বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

জি ৭ দেশগুলো ২০২১ সালের মধ্যে অতিরিক্ত ১০০ কোটি ডোজ টিকা মজুদ করবে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ আগস্ট, ২০২১, ৬:০৪ পিএম

অর্থনৈতিকভাবে উন্নত জি ৭ দেশগুলো ২০২১ সালের শেষ পর্যন্ত প্রায় করোনা ভ্যাকসিনের প্রায় অতিরিক্ত একশ’ কোটি ডোজ মজুদ করবে। সম্প্রতি এক বিশ্লেষণ থেকে এই তথ্য জানা যায়। বিজ্ঞানীরা সতর্ক করেছেন যে, কোভিড ভ্যাকসিনের অসম বন্টন মহামারীটিকে দীর্ঘায়িত করবে এবং বিশ্বজুড়ে লাখ লাখ মানুষের জীবন বিপন্ন করবে।

এই অতিরিক্ত ১০০ কোটি ডোজ টিকা দিয়ে কম ভ্যাকসিন পাওয়া অন্তত ৩০ টি দেশে সম্পূর্ণভাবে টিকা দেয়া যাবে, যার বেশিরভাগই আফ্রিকায়। যুক্তরাজ্য সরকারের বৈজ্ঞানিক উপদেষ্টারা মন্ত্রীদের ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক সংক্রমণ মোকাবেলায় এবং নতুন রূপের উদ্ভব রোধে বিদেশে টিকা দেয়ার প্রচেষ্টাকে সমর্থন করার জন্য আরও পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। অন্যদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) ডোজ মজুদ করার জন্য আন্তর্জাতিক নেতাদের নিন্দা করেছে।

তবুও বিজ্ঞান বিশ্লেষণ সংস্থা এয়ারফিনিটির বিশ্লেষণ থেকে জানা যায় যে, বছরের শেষের দিকে, ব্রিটেন এবং তার সহযোগী জি ৭ দেশগুলোতে ৯৭ কোটি ৭৮ লাখ ১৩ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন অবশিষ্ট থেকে যাবে যা বিশ্বের কয়েকটি দরিদ্র দেশের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজন। বর্তমান টিকার হার অনুযায়ী ২০২২ সালের শুরুতে নামিবিয়া, সিয়েরা লিওন, গ্যাবন এবং ম্যাসেডোনিয়া সহ কয়েকটি দেশের জনগণের ২০ শতাংশও টিকা পাবে না।

ইউরোপ জুড়ে বর্তমান উত্থানের হারের সাথে সামঞ্জস্য রেখে, এয়ারফিনিটির বিশ্লেষণ অনুমান করে যে, প্রতিটি জি ৭ দেশের ১৬ বছর বা তার বেশি বয়সের ৮০ শতাংশ মানুষ রোলআউট চলাকালীন দুটি ভ্যাকসিন ডোজ পেয়েছে। তারপরেও, এয়ারফিনিটি অনুমান করে যে জি ৭ দেশগুলো - যুক্তরাজ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ইতালি, ফ্রান্স, কানাডা এবং জাপান - তাদের টিকা এবং বুস্টার প্রোগ্রামগুলো সম্পন্ন হওয়ার পরেও তাদের হাতে ১৭২ কোটি ৩৫ লাখ ১৩ হাজার ডোজ অবশিষ্ট থাকবে। এর মধ্যে ৭৪ কোটি ৫৭ লাখ ডোজ আগামী মাসে ভ্যাকসিন-ভাগ করে নেয়ার আন্তর্জাতিক উদ্যোগ কোভ্যাক্সে দান করা হবে। যার পরেও ১০০ কোটি ডোজ অতিরিক্ত থাকবে। সূত্র : ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন