শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

খুলনায় অসুস্থ বৃদ্ধ পিতামাতার দায়িত্ব না নেয়ায় তিন ছেলে আটক

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩ আগস্ট, ২০২১, ৩:৪৪ পিএম

খুলনার পাইকগাছা উপজেলার গোপালপুর গ্রামের ৯৫ বছরের বৃদ্ধ মেছের আলী গাজী। তার স্ত্রী সোনাভান বিবির বয়স ৭৫। অসুস্থ এ বৃদ্ধ দম্পতির তিন পুত্র সন্তান। যে বয়সে তাদের সন্তানদের সাথে নিশ্চিন্তে থাকার কথা, সে বয়সে তারা পথে পথে ঘুরে বেড়ান। দোকানে-বাজারে কেউ দয়া করে কিছু খেতে দিলে খান, নাহলে অনাহারে কাটে সারা দিন। ছেলেরা কেউ তাদের দায়িত্ব না নিয়ে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। এর আগে একবার সামাজিক চাপে পড়ে তিন ছেলে দায়িত্ব নিয়েছিল তাদের, কিন্তু ক দিন যেতেই সাফ জানিয়ে দেয়, পিতামাতাকে খাওয়ানো বা বাড়িতে রাখার সামর্থ্য তাদের নেই।

এ অভিযোগ জানার পর পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ বি এম খালেদ ও পাইকগাছা থানার ওসি এজাজ শফী সোমবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে উপজেলার ৭ নং গদাইপুর ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামে যান। সেখানে গিয়ে এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করলে তা জানতে পেরে তিন ছেলে মো. মোতালেব গাজী (৬০), মশিয়ার রহমান গাজী (৪৫) ও মোশারফ গাজী (৪০) নিজেরাই মারামারি ও কথা কাটাকাটিতে লিপ্ত হয়ে পড়েন। কেউই তাদের পিতা মাতার দায়িত্ব নিতে চান না। পিতা মাতা তাদের কাছে বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এ অবস্থায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাদের গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। অসুস্থ বৃদ্ধ এ দম্পতির ভরণপোষণের দায়িত্ব নেয় উপজেলা প্রশাসন।
পিতা মাতার ভরণ পোষণ আইন ২০১৩ এ তাদের বিরুদ্ধে মামলা হবে বলে জানিয়েছেন পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এজাজ শফী। তিনি জানান, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। পিতা মাতার অভিযোগ প্রাপ্তি সাপেক্ষে মামলা হবে। আটকের পর আজ তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। বিষয়টি সমাজ সেবা অধিদফতরকে লিখিত ভাবে জানানো হবে যাতে এ দম্পতিকে স্থায়ীভাবে নিরাপদ আশ্রয়স্থল দেয়া যায়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
খন্দকার আব্দুল মহিত ৩ আগস্ট, ২০২১, ৬:২৯ পিএম says : 0
নির্বাহী কর্মকর্তাও ওসি সাহেবকে ধন্যবাদ।গোয়ালন্দে বসবাসরত ফরিদপুর পৌরসভার হিসাবরক্ষক গবিন্দ মন্ডলের তিনতালা বাড়ি আছে।ফ্লাট সংখ্যা আটটা।কিন্তু তার বাবা থাকে মন্দিরের বারান্দায়।জমি তার বাবার কিন্তু জমি লিখে নিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে।বাবা কোথায়ও বিচার পায় না।আমরা এর বিচার চাই।বাবার নান ব্রজবাসী মন্ডল।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন