শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৭ কার্তিক ১৪২৮, ১৫ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

আ.লীগ নেতা-কর্মীরা গ্রেফতার আতঙ্কে

বরিশালে ইউএনওর বাসায় হামলা পরিস্থিতি শান্ত : প্রতিবাদ সভা মেয়রের সংবাদ সম্মেলন

বরিশাল ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ২৩ আগস্ট, ২০২১, ১২:০২ এএম

বরিশাল সদর ইউএনও’র বাসায় হামলার ঘটনায় সিটি মেয়রসহ যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার পরে মহানগরীর পরিস্থিতি শান্ত। সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ ও তার অনুসারী ৪শ’ জনের বিরুদ্ধে পুলিশ হত্যা প্রচেষ্টার আরেকটি মামলা হয়েছে কোতয়ালী থানায়। এর আগে সদর ইউএনও মেয়রসহ অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন। পুলিশও ভিন্ন একটি মামলা করেছিল। সেখানে অবশ্য মেয়রের নাম ছিলো না। এদিকে গতকাল সন্ধ্যায় নগরীর কালীবাড়ী রোডের বাসায় সংবাদ সম্মেলন করেন সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ।

গত দুই দিন ছুটি থাকায় নগরীতে জনসমাগম কম থাকলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। তবে মামলায় মেয়রসহ ৪শ’ জনকে আসামি করায় নগরী অনেকটাই যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী শূন্য। বেশিরভাগ নেতারাও আত্মগোপনে রয়েছেন। প্রথম দুটি মামলাতেই বিপুল সংখ্যক অজ্ঞাতনামাকে আসামি করা হয়েছে। ফলে পুলিশ কাকে ধরবে বা কাকে ছাড় দেবে, তা এখনো স্পষ্ট না হওয়ায় বেশিরভাগ নেতা-কর্মী স্নায়ুচাপে রয়েছেন। এমনকি যারা এতোদিন এ নগরীতে ক্ষমতার দাপটে তাদের মুখের কথাকেই শেষ কথা মনে করছিলেন, তারাও ইতোমধ্যে গা ঢাকা দিয়েছে। তবে সিটি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহর অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তার ঘনিষ্ঠরাও বিষয়টি সম্পর্কে কিছু বলেননি। কারো মতে তিনি নগরীর কালীবাড়ী রোডের বাসাতেই আছেন। অসমর্থিত একটি সূত্রের মতে, মেয়র গত বৃহস্পতিবারই বাইরে গেছেন। মেয়রের বিরুদ্ধে দুটি মামলা হওয়ায় তিনি আইনগতভাবেই আগাবেন বলেও ঘনিষ্ঠ সূত্র জানিয়েছে। উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে তিনি বরিশালে ফিরবেন বলেও অপর একটি সূত্র জানিয়েছে। তবে মেয়রের অবস্থান সম্পর্কে পুলিশসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা উদাসীন নয় বলে একাধিক সূত্রে বলা হলেও এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এদিকে, সিটি মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ প্রকৃত ঘটনা জসনমক্ষে প্রকাশের লক্ষ্যে সেদিনের ৩ ঘণ্টার ভিডিও ফুটেজ প্রকাশের দাবি করেছেন। পাশাপাশি তিনি ঘটনার নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করে সিটি করপোশেনের কোন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে হয়রানি না করতেও প্রশাসনের প্রতি দাবি জানিয়েছেন।

গতকাল সন্ধ্যার পরে নগরীর কালীবাড়ী রোডের বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে মেয়র সিটি করপোশনের সব পরিচ্ছন্ন কর্মীদের নগরবাসীর সেবায় সব দায়িত্ব পালনের অনুরোধ করেছেন। তিনি বলেন, ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ ও নিরপেক্ষ তদন্ত হলেই প্রকৃত ঘটনা দেশবাসী জানতে পারবেন কে বা কারা দোষী। এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট তালুকদার মো. ইউনুসসহ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

গত শুক্রবার মধ্য রাতে ঢাকার মোহাম্মদপুরের বোনের শ্বশুরের বাসা থেকে মেয়রের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত নগরীর ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ সাইয়েদ আহমেদ মান্নাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আটক করেছে বলে আত্মীয়রা দাবি করলেও বরিশাল মহানগর পুলিশ এ ব্যাপারে কিছু জানে না বলে জানিয়েছে। এছাড়া বরিশাল মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি মোমিন উদ্দিন কালুকে গত শুক্রবার রাতে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ নিয়ে গত বুধবারের ঘটনায় ২১ জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। গত দুদিনই নগরীর বেশকিছু নেতা-কর্মীর বাসবাড়িতে খোঁজ-খবর করেছে পুলিশ।

এদিকে মেয়রের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা গতকাল নগরীর টাউন হলের সামনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেছে। এছাড়া দক্ষিণাঞ্চলের পৌর মেয়র ও উপজেলা চেয়ারম্যানরাও গতকাল বিকেল বরিশাল ক্লাবে পৃথক সংবাদ সম্মেলনে সিটি মেয়রের বিরুদ্ধে মামলার প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে তা প্রত্যাহারের দাবি করেছেন। জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ গত শুক্রবার বিকেলে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সভায় ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করে পুলিশ ও প্রশাসনকে কিছুটা হুঁশিয়ারিও দিয়েছে। সভা শেষে নগরীতে মহিলা আওয়ামী লীগ বিক্ষোভ মিছিল করে।

গত শুক্রবার নগরীতে ৬ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে পুলিশের একাধিক টিম টহলে ছিল। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় গতকাল ম্যাজিস্ট্রেটদের ফেরত পাঠানো হয়েছে। অপরদিকে প্রয়োজন না হওয়ায় আপাতত বিজিবি বরিশালে আসছে না বলে জেলা প্রশাসনের দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে। জেলা প্রশাসন বরিশালে ১০ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েনের আবেদনের পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে তা অনুমোদন করে তাদেরকে স্ট্যান্ডবাই রাখা হয়। পরিস্থিতি বিবেচনায় আড়াই ঘণ্টার মধ্যে বিজিবি বরিশাল মহানগরীতে হাজির হবার প্রস্তুতি ছিল। গতকাল প্রশাসন সূত্রে মহানগরীর পরিস্থিতি প্রায় স্বাভাবিক বলে জানানো হয়েছে।

এদিকে কোতয়ালী থানার ওসি ইন্সপেক্টর নুরুল ইসলামকে সিলেট রেঞ্জে বদলি করে ২৫ আগস্টের মধ্যে সেখানে যোগ দিতে বলা হয়েছে। হবিগঞ্জের বাসিন্দা নুরুল ইসলাম গত ৩ বছর বরিশাল মহানগর পুলিশে কর্মরত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
Md Sohel Rana ২২ আগস্ট, ২০২১, ১:১১ এএম says : 0
কয়লা ধুইলে ময়লা যায়না
Total Reply(0)
Abdur Rahim ২২ আগস্ট, ২০২১, ১:১২ এএম says : 0
পুলিশের ছায়া না থাকলে জাতির এই বীরেরা ১সেকেন্ডও বীরত্ব দেখাতে পারতো না।
Total Reply(0)
Nishar Ahmed ২২ আগস্ট, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
প্রশাসন দিয়ে ক্ষমতায় এসে প্রশাসনের সঙ্গে পাকনামি!!
Total Reply(0)
Shahadat Shohag Itp ২২ আগস্ট, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
পোস্টার ব্যানার অপসারণ এর দায়িত্ব সিটি কর্পোরেশনের
Total Reply(0)
Ismail Hossen Sohag ২২ আগস্ট, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
এবার লেগেছে পুলিশ বনাম আওয়ামী লীগ
Total Reply(0)
H M Saddam Khandaker ২২ আগস্ট, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
শোকের মাসে বরিশালে ছাত্রলীগ,যুবলীগ ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের উপর বর্বোরোচিত হামলা!
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন