শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সিলেটের শান্ত সুবোধ সেই রাজ্জাক, এখন তালেবান যুদ্ধা !

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৫ আগস্ট, ২০২১, ৭:১০ পিএম

তাবলিগ জামাতের আব্দুল রাজ্জাক। শান্ত সুবোধ সিলেটের সেই ছেলেটি এখন তালেবান যুদ্ধা। হঠাৎ একদিন বন্ধুদের সঙ্গে নিখোঁজ হন তিনি। খোঁজ নিয়ে পুলিশ জানায়, রাজ্জাক আফগানিস্তানে চলে গেছেন। বিশ্বাস করতে পারছিলেন না তার আত্মীয়-স্বজন। পুলিশ নিশ্চিত করে জানায়, আব্দুর রাজ্জাক এখন আফগানিস্তানে অবস্থান করছেন। পুলিশের বক্তব্য, কথিত ‘হিজরত’ আর ‘মুসলমানদের রক্ষার’ নামে আব্দুর রাজ্জাকের বাড়িছাড়া। বড় ভাই সালমান খান কাছে তার নিখোঁজের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও ‘মুসলমানদের রক্ষার নামে তার আফগানযাত্রা’ কোনোভাবেই মানতে রাজি নন। কলেজে ভর্তির পর বন্ধুদের সঙ্গে একাধিকবার তাবলিগে গিয়েছিলেন আব্দুর রাজ্জাক। বাসায় টিভি, ল্যাপটপ কিছুই নেই। কয়েক মাস আগেই স্মার্ট ফোন কিনেছেন ২০ বছর বয়সী এ যুবক। বাসায় কাউকে টিভি দেখতে দিতেন না, গান শুনতেও মানা। মোবাইলের ইউটিউবে ধর্মীয় বিভিন্ন বক্তার ওয়াজে মগ্ন থাকতেন তিনি। বড় ভাই সালমান গণমাধ্যমকে জানান, গত ২৪ মার্চ সন্ধ্যা ৭টায় বাসা থেকে বের হন আব্দুর রাজ্জাক। ‘দুদিন বন্ধুর বাসায় থাকব’- এমনটি বলে তিনি সিলেট নগরীর লামাবাজারস্থ বাসা ছাড়েন তিনি। সেখান থেকে রাজ্জাক যান বন্ধু ফরিদের বাসায়। ফরিদ যেহেতু লামাবাজার এলাকার ভাতলিয়া মসজিদের হুজুর, মসজিদের কোয়াটারেই সে থাকে, এ কারণে বাধা দেইনি। এরপর সে আর ফিরে আসেনি। সালমান খান আরও বলেন, ‘২৫ মার্চ থেকে সে নিখোঁজ। অনেক খোঁজাখুঁজি করেছি। শেষমেশ ১ এপ্রিল সিলেটের কোতোয়ালি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করি’। ওই জিডির সূত্র ধরে সালমানের সঙ্গে যোগাযোগ করে সিটিটিসি। দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে তারা জানায়, ‘রাজ্জাক চলে গেছে আফগানিস্তানে।’ এদিকে গত শনিবার (১৪ আগস্ট) রাতে রাজ্জাকের ভাই সালমান খান বলেন, রাজ্জাক লামাবাজারের একটি কলেজের শিক্ষার্থী। ছোটবেলা থেকেই খুব শান্ত প্রকৃতির সে। দ্বিতীয় শ্রেণি থেকে নিয়মিত নামাজ আদায় করে। খুব বেশি নয়, হাতেগোনা কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে ছিল তার চলাফেরা। প্রয়োজন ছাড়া পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে কথা বলত না রাজ্জাক। এলাকায় তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ নেই। রাজ্জাকের ভাইয়ের বক্তব্য অনুযায়ী, একা একা থাকতে পছন্দ করতেন রাজ্জাক। কলেজ বন্ধ থাকলে বন্ধুদের সঙ্গে তাবলিগ জামাতে যেতেন। সব সময় কম কথা বলতেন। কাজ ছাড়া অতিরিক্ত কথা বলতেন না। রাজ্জাক বলতেন, ‘অতিরিক্ত কথা বলে যদি কারও মনে কষ্ট দিয়ে থাকি তাহলে তো আমি পাপ করে ফেললাম। এ কারণে কম কথা বলাই ভালো।’ বড় ভাই সালমান বলেন, ‘ফোনেও কারও সঙ্গে বেশি কথা বলত না সে। গান-বাজনা পছন্দ করত না। ঘরে কোনো দিন টিভিও কিনতে দেয়নি।’ আমাকে প্রায়ই বলত, ‘মুসলমানদের ওপর অত্যাচার করে সবাই মজা পায়। সবাই শুধু মুসলমানদের ওপর দোষ চাপায়। আমরা (মুসলমানরা) কী এতই খারাপ? পৃথিবীতে আমাদের কি কোনো দাম নেই?’ আমরাও বিষয়টি তেমন গুরুত্ব দেইনি বলেন সালমান।

সম্প্রতি আব্দুর রাজ্জাকের সন্ধান দিয়েছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। সংস্থাটি বলছে, ভারত হয়ে রাজ্জাক এখন আফগানিস্তানে অবস্থান করছেন। তিনি একা নন, তার সঙ্গে আরও অনেক বাংলাদেশি যুবক আছেন। সেখানে তালেবানদের সহযোগী হিসেবে তারা কাজ করছেন।

সিটিটিসি’র পুলিশ সুপার (এসপি) পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে জানান, সম্প্রতি তারা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেপ্তার হওয়া কয়েকজন জঙ্গিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। তারা জানান, তাদের অনেক বন্ধু কথিত হিজরতের নামে আফগানিস্তান গেছেন। তাদের মধ্যে রাজ্জাকও রয়েছেন। রাজ্জাকের ছবি দেখে তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিটিটিসিকে ।

রাজ্জাক কীভাবে আফগানিস্তানে গেল— জানতে চাইলে সিটিটিসি জানায়, প্রথমে ভারত, এরপর পাকিস্তান হয়ে তিনি আফগানিস্তান পৌঁছেছেন। হিজরতের নামে তালেবানদের সঙ্গী হয়ে যুদ্ধ করাই তার মূল উদ্দেশ্য। রাজ্জাক শুধু একাই যাননি। তার মতো আরও অনেক যুবক হিজরতের নামে গ্রুপ করে তালেবানদের ডাকে আফগানিস্তানে যাচ্ছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিটিটিসি’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অ্যাডিশনাল এসপি) পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা বলেন, অনেক আগে থেকেই আমরা রাজ্জাকের বিষয়ে জানতাম। আফগানিস্তান যেতে পারেন এমনও সন্দেহ ছিল। ‘শুধু রাজ্জাক নন তার মতো আরও অনেকে বর্তমান আফগান-পরিস্থিতি নিয়ে বেশ উদ্বেলিত। তাদের মধ্যে তালেবান ফ্যান্টাসি কাজ করছে। তালেবানদের সঙ্গে তারাও বিজয়ের সঙ্গী হতে চান। এ কারণে দলে দলে সেখানে (আফগানিস্তান) যাওয়ার চেষ্টা করছেন। অনেকে সফলও হয়েছেন’ বলেন এ পুলিশ কর্মকর্তা।

এদিকে, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, সম্প্রতি তালেবানরা আফগানিস্তান যুদ্ধে অংশ নিতে মুসলিম যুবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে কিছু যুবক কথিত হিজরতের নামে ঘর ছেড়েছেন। বাংলাদেশ থেকেও গেছেন। তবে ঠিক কতজন গেছেন এ মুহূর্তে সংখ্যাটি বলা যাচ্ছে না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
Abrarul Haque ১৫ আগস্ট, ২০২১, ৯:০৬ পিএম says : 0
ইমানি চেতনা বিন্দু পরিমাণ যার মাঝে আছে সে কখনো একটি সুন্নত হিজরত কে কথিত হিজরত বলতে পারেনা ৷৷ আল্লাহ সহীহ বুঝ দান করুক ৷৷
Total Reply(1)
jack Ali ১৮ আগস্ট, ২০২১, ৬:০৪ পিএম says : 0
যারা আমরা মুসলিম বলে দাবি করে তারা কখনও কোরআন হাদিস পড়ে না আমাদের দেশ নাকি 95 পার্সেন্ট মুসলিম দেশ অথচ কাফের আইন দিয়ে দেশ চলে আরে কাফেররা আমরা যারা আল্লাহর আইন মেনে চলতে চাই তাদেরকে জঙ্গি বলে গুলি করে মেরে ফেলে অথবা জেলের মধ্যে সারা জীবন রেখে দেয় আল্লাহর গজব পড়ুক
মো:রুহুল আমিন বাবু বাবু ১৫ আগস্ট, ২০২১, ৮:৩১ পিএম says : 0
এটা কি ভাবে সাস্তাব তাদের কি পাসপোর্ট লাগিনি বা ভিসা এগুলো ছাড় তারা দুটি দেশের বর্ডার কি ভাবে পার হলো একটি দেশের বর্ডার হলে সেটা সম্ভব মেনে নেয়া যায় কিন্তু দুটি বর্ডার আর পুলিশ যদি রাজ্জাকের ব্যাপর টা আগে জানতো তাহলে তাকে কেনো আটক করা হলো না।নাকি পুরাটা নাটক বন্ধু দেশের হয়ে
Total Reply(0)
MAMUN Shekh ১৬ আগস্ট, ২০২১, ৭:৪৪ এএম says : 0
এরাই আসলে অনুভব করতে পেরেছে পৃথিবীতে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ কতটা সন্নিকটে, অথবা পৃথিবীর বয়স ফুরিয়ে গেছে
Total Reply(0)
jack Ali ১৭ আগস্ট, ২০২১, ৫:০৪ পিএম says : 0
এই ছেলেটাতো কোরআনের আইন মেনেই আফগানিস্থানে গেছে...
Total Reply(0)
MOHAMMAD MAHMUDUL HASAN ১৮ আগস্ট, ২০২১, ৮:৪০ এএম says : 0
সারা দুনিয়ায় আজ মুসলমানরা নিজা'তিত ও নিপিরিত। হয় তো এর দিন ফুরিয়ে এসেছে...
Total Reply(0)
Helal ১৯ আগস্ট, ২০২১, ৯:১৫ এএম says : 0
পুলিশ জানত বিষয়টি তাহলে কেমন হল?
Total Reply(0)
জাকির হোসাইন ২১ আগস্ট, ২০২১, ১১:৩১ এএম says : 0
কাগজপত্র ছাড়া মানুষ বর্ডার পার হয় কিভাবে ? আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কি ঘোড়ার ঘাস কাটে, নাকি ঘুষ খেয়ে তাদের পার করে দেয়।
Total Reply(0)
আমি এদেশের বালক ২১ আগস্ট, ২০২১, ১২:১০ পিএম says : 0
আমি বই-পুস্তক, পত্রপত্রিকা পাঠ করে যতদূর জানি ভারত, পাকিস্তানের বর্ডার কে Line of control বলা হয়ে থাকে যেখানে সার্বক্ষণিক ভাবে দুই দেশের সেনাবাহিনী নিয়ন্ত্রণ করে / পাহারা দেয় সেখানে বর্ডার ক্রস করা এতই সহজ ব'লে আমার মনে হয় না। এই গপ্পো টা আমার বিশ্বাস হয় না।
Total Reply(0)
Fakhrul Islam ২১ আগস্ট, ২০২১, ১:৫৩ পিএম says : 0
তালেবানদের সাথে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করা ভাগ্যের ব্যাপার, সবার ভাগ্যে জুটে না।
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন