শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলবে কি না জানা যাবে কাল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ আগস্ট, ২০২১, ৫:৪০ পিএম

দেশে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচলের ওপর বিধিনিষেধও বাড়ল। বিধিনিষেধ ১০ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তবে বিদেশগামী ও বিদেশফেরত যাত্রীদের জন্য অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চালু থাকবে। সরকার যে সিদ্ধান্ত দিবে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) সেটা বাস্তবায়ন করবে বলে ইনকিলাবকে জানিয়েছেন বেবিচকের পরিচালক (কাষ্টমার) সিদ্দিকুর রহমান। তিনি বলেন,৫ আগস্ট পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বন্ধ আছে। আগামীকাল চলমান বিধিনিষিধে কি থাকবে তা বলা যাচ্ছে না।

দেশে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ বা লকডাউনের মেয়াদ আরো ৫ দিন বাড়িয়ে আগামী ১০ আগস্ট পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী ১১ আগস্ট থেকে অফিস-আদালত, দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং সীমিত পরিসরে গণপরিবহন খুলে দেওয়া হবে। তবে টিকা গ্রহণ ছাড়া কেউ কর্মস্থলে আসতে পারবেন না। এক সপ্তাহ ব্যাপকভিত্তিক টিকাদান কার্যক্রম পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। করোনা মহামারির মধ্যে মাস্ক না পরে ঘরের বাইরে বের হলে তাদের জরিমানা করার ক্ষমতা পুলিশকে দেয়া হচ্ছে। গত মঙ্গলবার সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সভাকক্ষে সভা শেষে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এ তথ্য জানান।
এর আগে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) একটি বিজ্ঞপ্তিতে লাা হয়েছিল, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী দেশে সব ধরনের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তবে মেডিকেল সামগ্রী ও ত্রাণ পরিবহন সংক্রান্ত ফ্লাইট চলাচল এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। এসব ফ্লাইট পরিচালনার সময় জীবাণুনাশক কার্যক্রম, সামাজিক দূরত্বসহ সব স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানার নির্দেশনা দিয়েছে বেবিচক।

বেবিচক জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহেল কামরুজ্জামান বলেন, ৫ আগস্ট পর্যন্ত অভ্যন্তরীণ গন্তব্যগুলোতে ফ্লাইট পরিচালনার যে বিধিনিষেধ ছিল, তা বাড়ানো হয়েছে। তবে বিদেশগামী ও বিদেশফেরত যাত্রীদের যাতায়াতের জন্য দেশের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলবে।

বিধিনিষেধের অংশ হিসেবে ১ জুলাই থেকে দেশের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট পরিচালনা বন্ধ। তবে বিদেশগামী ও বিদেশফেরত যাত্রীদের জন্য অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচলের অনুমতি দিয়েছিল বেবিচক। বিমান বাংলাদেশ, নভোএয়ার, ইউএস-বাংলা—এই তিন এয়ারলাইনস কর্তৃপক্ষ বিদেশগামী যাত্রী, যাঁদের আন্তর্জাতিক ভ্রমণের টিকিট আছে, তাঁদের অভ্যন্তরীণ গন্তব্যগুলোতে যাতায়াতের অনুমতি দেয়।

করোনার সংক্রমণ কমাতে সব ধরনের অফিস বন্ধ রেখে গত ১ থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকর করে সরকার। এরপর কোরবানির ঈদের আগে ১৫ জুলাই থেকে আট দিনের জন্য সব বিধিনিষেধ তুলে নেওয়া হয়। ২৩ জুলাই থেকে ফের ১৪ দিনের কঠোর বিধিনিষেধ চলছে, যা ৫ আগস্ট শেষ হবে। শেষ ধাপের বিধিনিষেধের মধ্যে সব ধরনের শিল্প কলকারখানা বন্ধ রাখা হলেও গত রোববার থেকে রপ্তানিমুখী শিল্পকারখানাগুলো খুলে দেওয়া হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন