মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩ কার্তিক ১৪২৮, ১১ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

আমাদের দেশে কৃষি জমিতে ফসল তোলার পরে বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে যখন জমিনগুলো কিছুদিনের জন্য খালি থাকে। আর ওই সময় জমিনগুলোতে কিছু আগাছা জন্মে, মাছ জন্মে এবং শামুক বা অন্যান্য জানা অজানা অনেক প্রানী জন্মে। যেগুলো সাধারণত গরু ছাগলের বা হাঁসের খাবার হিসেবে ব্যবহৃত হয় বা করা যায়, এই সময়ে যদি কোনো বানিজ্যিক হাঁসের খামারের মালিক ওইসব জমিনের মালিকের অনুমতি ব্যতীত তার হাঁসগুলোকে ওই জমিনে ছেড়ে দেয়, যেন হাঁসগুলো বাড়তি খাবার সংগ্রহ করতে পারে, যাতে তার খামারের খরচ কম হয়, লাভ্যাংশ বাড়ে। এটাকি ওই হাঁসের খামারের মালিকের জন্যে হালাল হবে?

সাইফুল ইসলাম
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:৩৪ পিএম

উত্তর : যদি জমির মালিক এতে সম্মত না থাকে, তাহলে কারো পক্ষেই এই জমি ব্যবহার বা এর থেকে কোনোরকম উপকৃত হওয়া জায়েজ নেই। এভাবে উপকৃত হলে তা হালাল হবে না। তবে, যদি অরক্ষিত জায়গায় মালিকের অনিচ্ছায় এবং যথাযথ সতর্কতার পরও পশু পাখিরা এই জমি থেকে কিছু খেয়ে নেয়, তাহলে সেটি হারামের পর্যায়ে পড়বে না। ইচ্ছা করে খাওয়ালে হারাম হবে। অনিচ্ছায় ভুলে হয়ে গেলে এর দায় ততটা কঠিন নয়। যেমনটি আমাদের দেশের পতিত জমি বা খোলা কাদামাটিতে হয়ে থাকে।
উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
সাইফুল ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:৫০ পিএম says : 0
অনেক ধন্যবাদ, আল্লাহ আপনাদেরকে এর উত্তম প্রতিদান অবশ্যই দেবেন.
Total Reply(0)
Hossain Mohammed Iftekharul Haque ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:৫৪ পিএম says : 0
মাশাআল্লাহ।ইনকিলাবের আগ্ৰযাত্রা অব্যাহত থাকবে-এই প্রত্যাশা।
Total Reply(0)
Hossain Mohammed Iftekharul Haque ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:৫১ পিএম says : 0
মাশাআল্লাহ
Total Reply(0)
Md Abdul Malek ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:১৯ এএম says : 0
চরম বৈরী শাসন নীতির মধ্যে নিজেকে টিকিয়ে রাখা মুশকিল। ইনকিলাব পত্রিকা সেই বৈরী নীতির বিরুদ্ধে আজও টিকে আছে। তাদের তো বস্তু নিষ্ঠা পক্ষপাতমুক্ত সংবাদই প্রকাশ করতে হবে। সততা ও নির্মোহ সংবাদ প্রকাশ করার জন্য ধন্যবাদ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন