রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

চরভদ্রাসন হরিরামপুরে তীব্র নদী ভাঙ্গন

৩৬ ঘন্টায় ৪২ টি পরিবার গৃহহারা

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৭ আগস্ট, ২০২১, ৯:২২ পিএম

ফরিদপুর চরভদ্রাসন উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের সবুল্লা শিকদারদের ডাঙ্গীর পদ্মার পাড় এলাকায় চলছে তীব্র নদী ভাঙ্গন। প্রতিদিন নতুন নতুন বাড়ী ঘর ভেঙ্গে পদ্মার বুকে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। এই নিয়ে সংশ্লিষ্ট কারো কোন মাথা ব্যথা নাই, বললেন ক্ষতিগ্রস্ত ৪২টি পরিবার। গত ৩৬ ঘন্টায়, চোখের সামনে কমপক্ষে ৭টি বসত বাড়ী ভেঙ্গে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এতে ৪২ টি পরিবার ভিটে মাটি গাছপালা সব কিছু হারিয়ে সর্বশান্ত হয়ে গেল।

উল্লেখিত, পরিবারগুলো সব চেয়ে কষ্টে আছেন, তাদের গবাদি পশু গুলো নিয়ে। বাড়ী ঘর হারিয়ে পরিবারগুলো, গাছ তলায় আশ্রয় নিয়েছে, অপরদিকে, গবাদিপশু পশু গুলো প্রচণ্ড খাদ্যের অভাবে ভুগছে। হাঁস মুরগী গরু বাছুর রাখার জায়গা টুকুও নাই। প্রচণ্ড টানা বর্ষণেও ব্যবহারকৃত কাপড় চোপর সব ভিজে প্রত্যেক পরিবারের ২/৩ জন সদস্য সর্দি কাঁশি ও জ্বরে ভুগছে কেউ কেউ।

গত ৩৬ ঘন্টায়, যারা ভিটে মাটি হারিয়ে চরম মানবেতর জীবন যাপন করছেন তারা হলেন, মোঃ নুরইসমাম পিতাঃ মোঃ সামচু বেপারী, মোঃ লিটন শেখ পিতাঃ মোঃ আয়নাল, মোঃ মানিক পিতা মোঃ আমীর উদ্দীন শেখ, রোজীনা বেগম পিতাঃ শামচু বেপারি, সেখ কালাম পিতাঃ মোঃ গেন্দু, সেখ নজরুল পিতা মোঃ জয়ন উদ্দীন মোল্যা, সেখ কালাম পিতা মোঃ সেখ ইকরাম।সর্ব সাং হরিরামপুর সবুল্লা শিকদারদের ডাঙ্গী নদীর পার।

উল্লেখিত, ব্যক্তিরা ইনকিলাবের সংবাদদাতাকে জানান, গত ৪৮ ঘন্টা আগে কে বা কারা ৫ হাজার জিওব্যাগ নিয়ে আমাদের ভাঙ্গন এলাকায় আসলেও এখানে একটি বস্তাও পদ্মায় ফেলেনি। ভাঙ্গন দেখেও এরা কোন পদক্ষেপ নেয়নি। ঐ সময় ভাঙ্গন কবলিত স্থানে জিওব্যাগ ফেললে আজ এই বাড়ির ঘরগুলো পদ্মায় বিলীন হতো না।

এসকল বিষয়ে সংবাদদাতার সাথে কথা হয় স্থানীয় সমাজসেবক মোঃ শহীদ প্রমানিক এবং সৌদি প্রবাসী মোঃ মুজিবরের। তারা আক্ষেপ করে বলেন ভাঙ্গন ঠেকাতে কয়েক হাজার জিওব্যাগ আনা হলো, আবার ঐ বস্তা নিয়ে চলেও গেল। কারণ বুঝলাম না। এদের সরকারি ভাবে সকল বিষয় জরুরি সাহায্যের দরকার। কিন্ত এদের খোঁজ নেওয়ার কাউকেই দেখছি না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন