শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সফর ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

বাংলাদেশ থেকেই পাকিস্তানে যাবে নিউজিল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ আগস্ট, ২০২১, ১২:২২ এএম

দেড় যুগ পর পাকিস্তান সফরের সম্ভাবনার কথা কদিন আগে জানিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। এতদিন সবকিছু ছিল আলোচনার টেবিলে। অবশেষে এলো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। বাংলাদেশ সফর শেষে এখান থেকেই প্রতিবেশি দেশটিতে যাবে কিউইরা। পাকিস্তান সফরে তিনটি ওয়ানডে ও পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে নিউজিল্যান্ড। এরপরই এক বিবৃতিতে এই দুই সিরিজের সূচি প্রকাশ করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

এর আগে আগামী ২৪ আগস্ট বাংলাদেশ সফরে আসবে নিউজিল্যান্ড। দুই দলের পাঁচ টি-টোয়েন্টির সিরিজ শেষ হবে ১০ সেপ্টেম্বর। পরদিনই পাকিস্তানে পা রাখবে তারা। পাকিস্তানে গিয়ে তিন দিনের আইসোলেশনে থাকতে হবে নিউজিল্যান্ড দলকে। এরপর দুই দিন পাবে অনুশীলনের সুযোগ। আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে শুরু হবে দুই দলের মাঠের লড়াই। ম্যাচ তিনটি হবে ১৭, ১৯ ও ২১ সেপ্টেম্বর। সব খেলাই রাওয়ালপিন্ডিতে। ২৫ সেপ্টেম্বর শুরু টি-টোয়েন্টি সিরিজ। পরের চারটি ম্যাচ ২৬ ও ২৯ সেপ্টেম্বর এবং ১ ও ৩ অক্টোবর। সব টি-টোয়েন্টিই হবে লাহোরে।
এই সফর দিয়ে ১৮ বছর পর পাকিস্তানে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড। সবশেষ ২০০৩ সালের সফরে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে স্বাগতিকদের বিপক্ষে হোয়াইটওয়াশড হয়েছিল তারা। দীর্ঘ এই সময়ে নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তানে না যাওয়ার কারণ দেশটির নিরাপত্তা সমস্যা। ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর ৬ বছর পাকিস্তানে বন্ধ ছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। সেই সময়ে পাকিস্তান তাদের ‘হোম ম্যাচ’ খেলেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।
এরপর ধীরে ধীরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরতে শুরু করে পাকিস্তানে। গত বছর শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকা সেখানে খেলে এসেছে টেস্ট ক্রিকেট। ওয়ানডে খেলেছে জিম্বাবুয়ে, লঙ্কানরা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, বাংলাদেশসহ আরও কয়েকটি দেশ খেলেছে টি-টোয়েন্টি। এসবই আস্থা জোগাচ্ছে নিউজিল্যান্ডকে। তাই তারা সফরে যেতে রাজি হয়েছে।
তবে দলটির নিয়মিত অনেক ক্রিকেটারকে এই সফরে পাওয়া নিয়ে জেগেছে শঙ্কা। কারণ, আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর শুরু হবে স্থগিত হওয়া আইপিএলের বাকি অংশ। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে কেন উইলিয়ামসন, মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ট্রেন্ট বোল্ট, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে খেলেন কাইল জেমিসন। বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিতে আছেন আরও অনেকেই। আবার টুর্নামেন্টটি হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে, যেখানে এর দু’দিন পরই শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সবকিছু মিলিয়ে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের কর্মকর্তাদের ভাবতে হচ্ছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে দলের নিয়মিত ক্রিকেটারদের কোথায় পাঠালে ভালো হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন