মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

‘পাকিস্তানকে অবশ্যই তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দিতে হবে’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:২০ পিএম | আপডেট : ৭:২২ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

পাকিস্তানের বিরোধী জোট পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্টের (পিডিএম) সভাপতি মাওলানা ফজলুর রেহমান যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে স্থিতিশীলতা আনার জন্য তালেবান সরকারকে অবিলম্বে স্বীকৃতি দিতে ইসলামাবাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

জিও নিউজ টিভি তাকে উদ্ধৃত করে বলেছে, ‘আফগানিস্তানে একটি শান্তিপূর্ণ দেশ এবং একটি স্থিতিশীল (শাসনব্যবস্থা) নিশ্চিত করার প্রচেষ্টায় সহযোগিতা করার জন্য তালেবান সরকারকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আমাদের স্বীকৃতি হবে।’ তিনি বলেন, তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়া আফগানিস্তানকে স্বীকৃতি দেয়ার মতো এবং তালেবানদের সাহায্য করার জন্য তাদের সরকারের অবিলম্বে স্বীকৃতি প্রয়োজন।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের প্রধান মাওলানা ফজল বলেন, যখন চীন ও রাশিয়া নতুন আফগান শাসকদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে আগ্রহ দেখাচ্ছিল, তখন পাকিস্তানকেও তালেবানদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করতে হবে। তিনি বলেন, ‘আফগান জনগণের সাথে আমাদের ঐতিহাসিক সম্পর্ক রয়েছে এবং সেখানে তাদের শান্তি এবং একটি স্থিতিশীল ব্যবস্থা চালু করতে তাদের সাহায্য করা উচিত।’

পিডিপি -কে পিডিএম -এ পুনরায় যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ জানানোর বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পিডিএম অটল (তার লক্ষ্যমাত্রায়) এবং তার উপাদানগুলিকে পরীক্ষায় ফেলতে চায় না। তার মতে, জোট সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করার দিকে মনোনিবেশ করা উচিত এবং সমাধান ছাড়া এটা অসম্ভব। তিনি অবশ্য পিপিপিকে পিডিএম -এ তার সাবেক বিরোধী মিত্রদের প্রতি ভারসাম্যপূর্ণ মনোভাব বজায় রাখার পরামর্শ দিয়েছিলেন এবং কে উপকৃত হতে পারে এমন কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা উচিত নয় বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেছিলেন যে, পিডিএম -এ যোগ না দিয়েও বিরোধিতাও করা যেতে পারে। যার অর্থ পিডিপি-কে ফিরিয়ে আনতে পিডিএম আগ্রহী নয়।

মাওলানা ফজল বলেন যে, তিনি এক সময়ে একাধিক মোর্চা খুলতে বিশ্বাস করেন না কারণ একক ফ্রন্টে শত্রুর মুখোমুখি হওয়া রাজনীতিতে আরও কার্যকর এবং উপযুক্ত। আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সরকার দেশ চালানোর জন্য যথেষ্ট যোগ্য নয়। এর আগে, জেইউআই-এফ প্রধান জামিয়া আশরাফিয়া সেমিনারে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন যেখানে মুফতি তাককি উসমানী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় উইফাক আল-মাদারিস আল-আরাবিয়া পাকিস্তানের নতুন প্রধান নির্বাচিত হন। দারুল উলূম হাক্কানিয়ার মাওলানা আনোয়ার আল হক, আকোরা খাত্তাক, সেমিনারি বোর্ডের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হন।

অনুষ্ঠানে মাওলানা ফজল বলেন, কয়েক বছর ধরে ইসলামী মূল্যবোধ ও সভ্যতা রক্ষা করে আসা ধর্মীয় বিদ্যালয়গুলোকে বিভক্ত ও দুর্বল করার জন্য প্রতিষ্ঠানের দ্বারা নতুন বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তিনি মাথা উঁচু করে সঙ্কট মোকাবিলা করার জন্য ওলামাদের অভিবাদন জানান। সূত্র: ডন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন