শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

পাকিস্তানের অন্যান্য বিকল্প রয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রকে এনএসএ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২১, ৫:১৪ পিএম

পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মঈদ ইউসুফ


পাকিস্তানের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মঈদ ইউসুফ বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন যদি দেশের নেতৃত্বকে অবহেলা করতে থাকেন তাহলে পাকিস্তানের কাছে অন্যান্য বিকল্প আছে।

দ্য ফিনান্সিয়াল টাইমসকে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে ইউসুফ বলেছেন, ‘মার্কিন প্রেসিডেন্ট এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি দেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেননি, যাকে আমেরিকা নিজেই আফগানিস্তানের বিষয়ে কিছু ক্ষেত্রে অপরিহার্য বলে উল্লেখ করেছে। আমরা তাদের উদ্দেশ্য বোঝার চেষ্টা করছি।’ তিনি বলেন, ‘প্রতিবারই আমাদের বলা হয়েছে যে ফোন দেয়া হবে। তবে এই বিলম্ব প্রযুক্তিগত কারণ বা যাই হোক না কেন, সত্যি বলতে মানুষ এটা বিশ্বাস করে না। তারা যদি ফোন কলকে গুরুত্ব না দেয়, নিরাপত্তা সম্পর্কে গুরুত্ব না দেয়, তবে পাকিস্তানের কাছে বিকল্প আছে।’ তবে তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত বলতে অস্বীকার করেন।

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর অবশ্য ইসলামাবাদকে আশ্বস্ত করেছে যে, ওয়াশিংটন আফগানিস্তানে শান্তি ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে পাকিস্তানের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা স্বীকার করে এবং দেশটি সেই ভূমিকা পালন করতে চায়। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস বলেন, ‘পাকিস্তানের অনেক কিছু পাওয়ার আছে এবং সে সমালোচনামূলক ভূমিকা অব্যাহত রাখবে।’ সোমবার ওয়াশিংটনে সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে মি প্রাইস বলেন, ‘শুধু যুক্তরাষ্ট্রই নয়, আমাদের অনেক আন্তর্জাতিক অংশীদার, এই অঞ্চলের অনেক দেশও পাকিস্তানের কাছ থেকে এই সহায়ক ভূমিকা চায়। সুতরাং, আমরা কাজ চালিয়ে যাব এবং আমাদের পাকিস্তানি অংশীদারদের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে যোগাযোগ রক্ষা করব।’ বাইডেন প্রশাসনের একজন কর্মকর্তা এফটিকে বলেছেন, ‘এখনও অনেক বিশ্বনেতা আছেন যাদের সাথে প্রেসিডেন্ট বাইডেন এখনও ব্যক্তিগতভাবে কথা বলতে পারেননি। তিনি সময় হলে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে কথা বলবেন।’

কিন্তু দ্য ফিনান্সিয়াল টাইমস মঙ্গলবার রিপোর্ট করেছে যে, ওয়াশিংটনে তাদের সংবাদদাতাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মঈদ ইউসুফ প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাথে যোগাযোগ করতে ব্যর্থ হওয়ায় প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সমালোচনা করেন। পত্রিকাটি উল্লেখ করেছে যে, যদিও ইউসুফ তার বিকল্পগুলো বিস্তারিতভাবে বলেননি, তবে পাকিস্তান তার 'লৌহ ভাই' চীনের সাথে গভীর সম্পর্ক গড়ে তুলেছে, যারা বেল্ট অ্যান্ড রোড উদ্যোগের অংশ হিসাবে অবকাঠামো প্রকল্পে কোটি কোটি বিনিয়োগ করেছে। সূত্র : ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন