বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইউটিউব গ্রাম কাসেগেরান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০২১, ১২:০২ এএম

ইউটিউব গ্রাম। এই গ্রামের অধিকাংশ মানুষের ইউটিউবের সঙ্গে জড়িত বলেই এই নামকরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের একটি প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার মধ্যজাভার একটি ছোট গ্রাম কাসেগেরান। এই গ্রাম এতটাই ছোট এবং প্রত্যন্ত যে জাভার মানচিত্রে দুরবিন দিয়ে খুঁজলেও এর সন্ধান মেলানো কষ্ট। কিন্তু ইন্টারনেটে বেশ পরিচিত এই গ্রাম। এই গ্রামের পিছিয়ে থাকা মানুষরা ক্রমে ইন্টারনেটের পরিচিত মুখ হয়ে উঠছেন। কাসেগেরান নামের সঙ্গে বিশ্বের পরিচিতি নেই ঠিকই, কিন্তু ‘ইউটিউব ভিলেজ’ বা ‘ইউটিউব গ্রাম’ বলতে এক ডাকেই বোঝা যায় যে কোনো জায়গার কথা বলা হচ্ছে। কাসেগেরান গ্রামেরই নতুন নামকরণ হয়েছে ইন্দোনেশিয়ার ‘ইউটিউব গ্রাম’। এই গ্রাম স¤প্রতি নতুন নতুন ইউটিউবারদের গড়ে তুলতে শুরু করেছে। গ্রামের মানুষ নিজেদের পেশা বদলে ইউটিউবে ভিড় জমাতে শুরু করেছেন। যাতে গ্রামের সার্বিক আর্থিক উন্নয়নও হয়েছে। আগে এই গ্রামের বেশির ভাগ মানুষ মূলত চাষাবাদ করেই উপার্জন করতেন। এর বাইরে টুকটাক কাজও করতেন। ফলে গ্রামে বেশির ভাগই মানুষই দরিদ্র থাকতেন। এই গ্রামেরই একজন বাসিন্দা সিশ্বানতো। তিনি মোটরসাইকেলের মিস্ত্রি। একটি মোটরসাইকেল মেরামতির দোকানে কাজ করেন তিনি। কিন্তু দিনভর পরিশ্রম করে যা উপার্জন করেন, তা দিয়ে সংসার চালানো কঠিন হয়ে পড়ছিল তার। সিশ্বানতো এক দিন ঠিক করলেন মোটরসাইকেল মেরামতির যে দক্ষতা তার রয়েছে, তা দিয়েই ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড করবেন তিনি। যেই কথা সেই কাজ, শুরু করে দিলেন তিনি। কিন্তু তখন ভালো ফোন ছিল না তার কাছে। তার ওপর এই প্রত্যন্ত এলাকায় ইন্টারনেট ঠিকমতো কাজ করে না। অনেক বাধা পেরিয়েই ইউটিউব-যাত্রা শুরু হয় তার। পরে অবশ্য ইউটিউব থেকে যে টাকা উপার্জন হয়েছিল সেই টাকা দিয়েই ভালো মোবাইল ফোন কিনে নেন তিনি। ইউটিউব যে উপার্জনের মাধ্যমে হতে পারে, তা কখনও কল্পনাতেও আনেননি তিনি। এবিপি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন