল-জাজিরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Taka ৩ আগস্ট, ২০২১, ১:১৬ পিএম says : 0
নানগারহার প্রদেশ তো আই এসের দখলে।এই খানে তালেবান কথেকে আস্ল?আর এই যুদ্ধে আই এস আর আল কাইদা চুপ কেন?আমার মনে হয় আন্তরজাতিক নিউজ চ্যানেল গুলি ভুল খবর দিতাসে।
Total Reply(0)
Zakiul Islam ৩ আগস্ট, ২০২১, ৯:৩৯ এএম says : 0
আশরাফ গানি, আপনি জনগন কর্তৃক নির্বাচিত নন। তালেবানরা সৈনিক নয়, তারা সাধারণ জনগন, সাধারণ জনগন আপনার কাছ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য তালেবান্ দের পতাকা তলে জড়ো হয়েছে । আমেরিকা এবং পাশচ্যাতে্‌র নারী শিক্ষা ,নারী অধিকার, তা নিয়ে আপনার মায়া কান্না , ইত্যাদি দিয়ে আপনি ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না । আপনি পদত্যাগ করে দেশ কে মুক্তি দিন ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন