বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

কথা রাখলে তালেবান সরকারের সাথে যুক্তরাষ্ট্র কাজ করতে পারে

আফগান টোলো নিউজকে ব্লিঙ্কেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০৭ এএম

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বুধবার বলেছেন যে, যুক্তরাষ্ট্র এমন একটি তালেবান সরকারের সঙ্গে কাজ করতে পারে যারা তাদের অঙ্গীকার ও বাধ্যবাধকতা পূরণ করে, অন্যথায় কাজ করা যাবে না।

ব্লিঙ্কেন আফগানিস্তানের টোলো নিউজ এজেন্সিকে বলেন, ‘আমাদের প্রত্যাশা হচ্ছে আফগানিস্তানের ভবিষ্যত সরকার সেই মৌলিক (মানবাধিকারের) অধিকার বজায় রাখবে। এবং যদি এটি হয়, তবে তারা এমন একটি সরকার যাদের সাথে আমরা কাজ করতে পারি। যদি তা না হয়, তাহলে আমরা কাজ করব না।’ তালেবান সরকারকে যুক্তরাষ্ট্র স্বীকৃতি দেবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করবে তারা কী করে, তার ওপর এবং আমাদের ও বাকি বিশ্বের সাথে এর সম্পর্কের গতিপথ তাদের কাজের উপর নির্ভর করবে।’ মঙ্গলবার তালেবানরা একটি অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ঘোষণা করে। তবে সরকারে কোন মহিলা অন্তভুর্ক্ত ছিল না। গোষ্ঠীর মরহুম প্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের ঘনিষ্ঠ সহযোগী মোহাম্মদ হাসান আখুন্দ নতুন সরকারের প্রধান। যখন ডন অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের কাছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের প্রতিক্রিয়া চেয়েছিলেন, তখন একজন মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা ঘোষণাটি দেখেছি এবং এটি মূল্যায়ন করছি। আমরা নোট করেছি যে, ঘোষিত নামের তালিকায় কেবলমাত্র তালেবান সদস্য বা তাদের ঘনিষ্ঠ সহযোগী এবং কোন মহিলা নেই।’ ওই কর্মকর্তা বলেন, যুক্তরাষ্ট্রও সরকারের কিছু ব্যক্তির সংশ্লিষ্টতা এবং ট্র্যাক রেকর্ড নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিল।

অন্তর্বর্তীকালীন মন্ত্রিসভার প্রধান মোল্লা আখুন্দ জাতিসংঘের কালো তালিকাভুক্ত। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিরাজউদ্দিন হাক্কানি আমেরিকান এফবিআইয়ের কাছে ‘ওয়ান্টেড’ ছিলেন। এফবিআই হাক্কানিকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য ৫০ লাখ ডলার পুরস্কারের প্রস্তাব করেছিল। গত মঙ্গলবার তারা পুরস্কারের অঙ্ক ১ কোটি ডলারে উন্নীত করে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা বুঝতে পারি যে, তালেবানরা একটি কেয়ারটেকার সরকার উপস্থাপন করেছে। তবে, আমরা তালেবানকে তার কাজে বিচার করব, কথায় নয়। আমরা আমাদের প্রত্যাশা স্পষ্ট করে দিয়েছি যে, আফগান জনগণের জন্য একটি অন্তভুর্ক্তিমূলক সরকার প্রাপ্য।’

ব্লিঙ্কেন বলেন, ‘আমরা বিদেশি নাগরিক এবং আফগানদের ভ্রমণ নথিসহ নিরাপদ প্রবেশের অনুমতি দেয়ার জন্য তালেবানকে তাদের প্রতিশ্রম্নতি মেনে চলতে বলব, যার মধ্যে বর্তমানে আফগানিস্তান থেকে সম্মত গন্তব্যে ওড়ার জন্য প্রস্তুত ফ্লাইটের অনুমতি রয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘আমরা আমাদের স্পষ্ট প্রত্যাশার পুনরাবৃত্তি করি যেন তালেবানরা নিশ্চিত করে যে, আফগান মাটি যেন অন্য কোনো দেশকে হুমকি না দেয় এবং আফগান জনগণের সমর্থনে মানবিক প্রবেশাধিকার দেয়। বিশ্ব নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।’

আফগানিস্তান থেকে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির পালানোর বিষয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জানে কিনা এবং সাহায্য করেছে কিনা জানতে চাইলে ব্লিঙ্কেন বলেন, দেশ থেকে পালানোর আগের রাতে তিনি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফোনে ছিলেন। তিনি আমাকে বলেছিলেন ... তিনি মৃত্যুর সাথে লড়াই করার জন্য প্রস্তুত ছিলেন। ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ে তিনি আফগানিস্তান ত্যাগ করলেন। সুতরাং না, আমি অবশ্যই এটি সম্পর্কে জানতাম না এবং আমরা অবশ্যই তাকে এ বিষয়ে সহযোগিতা করার মতো কিছুই করিনি।’ সূত্র : ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
ইকবাল হোসাইন ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:১২ এএম says : 0
তালিবানগণ আল্লাহর উপর পূর্ণ আস্থা এবং বিশ্বাস রেখে কাজ করেন। সুতরাং তাঁদেরকে অভাব অনটনের ভয় দেখিয়ে উপদেশ দেয়ার দরকার আছে বলে মনে হয় না । আল্লাহপাকই তাদের সহায় হবেন!
Total Reply(0)
Abdullah Hosain ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:৫৪ এএম says : 0
বিশ বছর যাবত কোন কথাই রাখেনি যুক্তরাস্ট্র, আফগানজাতী তোমাদের হাড়ে হাড়ে চিনে।
Total Reply(0)
হাদী উজ্জামান ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:৫৪ এএম says : 0
তোমরা কথা রাখবা কিনা সেইটা বলো। তোমাদের সাহায্যের জন্য তালেবান বসে নাই।
Total Reply(0)
তোফাজ্জল হোসেন ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:৫৫ এএম says : 0
আমেরিকার লজ্জা থাকলে এতবড় হারের পরেও এভাবে কথা বলতো না।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন