বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

নুসরাতকে শুভেচ্ছা জানিয়ে যা বললেন তসলিমা

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ আগস্ট, ২০২১, ১১:৪৭ এএম

বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরেই মা হয়েছেন টলিউড অভিনেত্রী নুসরাত জাহান । কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন তিনি। মা ও সন্তান দু’জনেই সুস্থ রয়েছেন, জানানো হয়েছে হাসপাতালের পক্ষ থেকে। টলিউডের তারকাদের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন অভিনেত্রীকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় নুসরাতকে শুভেচ্ছা জানিয়ে অভিনেত্রীর প্রশংসা করেছেন বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনও।

নুসরাতের উদ্দেশ্যে লেখা শুভেচ্ছা বার্তায় তসলিমা পুরুষতান্ত্রিক সমাজের প্রতি কটাক্ষের সুরে লেখেন, ‘‘কার ঔরসজাত সন্তান সেটা বড় কথা নয়। বরং নুসরাত যে মা হতে চেয়েছেন, এত সমালোচনা-বিতর্কের পরও নিজের সিদ্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়াননি, সেটাই বড় কথা। পুরুষতান্ত্রিক সমাজে ‘সিঙ্গল মাদার’ হওয়া তো আর চারটিখানি কথা নয়।”

ক্যারিয়ারের মধ্য গগনে এমন এক ঘটনার চাপ সামলানো সহজ কথা নয়। নানা তর্ক বিতর্ক সমালোচনায় শেষ হয়ে যেতে পারে রূপোলি পর্দার জীবন। সে কথা রয়েছে এই লেখাতেই, তসলিমা সৃষ্ট চরিত্র পরিষ্কার জানান, ‘‘বাচ্চা মানুষ করতে গিয়ে অনেকের জীবন নাশ হয়ে যায়। বাচ্চা তো যে কেউ হওয়াতে পারে, মানুষ করতে ক’জন পারে! মানুষ করতে পারলে কুলাঙ্গারে দুনিয়া এত ভরা থাকতো না।” আসলে মাতৃত্ব কি তা নিয়েও বোধ হয় কিছুটা প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন তসলিমা। কারণ এই কথোপকথনে তার চরিত্র এও বলে, “মেয়েরা জরায়ু নয়” মাতৃত্বের স্বাদ আসলে “বকোয়াজ পুরুষের শেখানো জিনিস।” তার অন্যান্য পোস্টের মতোই এই লেখার নিয়েও সমালোচনা শুরু হয়েছে। তবে এটুকু মানতেই হবে কখনও নিজের মতামত ব্যক্ত করতে দ্বিধা করেননি তসলিমা সে তা যেমনই হোক।

ফেসবুকে কথোপকথনের ঢঙে লেখা লম্বা পোস্টের একদম শেষ পর্যায়ে তসলিমা লিখেছেন, ‘উইশ টুইশে কিছু হয় না। দোয়া আশীর্বাদ এগুলো কথার সৌন্দর্য। নুসরাত প্রতিষ্ঠিত মেয়ে। কারো দাসিবাঁদি নয়। নিজের ইচ্ছের মূল্য দিতে জানে। সে তার সন্তানকে ভালো মানুষ করবে, এ আমার বিশ্বাস।’

উল্লেখ্য, নুসরাতের অন্তঃসত্ত্বা হবার খবর সামনে আসার পর থেকেই নানারকম তর্ক-বিতর্কও সমালোচনা সহ্য করতে হয়েছে এই অভিনেত্রীকে। কারণ তিনি সন্তানের পিতৃপরিচয় সামনে আনতে চাননি। অনেকেই তাকে কটাক্ষ করেছেন বহুগামীনি বলে। কিন্তু প্রথম থেকেই তার পাশে দাঁড়িয়েছিলেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। নুসরাতেরও পাশে দাঁড়িয়ে তিনি বলেছিলেন, কই পুরুষের বহুগামিতা নিয়ে তো প্রশ্ন ওঠেনা?

এদিকে নুসরাতের সন্তানের জন্মের পরই তাকে শুভেচ্ছা জানান রাজ চক্রবর্তী, মিমি চক্রবর্তী, সায়নী ঘোষ, তনুশ্রী চক্রবর্তী, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের মতো তারকারা। নুসরাতের প্রাক্তন সঙ্গী নিখিল জৈন বলেন, ‘ওঁর সঙ্গে আমার মতপার্থক্য থাকতেই পারে। তবে এই সময়ে তা গুরুত্ব পায় না। নবজাতক সুস্থ থাকুক এটাই চাই। মা-ও সুস্থ থাকুক।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Sunno Ongko ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৫:৩৬ পিএম says : 0
আমি বুঝিনা তসলিমার কথা আপনারা সংবাদ করেন কেন?? সে কি বলেছে এই কথা শোনার কোন প্রয়োজন আছে জনগণের,,
Total Reply(0)
Shohag Rahman ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৫:৩৭ পিএম says : 0
এই খবরটা এদেশে না দিলে হত না
Total Reply(0)
Aronno Tarek ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৫:৩৭ পিএম says : 0
নুসরাত যে কলেজের স্টুডেন্ট, তাসলিমা তো সেই কলেজের প্রিন্সিপাল। শুভেচ্ছা তো জানাবেই।
Total Reply(0)
Hm Belal Cox's ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৫:৩৮ পিএম says : 0
নুসরাতের ছেলের বাবা কোনটা পই পই করে হিসাব চায় পাবলিক।
Total Reply(0)
Sayeed Raj ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৫:৩৮ পিএম says : 0
এমন ধরনের চিন্তাভাবনা যদি 100 বছর আগে হতো তাহলে তাসলিমা নাসরিন এর জন্ম কোন পতিতার গর্ভে হত
Total Reply(0)
Md Munna Pigeon Loft ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৫:৩৯ পিএম says : 0
ভালো মানুষ যেমন চায় যে সবাই তার মতো ভালো হোক তেমনি শয়তানও চায় যে সবাই তার মতো শয়তান হোক।তাই এক শয়তানের শয়তানী কর্মকান্ডে আরেক শয়তান খুশী হয়ে শুভেচ্ছা জানাবে এটাইতো স্বাভাবিক।
Total Reply(0)
মোহাম্মদ আলী ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৩:০৮ পিএম says : 4
ঠিকই তো বলেছে তাসলিমা, একজন পতিতা তো অনেক মানুষের সাথেই সঙ্গনে লিপ্ত হয়, তার শরীরে তো বহু মানুষের বীর্যই প্রবেশ করে। এদের মধ্যে থেকে কার বীর্য থেকে এই সন্তান জন্ম নিয়েছে, সেটা খুঁজে বের করা তো আসলেই কঠিন। এতো হাজার পুরুষের ডি. এন. এ টেস্ট করতে গেলে তও ঝামেলা। একজ পতিতাই পারে আরেকজন পতিতাত দুঃখ বুঝতে, তসলিমার বক্তব্য এর জ্বলজ্যান্ত প্রমাণ।
Total Reply(1)
aakash ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৪:০১ পিএম says : 0
Cheletar baba je yash Dashgupta se bisoye sondeho nei ... maa aar baccha dujonei bhalo thakuk

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন