মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

পাকিস্তান ক্রিকেটের বিপুল অর্থ ও সম্মানের ক্ষতি হতে চলেছে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০৫ এএম

শুক্রবার নিরাপত্তার হুমকির কারণে রাওয়ালপিন্ডিতে তিনটি ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি শুরু হওয়ার ঠিক আগে নিউজিল্যান্ড তাদের সফর বাতিল করার ফলে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড লাখ লাখ আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবে। পিসিবির এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডনকে বলেন, ‘নিরাপত্তার ক্ষতি ছাড়াও, এটি পিসিবি, সরকার এবং নিরাপত্তা সংস্থা যারা পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট পুরোপুরি পুনরুদ্ধার করার জন্য প্রচেষ্টা চালাচ্ছিল তাদের জন্য এটি একটি আঘাত’।

তিনটি ওয়ানডে সিরিজের পর লাহোরে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল এবং ওই কর্মকর্তা বলেন, এমনকি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের কাছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের বিরুদ্ধে বিষয়টি উত্থাপন করলেও কোনো লাভ হবে না। আইসিসি এসব ক্ষেত্রে কিছুই করেনি। আইসিসিতে যেহেতু ভারতীয় লবি শক্তিশালী, তাই পিসিবির পক্ষে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণের যে কোনো ক্ষেত্রে জয়লাভ করা সহজ হবে না।

২০০৩ সালের পর প্রথমবার নিউজিল্যান্ড পাকিস্তান সফর করছিল এবং ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডও ঘোষণা করেছিল যে, তারা আগামী কয়েক দিনের মধ্যে পাকিস্তান সফর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। তাদের পুরুষ ও মহিলা দলের পাকিস্তানে আগামী মাসে সংক্ষিপ্ত দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে যাওয়ার কথা ছিল। ইংল্যান্ডের পুরুষরা ২০০৫ সাল থেকে পাকিস্তানে কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেননি এবং মহিলারা প্রথমবারের মতো এখানে আসছেন। ‘ইংল্যান্ড এখন সফর করবে এমন খুব বেশি আশা নেই’, বলেন কর্মকর্তা।

ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ভন আশা করেছিলেন, পাকিস্তানে নিরাপত্তা সমস্যা সমাধান হবে। পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য এটা খুবই লজ্জাজনক। এই দেরিতে বন্ধ ঘোষণা গেমটিকে আর্থিকভাবে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত করবে। আশাকরি পাকিস্তানে আবার ক্রিকেট খেলার জন্য নিরাপত্তার সমস্যাগুলো সমাধান করা যেতে পারে’, ভন টুইটারে লিখেন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুইবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ড্যারেন স্যামিও সিরিজটি হঠাৎ করে বাতিল হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছেন। ‘গত ছয় বছর ধরে পাকিস্তানে খেলা এবং সফর করা সবচেয়ে উপভোগ্য অভিজ্ঞতা। আমি সবসময় নিরাপদ বোধ করেছি’। গত বছর প্রধান কোচের দায়িত্ব নেওয়ার আগে পেশোয়ার জালমির সাথে পাকিস্তান সুপার লিগে খেলেছেন স্যামি।

‘হৃদয় ভাঙা’ : নিউজিল্যান্ডের সরে যাওয়ার সিদ্ধান্তের ফলে পাকিস্তানে প্রবল হৈচৈ পড়ে যায় প্রাক্তন এবং বর্তমান ক্রিকেটারদের ব্ল্যাক ক্যাপস নিয়ে। পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি বলেছেন, নিউজিল্যান্ড সফরটি বাতিল করে দিয়েছে। পাকিস্তানের অলরাউন্ডার শাদাব খান এটিকে ‘হৃদয়বিদারক’ বলে আখ্যায়িত করেছেন এবং ব্যাটসম্যান ফখর জামান টুইট করেছেন: ‘নিউজিল্যান্ড দলকে অসাধারণ নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে’।

নিউজিল্যান্ডের কয়েকজন ফ্রন্টলাইন খেলোয়াড় সাপ্তাহিক ছুটির দিনে পাকিস্তানে পৌঁছেছিল সাধারণত নিরাপত্তার একটি স্তর নিয়ে যেখানে সফররত রাষ্ট্রপ্রধানরা তাদের বুলেটপ্রুফ বাসে সশস্ত্র রক্ষীদের অন্তর্ভুক্ত করে। তাদের ইসলামাবাদ হোটেল, রাওয়ালপিন্ডি স্টেডিয়াম থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে যেখানে তাদের খেলার কথা ছিল, সেখানে ভারী আধাসামরিক বাহিনী এবং পুলিশ বাহিনী প্রহরী ছিল।

পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতার উল্লেখ করেছেন যে, পাকিস্তান সাম্প্রতিক বছরগুলোতে নিরাপদে দক্ষিণ আফ্রিকা, বাংলাদেশ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা এবং জিম্বাবুয়েকে স্বাগত জানিয়েছে। ‘আমরা এ থেকে উঠব। এবং শিগগিরই ... প্রথমবারের মতো আমাদের দেয়ালের সাথে ধাক্কা দেওয়া হয়নি। ব্ল্যাকক্যাপের সিদ্ধান্ত অপ্রয়োজনীয় এবং অনাকাক্সিক্ষত’, তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেন।

তিনি গত বছরের শেষের দিকে পাকিস্তানের নিউজিল্যান্ড সফরের উল্লেখ করেন ‘কোভিডের সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতিতে সেই সফরে এনজেড কর্তৃপক্ষের অশোভন আচরণকে বিবেচনা না করে’।

তবে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ফাস্ট বোলার জেসন গিলেস্পি বলেছেন, নিউজিল্যান্ডের সমালোচনা করা ঠিক নয়। গিলেস্পি টুইটারে লিখেন, ‘নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট তাদের পাকিস্তান সফরকে হালকাভাবে শেষ করার জন্য সিদ্ধান্ত নেবে না - তারা বারবার দেখিয়েছে যে, তারা আমাদের দুর্দান্ত খেলা প্রোমোট ও খেলার জন্য তাদের ভূমিকা পালন করতে ইচ্ছুক, তাই আমি মনে করি না যে, তাদের সমালোচনা করা ঠিক’। সূত্র : ডন অনলাইন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Salman ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:২৫ এএম says : 0
এসব কিছুর পেছনে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তালেবানের বিরুদ্ধে আফগান যুদ্ধে হেরে যাওয়ার প্রতিশোধ নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। সব দোষ তারা পাকিস্থানের কাঁধে ‍চাপাতে চাচ্ছে। ভারতীয় মিডিয়া তো প্রপাগান্ডা চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্থানের বিরুদ্ধে কারণ তারাও আফগানিস্থানে তাদের বিনিয়োগ খুইয়ে দিশেহারা। সামনে আরো কঠিন সময় অপেক্ষা করছে পাকিস্থানের জন্য। তাদের সামনে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞাও আসতে পারে। সম্ভবত তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ খুব বেশী দূরে নয়।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন