বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সামসুল আলামিন রিয়েল এস্টেটকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা ডিএনসিসির

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ আগস্ট, ২০২১, ১২:০১ এএম

মিরপুরের মাজার রোড এলাকায় সামসুল আলামিন রিয়েল এস্টেটের একটি নির্মাণাধীন ভবনে এডিস মশার উৎপত্তিস্থল চিহ্নিত হওয়ায় কোম্পানিটির সাইট ইঞ্জিনিয়ার মোঃ গোলাম মোস্তফাকে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১৫ দিনের কারাদন্ড প্রদান করেছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মোবাইল কোর্ট।

ডিএনসিসির ৪ নম্বর অঞ্চলের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সালেহা বিনতে সিরাজ পরিচালিত মোবাইল কোর্টে এ সাঁজা প্রদান করা হয়। এছাড়া ২ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এস এম সফিউল আজম পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৩টি মামলায় ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এসময় মাইকিং করে জনসচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হয় এবং সকলকে এডিস মশা এবং ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া প্রতিরোধে ডিএনসিসি মেয়রের আহবান ‘তিন দিনে এক দিন, জমা পানি ফেলে দিন’ মানার পাশাপাশি ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনাসহ স্বাস্থ্যবিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলার পরামর্শ দেয়া হয়।

এদিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ২ নম্বর আঞ্চনিক নির্বাহী কর্মকর্তা অভিযানে গিয়ে হমভম্ব হয়ে গেছেন বিপুল পরিমাণ এডিস মশার লার্ভা দেখে। বাসাবোর এ অভিযানে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন দাস ও অভিযান পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন। বাসাবোর এই অভিযানে বিজয় ডেভেলপমেন্ট লিঃ নামক আবাসন উন্নয়নকারী প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমানকে ২ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। বিস্ময়ে হতভম্ব আঞ্চনিক নির্বাহী কর্মকর্তা সুয়ে মেন জো বলেন, এটা অনেকটা ইতিহাস, রেকর্ডের মতো। গত জুন মাস থেকে অগাস্টের আজকের দিন পর্যন্ত আমরা অভিযান পরিচালনা করছি, ডেঙ্গুর লার্ভা ধ্বংসের কাজে আমরা নিয়োজিত আছি।

কিন্তু আজকে এই এলাকায় এই নির্মাণাধীন ভবনে যে পরিমাণ লার্ভার অস্তিত্ব পাওয়া গেছে, সেটা গত আড়াই মাস আমরা কেউ দেখি নাই। এটা একেবারে অবিশ্বাস্য। দুই দুইটা পানির হাউজের মধ্যে কোটি কোটি লার্ভা এবং এটার ভিতর (হাউজগুলোর ভেতর) ধ্বংস করার জন্য যখন মশার ওষুধ দেওয়া হচ্ছে তখন উড়ন্ত এডিস মশাগুলো এখান থেকে উঠে আসতেছিল। সার্বক্ষণিকভাবে মশা এখানে উৎপন্ন হয়েই যাচ্ছে।

এদিন অভিযানে ডিএসসিসির ৯টি ভ্রাম্যমাণ আদালত মোট ১০৬১টি বাড়ি পরিদর্শন করেন এবং ১১টি নির্মাণাধীন ভবন ও বাসা-বাড়িতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় সর্বমোট ১১ মামলায় ২ লক্ষ ৬৬ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন