শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

মহানগর

র‌্যাংগস চেয়ারম্যানসহ চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

প্রতারণা ও বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগে র‌্যাংগস ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান আক্তার হুসাইনসহ চার জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শহিদুল ইসলামের আদালতে কামরুন নাহার লিজা নামে এক আইনজীবী মামলাটি দায়ের করেন। গতকাল রোববার বাদী নিজেই এ তথ্য জানান। মামলার অপর আসামিরা হলেন- র‌্যাংগস ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের ম্যানেজার (মার্কেটিং) মহাইমিনুল ইসহাক প্রতীক, অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার (মার্কেটিং) ওমর ফারুক এবং শো-রুম ইনচার্জ তানভীর হোসাইন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

বাদীর অভিযোগ থেকে জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন প্রিন্টেড ও ইলেকট্রনিক্স মাধ্যমে দীর্ঘদিন চটকদার বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে এসি, ফ্রিজ, টেলিভিশনসহ বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী বিক্রি করে আসছে। তা দেখে বাদী কোম্পানির ক্যালভিনেটর ব্রান্ডের এসি কিনতে যোগাযোগ করলে জানানো হয় এমআরপি মূল্য এক লাখ ৫ হাজার ৯০০ টাকা এবং অফার মূল্য ৫১ হাজার ৯০০ টাকা। তাকে আরও জানানো হয় এটি মালয়েশিয়ায় তৈরি, এসির কম্পেসারের ৫ বছরের এবং অন্যান্য যন্ত্রাংশের দুই বছরের ওয়ারেন্টি রয়েছে। এসি কিনতে বাদী কোম্পানির সাথে যোগাযোগ করে। পরে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম থেকে তানভীর হোসেন যোগাযোগ করে তাকে শো-রুমে যেতে বলেন। গত ১৭ আগস্ট বাদী শো-রুমে যান। ৬৩ হাজার ১৯৬ টাকা মূল্যে মাসিক কিস্তিতে পরিশোধের শর্তে ১৮ হাজার ৯৫৯ টাকা নগদ ডাউন পেমেন্ট পরিশোধ করে এসি ক্রয় করেন। বাদী অফার মূল্যের কথা জানালে তানভীর হোসাইন জানান শো-রুম মূল্য এক টাকা কম হলেও হবে না। ২০ আগস্ট তা বাদীর ঠিকানায় পাঠানো হয়।


আসামিপক্ষের টেকনিশিয়ান দায়সারাভাবে এসি বাসায় প্রতিস্থাপন করে চলে যায়। বাদীর পরিচিত একজন ২৪ আগস্ট ওয়ালটনের একটি এসি ক্রয় করেন। বাদী তার কাছ থেকে ম্যানুয়েল সংগ্রহ করে বাসায় নিয়ে দেখেন ওয়ালটন এসি ও ক্যালভিনেটর এসির যন্ত্রাংশ অধিকাংশই একই আকার ও প্রকৃতির। এটা দেখে বাদী বুঝতে পারেন, আসামিরা ওয়ালটন কোম্পানির পণ্য নকল করে ক্যালভেনেটরের নামে বিক্রি করে বাদীসহ অসংখ্য ক্রেতাকে প্রতারিত করে আসছে।

অভিযোগে আরও বলা হয়, কেলভিনেটর ব্যান্ডের এসির কম্পেসারসহ অন্য যন্ত্রপাতি র‌্যাংগস ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড ওয়ালটন কোম্পানি থেকে কিনে শুধু কেলভিনেটর নামের স্টিকার সেঁটে গ্রাহকদের সঙ্গে প্রতারণা করে আন্তর্জাতিক ব্রান্ডের পণ্য বলে বিক্রি করছে। প্রতারণামূলক অপরাধ করে তারা কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন