ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

পথভ্রষ্ঠ মেসিহীন আর্জেন্টিনা

প্রকাশের সময় : ৮ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : কুঁচকির চোটের কারণে এদিনও খেলতে পারেননি লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনাও ঘুরছে ব্যর্থতার আবর্তে। পেরুর রাজধানী লিমায় গতকাল দুই-দুইবার এগিয়ে গিয়েও জয় নিয়ে ফেরা হয়নি ‘লা আলবিসেলেস্তদের’। ফলে পয়েন্ট তালিকার ৫ নম্বরে নেমে যেতে হয়েছে এদগার্দো বাউজার দলকে।
এ নিয়ে চোটের কারণে ৯ ম্যাচের ৬টিতেই খেলতে পারেননি ৫ বারের বিশ্বসেরা, যার চারটিতেই ড্র করে আর্জেন্টিনা, হারও আছে একটি, একটি মাত্র জয়। ব্যর্থতার সর্বশেষ দুই সংযোজন পয়েন্ট তালিকার দুই তলানির দল পেরু ও ভেনিজুয়েলা ম্যাচ। কিন্তু মেসি খেলেছেন এমন তিন ম্যাচেই জয় পায় সাদা ও আকাশী নীল জার্সিধারীরা।
এছাড়া ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের পথে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বাছাইয়ে নবম রাউন্ডের খেলায় ঠিকই জয় পেয়েছে উরুগুয়ে, ব্রাজিল, ইকুয়েডর ও কলম্বিয়া। ধারাবাহিকভাবে শীর্ষেও আছে এই চারটি দল। লাতিন অঞ্চল থেকে চারটি দল সরাসরি অংশ নেবে বিশ্বকাপের মূল আসরে।
যথারীতি এই ম্যাচেও ব্রাজিলের জয়ের নায়ক নেইমার। তার অসাধারণ নৈপুণ্যে নিজেদের মাঠে বলিভিয়াকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে সেলেসাওরা। নেইমার নিজে গোল করে ব্রাজিলের জার্সি গায়ে গোল সংখ্যায় ছাড়িয়েছেন জিকোকে। জাতীয় দলের হয়ে ৪৯ গোল করা নেইমারের সামনে এখন রোমারিও (৫৫), রোনালদো (৬২) ও পেলে (৭২)। এছাড়া ফিলিপে লুইস ও গ্যাব্রিয়েল জেসুসকে দিয়েও এদিন দুটি গোল করান বার্সা তারকা। প্রথমার্ধে করা নেইমারদের বাকি গোলটি ফিলিপে কোতিনহোর। দ্বিতীয়ার্ধে একমাত্র গোলটি করেন বরার্তো ফিরমিনো। এ নিয়ে টানা তৃতীয় জয় পেল তিতের দল।
এমন গোল উৎসবের দিনেও একটা দুঃসংবাদ সঙ্গি হয়েছে ব্রাজিল সমর্থকদের। প্রথমার্ধের ৩৬তম মিনিটে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় অযথা ফাউল করলে মেজাজ হারিয়ে আগ্রাসী আচরণ করেন নেইমার। ফলে হলুদ কার্ডের দন্ডে পড়তে হয় তাকে। আসরে এটি ছিল তার তৃতীয় হলুদ কার্ড। নিয়ম অনুযায়ী ভেনিজুয়েলা ম্যাচে তাই খেলতে পারবেন না ২৪ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। ৬৮তম মিনিটে কপালে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের কনুইয়ের আঘাতে রক্তাক্ত অবস্থায় মাঠ ছাড়েন নেইমার।
মাঠে নেইমারের দুর্দান্ত পার্ফরমেন্সে মুগ্ধ হলেও শিষ্যের এমন আচরণে চটেছেন ব্রাজিল কোচ তিতে, ‘এ ধরনের পরিস্থিতি যে আমাদের সামাল দিতে হবে তা বুঝতে আমাদের পরিণত হতে হবে।’ পাশাপাশি রেফারিকেও সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘রেফারিরও কিছু ভুল ছিল, অসংখ্য ফাউল হলেও শাস্তি হয়েছে কম।’ তবে নেইমারকে ছাড়াও তার দল শক্তই থাকবে জানিয়ে তিতে বলেন, ‘নেইমারকে ছাড়াও দলকে শক্ত থাকতে হবে। সবকিছু নেইমারের ওপর চাপিয়ে দেওয়াটা হবে অমানবিক।’
তিতে আসতেই যেন সেলেসাও দলটি ফিরে গেছে সেই পুরোনো চেহারায়। ৬ নম্বর থেকে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানেও উঠে এসেছে তার দল। আর্জেন্টিনা শিবিরে ঠিক এর বিপরীত চিত্র। মেসি না থাকলেও এদিন দলে ছিলেন হিগুয়েইন, আগুয়েরো, ডি মারিয়া, দিবালারা। সবাইকে শুরুর একাদশেও রেখেছিলেন বাউজা। তবে এদের কেউ নন, ষোড়শ মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন এভারটন ডিফেন্ডার ফুনেস মোরি। পেরুও শুরু থেকে আক্রমণাত্বক ফুটবল খেলে চমকে দিয়েছিল সফরকারীদের। প্রথমার্ধে দু’দলই গোলের একাধিক সহজ সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্ধ হয়।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে স্কোর বোর্ডে সমতা এনে দেন পেরু অধিনায়ক পাওলো গেররোরা। ৭৭তম মিনিটে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে নেন জুভেন্টাস স্ট্রাইকার হিগুয়েইন। কিন্তু প্রথম গোলের নায়ক ফুনেস মোরির ভুলে ৭ মিনিট পরেই পেনাল্টি পেয়ে যায় স্বাগতিকরা। তা থেকে মূল্যবান এক পয়েন্ট আদায় করে নেন ক্রিশ্চিয়ান কুয়েভা। যথারিতি এই ম্যাচেও খোলসে আবদ্ধ ছিলেন সিটির হয়ে দুর্দান্ত মৌসুম কাটানো আগুয়েরো।
তবে ম্যাচ শেষে এর চেয়েও বড় দুশ্চিন্তা হল, দলের প্রধান তিন ডিফেন্ডার নিকোলাস ওটোমেন্ডি, জাবালেতা ও ফিউনেস মোরির হলুদ কার্ড। তিন জনই এদিন আসরের তৃতীয় হলুদ কার্ডের দÐে পড়েন। ফলে তিন দিন পর নিজেদের মাঠে প্যারাগুয়ে ম্যাচে এদের কাউকে দলে পাবেন না বাউজা। একবারে নতুন রক্ষণ মাঠে নামতে হবে তাকে।
৯ ম্যাচ শেষে ৫ নম্বরে থাকা আর্জেন্টিনার সংগ্রহ ১৬ পয়েন্ট। ভেনিজুয়েলার বিপক্ষে ৩-০ গোলের জয়ে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে লুইস সুয়ারেজের উরুগুয়ে। নিজে গোল না পেলেও স্বতীর্থদের দিয়ে এদিন দুই গোল করান বার্সেলোনা তারকা। পিএসজি তারকা এডিনসন কাভানি করেন জোড়া গোল, বাকিটা নিকোলাস লোদেইরোর। ১৬ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে থাকা ইকুয়েডর ৩-০ গোলে হারায় কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন চিলিকে। একই পয়েন্ট নিয়ে পরের স্থানে থাকা কলম্বিয়া প্যারাগুয়ের মাঠ থেকে ফেরে ১-০ গোলের জয় নিয়ে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন