বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

লিগে সবচেয়ে বড় জয় পেল আবাহনী

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ আগস্ট, ২০২১, ৯:০৬ পিএম | আপডেট : ৯:২৯ পিএম, ২৬ আগস্ট, ২০২১

একই ফ্রেমে উৎসবে মেতেছেন ঢাকা আবাহনীর চার গোলদাতা। (বাঁ থেকে) হাইতিয়ান বেলফোর্ট, ব্রাজিলিয়ান রাফায়েল আগস্তো, নাইজেরিয়ান সানডে সিজোবা ও স্থানীয় জুয়েল রানা। বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে- বাফুফে


ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এবারের আসরে সবচেয়ে বড় জয় পেল ঢাকা আবাহনী লিমিটেড। বৃহস্পতিবার বিকালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের একমাত্র ম্যাচে হাইতিয়ান ফরোয়ার্ড বেলফোর্ট কারভেন্সের হ্যাটট্রিকে আবাহনী ৮-০ গোলে বিধ্বস্ত করে উত্তর বারিধারা ক্লাবকে। লিগে দলের সর্বোচ্চ ব্যবধানের জয়ের পাশাপাশি এটা বেলফোর্টের দ্বিতীয় হ্যাটট্রিক। বিজয়ীদের পক্ষে এই হাইতিয়ান হ্যাটট্রিকসহ চারটি করলে জোড়া গোল করেন স্থানীয় মিডফিল্ডার জুয়েল রানা এবং একটি করে গোল আসে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে সিজোবা ও ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রাফায়েল অগোস্তোর পা থেকে।

বৃহস্পতিবার ম্যাচের শুরু থেকেই গোলের জন্য মরিয়া হয়ে লড়ে আবাহনী। তারা একের পর এক আক্রমণে তছনছ করে দেয় বারিধারার রক্ষণদূর্গকে। ফলে আটবার প্রতিপক্ষের জালে বল ফেলতে পারে ঢাকার আকাশী-হলুদরা। ম্যাচের পুরো ৯০ মিনিটের গল্প আবাহনীরই। আক্রমণের ধারা অব্যাহত রেখে ৪ মিনিটে পেনাল্টি আদায় করে নেয় আবাহনী। বক্সের মধ্যে জুয়েল রানাকে ফাউল করেন হাফিজুর রহমান তপু। পেনাল্টি থেকে আবাহনীকে এগিয়ে নেন রাফায়েল অগোস্তো (১-০)। ৩৪ মিনিটে ফের পেনাল্টি পায় আবাহনী। সফল স্পট কিক নিয়ে দলকে দুই গোলের লিড এনে দেন বেলফোর্ট (২-০)। ম্যাচের ৪১ মিনিটে গোল করার তালিকায় নাম লেখান নাইজেরিয়ান সানডে সিজোবা। রাফায়েল অগোস্তোর কর্ণার থেকে আসা বল মাথা লাগিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি (৩-০)। ৬৪ মিনিটে একক রাফায়েল অগোস্তোর ক্রসের বল বেলফোর্ট মাথা দিয়ে বাড়ান জুয়েলের দিকে। বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে সহজেই গোল করেন জুয়েল (৪-০)।

চার গোলে এগিয়ে যাওয়ার পরও স্টেডিয়ামের কর্দমাক্ত মাঠে আবাহনী শো বন্ধ থাকেনি। ৬৬ মিনিটে নিজের জোড়া গোল পূর্ণ করেন জুয়েল রানা। মাঝ মাঠ থেকে একক প্রচেষ্টায় দুর্দান্ত গতিতে বল নিয়ে ছুটে শটে গোল করেন তিনি (৫-০)। মিনিট দুয়েক পর বারিধারাকে লজ্জায় ডুবিয়ে আবাহনীকে ছয় গোলের লিড এনে দেন বেলফোর্ট কারভেন্স (৬-০)। ৭৪ মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন বেলফোর্ট (৭-০)। ম্যাচের অন্তিম সময়ে নিজের চতুর্থ এবং দলের অষ্টম গোলের দেখা পান এই হাইতিয়ান (৮-০)। সেই সঙ্গে এবারের লিগে সবচেয়ে বড় ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আবাহনী।

ম্যাচ জিতে ২৩ খেলায় তের জয়, সাত ড্র ও তিন হারে ৪৬ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার তৃতীয় স্থানে জায়গা পেল আবাহনী। ২৪ ম্যাচে চার জয়, সাত ড্র ও তের হারে ১৯ পয়েন্ট পেয়ে এগারোতম স্থানে থেকে লিগ শেষ করলো বারিধারা।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন