সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০২ কার্তিক ১৪২৮, ১০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বাংলাদেশিদের জন্য পলিটিক্যাল ইস্যু হতে পারে

যুক্তরাজ্যের রেড অ্যালার্ট সম্পর্কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

যুক্তরাজ্যে প্রবেশে বাংলাদেশিদের জন্য যে রেড অ্যালার্ট দেওয়া হয়েছে, সেটা পলিটিক্যাল ইস্যুও হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। ইস্যুটিকে বাংলাদেশের প্রতি বৈষম্য বলেও মনে করে তিনি। গতকাল সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এ কথা বলেন।
যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশিদের প্রবেশে দেশটির সরকারের রেড অ্যালার্ট প্রত্যাহার হচ্ছে না, বিষয়টিকে পলিটিক্যাল ইস্যু বলে মনে করেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ড. মোমেন বলেন, হতে পারে। তা না হলে, কেন তারা সেটা প্রত্যাহার করছে না। এটা আমাদের প্রতি একটি বৈষম্য।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্য বলছে, আমাদের জনগণ টিকা কম দিয়েছে বলে রেড অ্যালার্ট দেওয়া হয়েছে। তবে আমাদের চেয়ে অনেক দেশ টিকা কম দিয়েছে। তাদের কেন রেড অ্যালার্ট দেওয়া হয়নি।
ড. মোমেন আরও বলেন, ২৪ কোটি টিকা আমাদের লাইনআপে আছে। ২ কোটি ২২ লাখ মানুষ ইতোমধ্যেই টিকা পেয়েছেন। এই অগ্রগতি কোনোভাবেই খারাপ নয়।

এর আগে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা চেম্বার জানায়, করোনাকালে দেশের অর্থনীতি ইতিবাচক ধারায় রয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেছেন, করোনা পরিস্থিতি সত্ত্বেও বাংলাদেশ অর্থনীতিতে তার ইতিবাচক ধারা অব্যাহত রাখতে পেরেছে। শুধুমাত্র বিদেশি উদ্যোক্তারাই নন, বরং বিদেশে বসবাসকারী বাংলাদেশিরাও দেশে বিনিয়োগে আগ্রহী। গতকাল রোববার ঢাকা চেম্বারের সভাপতি রিজওয়ান রাহমান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎকালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। আব্দুল মোমেন বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্যের পরিবেশ বাংলাদেশে এখন যে কোনও সময়ের তুলনায় অনেক বেশি ভালো। তাই বিদেশি বিনিয়োগ আকর্ষণে এ বিষয়টিকে কাজে লাগাতে হবে। এ সময় মন্ত্রী আগামী ২৬ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাওয়া সাত দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক ভার্চুয়াল বাণিজ্য সম্মেলন ‘বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট সামিট’ আয়োজনে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কোভিডের কারণে বিশ্বে যখন কোনও সম্মেলন সশরীরে উপস্থিতির মাধ্যমে হচ্ছে না, তখন বাংলাদেশের অপার সম্ভাবনাকে এতগুলো দেশের মাঝে ভার্চুয়ালি তুলে ধরার উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।
বাণিজ্য সম্মেলনটি বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি যৌথভাবে আগামী ২৬ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর পর্যন্ত আয়োজন করতে যাচ্ছে।

মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী বর্ণাঢ্য ও যথাযথ মর্যাদার সঙ্গে উদযাপনের অংশ হিসেবে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও ঢাকা চেম্বার যৌথভাবে ৭ দিনব্যাপী এ সম্মেলন আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২৬ অক্টোবর সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন।
সম্মেলনটির মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হিসেবে নির্ধারণ করা হয়েছে— ‘আগামীর অর্থনীতির সঙ্গে সংযোগ’, অথবা ‘কানেক্টিং দি ইকোনমি অব টুমরো’।

বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে একটি আকর্ষণীয় ও লাভজনক বিনিয়োগের স্থান হিসেবে তুলে ধরতে এবং বিভিন্ন বহুমুখী সম্ভাবনাময় খাতগুলোতে সক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি দেশীয় ও বিদেশি বাণিজ্য সম্প্রসারণের উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে সম্মেলনটি আয়োজন করা হচ্ছে। বিশেষত ৯টি প্রধান সম্ভাবনাময় খাত যেমন অবকাঠামো, তথ্যপ্রযুক্তি ও আইটিইএস ও ফিনটেক, চামড়াজাত পণ্য, ওষুধ, অটোমোটিভ ও লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং, প্লাস্টিক পণ্য, কৃষি ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ, পাট ও বস্ত্র, এফএমসিজি এবং রিটেইল ব্যবসাগুলোর বিদ্যমান সক্ষমতা ও ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা নিয়ে সম্মেলনের বিভিন্ন পর্বে আলোচিত হবে। বিশ্বের ৫টি বৃহৎ অঞ্চল যেমন- আমেরিকা, ইউরোপ, মধ্যপ্রাচ্য ও পশ্চিম এশিয়া, এশিয়া অ্যান্ড প্যাসিফিক এবং আফ্রিকার ৫০টিরও অধিক দেশ থেকে শতাধিক ব্যবসায়ী ও প্রতিষ্ঠান ‘বিজনেস টু বিজনেস’ সেশনে অংশগ্রহণ করবেন। এছাড়াও উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে ৭টি বিষয়ভিত্তিক ওয়েবিনারেরও আয়োজন করা হবে, যেখানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নেতা, মন্ত্রী, নীতিনির্ধারক, সরকারের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তা, গবেষক, অর্থনীতিবিদ, অ্যাকাডেমিশিয়ান অংশগ্রহণ করবেন। দেশি- বিদেশি প্রায় তিন শতাধিক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিয়ে ১৬০টিরও অধিক বিটুবি সেশনের আয়োজন থাকবে এ সম্মেলনে।

ডিসিসিআই সভাপতি রিজওয়ান রাহমান বলেন, কোভিড অতিমারির সময়েও বাংলাদেশ ২০২১ অর্থবছরে ৫.৪৭% প্রবৃদ্ধি অর্জন করতে সমর্থ হয়েছে। বেসরকারি খাতের চাহিদার সঙ্গে সমন্বয় করে ও পরিবর্তিত ভূ-অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন নীতি সংস্কার এবং কৌশলগত পদক্ষেপ গ্রহণের কারণে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের ওপর আস্থা বৃদ্ধি পেয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন