বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮ আশ্বিন ১৪২৮, ১৫ সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

১১ বছর পর বলিউডে ফিরছেন ফারদিন খান

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৬:০৪ পিএম

প্রায় এক দশক হতে চলেছে বড় পর্দা থেকে গায়েব ফারদিন খান। বলিউডে বেশ কয়েকটি পার্টি কিংবা বিয়ের অনুষ্ঠানে দেখা গেলেও সিনেমাকে প্রায় বিদায় জানিয়েছেন বলেই অনেকে ধরে নিয়েছিলেন। এবার পরিচালক সঞ্জয় গুপ্তর হাত ধরে বলিউডে ফিরতে চলেছেন তিনি। ছবির নাম ‘বিষ্ফোট’। এই ছবিতে ফারদিন খান ছাড়াও দেখা যাবে অভিনেতা রীতেশ দেশমুখকে। জানা গেছে, এই ছবি ২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ভেনেজুয়েলার ছবি ‘রক, পেপার, সিজার’-র অফিশিয়াল রিমেক।

এই প্রসঙ্গে পরিচালক সঞ্জয় গুপ্ত বলেছেন, ‘আমার খুবই ভালো লাগছে যে একটা বিশেষ ছবি দিয়ে ফারদিন খানের রুপোলি পর্দায় কামব্যাক হচ্ছে। পাশাপাশি রীতেশের সঙ্গে জুটি বেঁধে ওর অভিনয় দর্শকদের এর আগেও পছন্দ হয়েছিল। আশা করছি এই ছবিও দর্শকদের বিনোদন দেবে। ছবিটা তৈরি করতে আমি এবং আমার টিম অনেক পরিশ্রম করছি। দর্শকদের কাছে বিশেষ ছবি হয়ে থেকে যাবে ‘বিস্ফোট’। আমি এবং আমার টিম এমনটাই আশা করছি।’

উল্লেখ্য, রীতেশ দেশমুখের সঙ্গে এর আগে শেষবার ‘হে বেবি’ ছবিতে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল ফারদিন খানকে। ১৪ বছর পর তাদের একসঙ্গে পর্দায় দেখে দর্শকরা আবারও আগের আমেজ ফিরে পাবেন বলে আশা পরিচালকের। শোনা যাচ্ছে, ফারদিনের খানের এই ছবি আগামী দু সপ্তাহ মুম্বাইতে শ্যুটিং হবে।

‘দুলহা মিল গয়া’ ছবি দিয়ে শেষবার রুপোলি পর্দায় দর্শকদের সামনে এসেছিলেন ফারদিন খান। মাঝে মাদক কান্ডে নাম জড়িয়েছিল তার। অভিনেতার ওজন বেড়ে গিয়েছিল বলেও শোনা গিয়েছিল। পরে আবার ওজন ঝরিয়েও ফেলেন বলে জানা যায়। ১১ বছর পর ফের বড় পর্দায় ফিরতে চলেছেন ‘হে বেবি’ অভিনেতা।

২০২০-র ডিসেম্বরে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে ফারদিন খান বলেছিলেন, “আমি ভাবতেই পারি না এতদিন কীভাবে অভিনয় থেকে দূরে থাকলাম। স্ত্রী নাতাশার সঙ্গে লন্ডনে গিয়েছিলাম। সন্তান ধারণে আমাদের সমস্যা হচ্ছিল। ২০১৩ সালে আমাদের কন্যার জন্ম হয়। তার চার বছর পুত্রের জন্ম হয়। ওদের আগমনে পরিবার আনন্দে ভেসে যায়। বুঝতেই পারলাম না কীভাবে সময় কেটে গেল। একটা সময় মুম্বাই ও লন্ডনে যাতায়াত করতে হয়েছে বার বার। কেন না সন্তান ধারণের জন্য আই ভি এফ পদ্ধতির সাহায্য নিতে হয়েছিল আমাদের। আমার স্ত্রীর জন্য বিষয়টা একেবারেই সহজ ছিল না। তখন ওঁর পাশে থাকাই ছিল আমার প্রাথমিক কর্তব্য।”

প্রসঙ্গত, ‘রক, পেপার, সিজার’ ছবিটি ৮৫তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসে ভেনেজুয়েলার ছবি হিসেবে সেরা বিদেশী ভাষার ছবি হিসেবে মনোনীত হয়েছিল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন