ঢাকা, বুধবার ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

সন্তানের সন্ধানে সংবাদ সম্মেলনে কাঁদলেন মুক্তিযোদ্ধা ও তার স্ত্রী

প্রকাশের সময় : ৬ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

যশোর ব্যুরো : ‘আপনারা লেখালেখি করুন, আমার সন্তানের সন্ধান পাচ্ছি না’-গতকাল যশোর প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের প্রতি এভাবেই আহ্বান জানিয়ে কাঁদলেন যশোর সদর উপজেলার রাজাপুর গ্রামের মর্জিনা বেগম। মর্জিনা বেগমের সাথে ডুকরে কেঁদে ওঠেন তার স্বামী মুক্তিযোদ্ধা লুৎফর রহমান। প্রায় ৬মাস আগে তাদের ছেলে সবুজ হোসেন (৩০) বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি।
বুধবার প্রেসক্লাব যশোর মিলনায়তনে নিখোঁজ সবুজ হোসেনের পরিবারের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে তারা জানান, তিন ছেলে-মেয়ের মধ্যে সবুজ সবার ছোট। স্থানীয় খাজুরা বাজারে ইঞ্জিন মিস্ত্রির কাজ করতো। বাঘারপাড়ার দুর্গাপুর গ্রামের আবদুল গফফারের ছেলে তারিকুল ইসলাম তারেকের সঙ্গে বন্ধুত্ব ছিল।
সেই বন্ধু বিদেশ পাঠানোর প্রলোভন দেখিয়ে ছেলেকে পাচার করে দিয়েছে। গত ৯ এপ্রিল বাড়ি থেকে বের হয় সবুজ। আর ফেরেনি। সংবাদ সম্মেলনে মর্জিনা বেগম বলেন, ‘ছেলেডার জন্যি ছয় মাস ঘরে মাথা দিতি পাচ্ছিনে, সে যে গেল আর ফিরে আসেনি। কাজে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়ছিলো। ও বাবা তোমরা আমার ছেলেডারে আইনে দ্যাও।’
সংবাদ সম্মেলনে সুবজের পিতা লুৎফর রহমানের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মোফাজ্জেল হোসেন। লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়েছে, সবুজ গত ৯ এপ্রিল বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। পরে আর ফিরে আসেনি। তাকে খোঁজাখুজির পর সন্ধান না পেয়ে গত ১৩ এপ্রিল কোতয়ালি থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। যার নম্বর ৬৮৬। প্রায় এক মাসেও সবুজের সন্ধান না পেয়ে ৫ মে চারজনকে আসামি করে মামলা করা হয় (নম্বর ১৭)।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন