মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

দায় স্বীকার করে চাচীর জবানবন্দি

মাদারীপুরে শিশু হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর থেকে : | প্রকাশের সময় : ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০১ এএম

মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কাঠালবাড়ি ইউনিয়নের বাংলাবাজার এলাকার ইসমাইল বেপারীর আড়াই বছর বয়সী শিশু কুতুব উদ্দিনকে হত্যার দায় স্বীকার করে আপন চাচী মাদারীপুর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। গতকাল সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শিবচর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমীর হোসেন সেরনিয়াবাদ।

আমীর হোসেন সেরনিয়াবাদ জানান, মাদারীপুরের শিবচরে অপহরণের ৩ দিন পর পার্শ্ববর্তী শরীয়তপুরের জাজিরায় চাচার বাড়ির ভবনের নির্মাণাধীন টয়লেটের মেঝের নীচ থেকে গত শুক্রবার সকালে বালু চাপা অবস্থায় শিশু কুতুব উদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় হত্যা মামলা হলে তার আপন বড় চাচী নার্গিস আক্তার ও তার মেয়ে হাফসা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়। পরে বিকেল ৫টার দিকে মাদারীপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে চাচী হত্যার কথা স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে চায়। পরে ওই আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সাইদুর রহমান স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

আমীর হোসেন সেরনিয়াবাদ আরো বলেন, ‘স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে নার্গিস আক্তার শিশু কুতুব উদ্দিনকে হত্যার দায় স্বীকার করেন। তিনি কিভাবে তার মেয়ে হাসফার মাধ্যমে শিশুকে তার বাড়ি থেকে কৌশলে এনে হত্যা করে নিজ বাড়ির ভবনের নির্মাণাধীন টয়লেটের মেঝের নীচে বালু চাপা দেন, তারও বিবরণ দিয়েছেন। পরে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। তবে নার্গিস আক্তারের মেয়ে হাফসা আক্তার ১৩ বছর বয়সী হওয়ায় তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেয়া হয়নি। তাকে আদালতের কিশোরী জেলে রাখা হয়েছে। তাকে আজ আদালতে উঠানো হবে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন