শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ধরলার পানি বিপদসীমার ৬২ সেন্টিমিটার ওপরে!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:০৮ পিএম

কুড়িগ্রামে সবগুলো নদনদীর পানি হু হু করে বেড়েই চলেছে। তবে ধরলা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে।আজ শনিবার দুপুর তিনটায় স্থানীয় পাউবো জানায়, ধরলার পানি সেতুপয়েন্টে বিপদসীমার ৬২ সেন্টিমিটার ওপর এবং ব্রহ্মপুত্র নদের পানি চিলমারী পয়েন্টে ৩৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।

এছাড়া অন্য নদনদীর পানিও বৃদ্ধি পাচ্ছে ক্রমাগতভাবে। ফলে নদনদীর দুই শতাধিক চরাঞ্চল ও দ্বীপচরগুলোসহ নিম্নাঞ্চলসমূহ তলিয়ে রয়েছে। জেলা প্রশাসন সূত্রে সরকারি হিসেবে গত দুই সপ্তাহ ধরে ৯ উপজেলার মধ্যে ৫টির ১৩টি ইউনিয়নের ৪ শতাধিক পরিবার পানিবন্দি জীবন যাপন করছেন। বিশেষ করে সদর উপজেলা, চিলমারী, উলিপুর, রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলার ৭০ হাজার মানুষ পানিবন্দি জীবন যাপন করছেন। এসব মানুষ রয়েছেন বিশুদ্ধ পানি ও খাদ্য সংকটে। অনেক মানুষ উঁচু বাঁধে গিয়ে অথবা আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, বন্যার্তদের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যসেবায় দুর্গত এলাকায় ৮৫টি মেডিকেল টিম কাজ করছে।

এদিকে, জেলায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কৃষকরা। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, বন্যায় জেলায় প্রায় ২৮ হাজার হেক্টর রোপা আমন, শাকসবজি ও বীজতলা পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, ইতোমধ্যে বন্যা দুর্গত এলাকায় সকল উপজেলায় ২৮০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ সাড়ে ১২ লাখ টাকা প্রদান করা হয়েছে তা বৃহস্পতিবার থেকে বিতরণ চলছে। সেই সাথে পর্যাপ্ত ত্রাণ রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন