বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

রোনালদো ৪-০ অ্যান্ডোরা

প্রকাশের সময় : ৯ অক্টোবর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্পোর্টস ডেস্ক : ফিফা র‌্যাংকিংয়ের ২০৩ নম্বর দলের সাথে ইউরো চ্যাম্পিয়নদের লড়াই। অ্যান্ডোরার সাথে পর্তুগালের এই লড়াইকে তাই অসম বলতেই হবে। লড়াইটা আরো একপেশে হয়ে যায় অ্যান্ডোরা ৯ জনের দলে পরিণত হওয়ায়। তবে শুরুর ৪ মিনিটে দুই গোল করে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো গোল উৎসবের যে বার্তা দিয়েছিলেন, ম্যাচ শেষে সেটি ৬-০ তে ক্ষান্ত হওয়াকে কমই বলা চলে। দেশের জার্সিতে প্রথমবারের মতো এদিন চার গোল করেন রোনালদো।

চোটের কারণে ইউরোপিয়ান অঞ্চলের রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮ বাছাইয়ে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ছিলেন না রোনালদো। দলও হেরেছিল সুইজারল্যান্ডের কাছে। সেই পরাজয় যন্ত্রণা তো ছিলই এরপর এমন দুর্বল প্রতিপক্ষ। দুইয়ে মিলে জাতীয় দলে ফিরেই পরশু ঘরের মাঠে জ্বলে ওঠেন পর্তুগিজ তারকা। ম্যাচের চার মিনিটের মধ্যে করেন দুই গোল। তবে ক্যারিয়ারের ৪২তম হ্যাটট্রিকের জন্য তাকে অপেক্ষা করতে হয় আরো ৪৩ মিনিট। এর আগে স্কোর বোর্ডে ব্যবধান বাড়ান কাভোকো ক্যাসনেলো। দ্বিতীয়ার্ধে রিয়াল মাদ্রিদ তারকাকে ফাইল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন সফরকারী ডিফেন্ডার রুবিও গোমেজ। এরপরই নিজের চতুর্থ ও দলের পঞ্চম গোলটি করেন ৩ বারের বিশ্বসেরা। কিছুক্ষন পর আবারো রোনালদোকে অহেতুক ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন মিডফিল্ডার মার্ক রেবেস। তবে নয় জন দলের বিপক্ষে বাকি সময়ে একটির বেশি গোল করতে পারেনি পর্তুগিজরা। এসময় স্কোর শিটে নাম লেখান পোর্তো ফরোয়ার্ড ভালেন্তে সিলভা।
এমন জয়ের পরও প্রতিপক্ষকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি রোনালদো, ‘আমরা জানতাম প্রথম গোলটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হবে কারণ তারা ১১ জনই বলের পেছনে ছোটে। প্রথম ৫ মিনিটে দুই গোল করে আমরা দুর্দান্তভাবে শুরু করেছিলাম, এরপর সবকিছুই সহজ হয়ে গিয়েছিল।’
‘বি’ গ্রæপে রোনালদোদের লড়াইটা হবে মূলত সুইজারল্যান্ডের সাথে। হাঙ্গেরিকেও গণনার মধ্যে আনা যেতে পারে। প্রথম দুই ম্যাচে গ্রæপের শক্ত দুই প্রতিপক্ষকে হারিয়ে কাজ অনেকটা সহজ করে নিয়েছে সুইচরা। পরশু হাঙ্গেরিকে তাদেরই মাঠে ৩-২ গোলে হারায় তারা। পয়েন্ট তালিকারও শীর্ষে আছে সুইসরা। রোনালদো তাই জানেন, এখনো অনেক কাজ বাকি। তবে বাকি ম্যাচগুলোতে জয়ের ব্যাপারে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন সিআর-সেভেন, ‘এখনো আটটি ম্যাচ বাকি আছে এবং বিশ্বকাপের মূল পর্বে যেতে আমরা সবগুলো ম্যাচেই জিততে চাই।’ একমাত্র জয়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত তালিকার তিন নম্বরে পর্তুগাল। একই আসরে আগামীকাল তাদের প্রতিপক্ষ ৪ পয়েন্ট নিয়ে দুয়ে থাকা ফেরো আইল্যান্ড।
এছাড়া ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের পথে ইউরোপিয়ান অঞ্চলের বাছাইয়ে প্রথম ম্যাচের হোঁচট সামলে উঠেছে ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস, সুইডেন। টানা দুই জয়ে গ্রæপের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে বেলজিয়ামও। প্রথম ম্যাচে হোঁচট খাওয়া ফ্রান্স এদিনও ঘরের মাঠে শুরুতেই পিছিয়ে পড়েছিল বুলগেরিয়ার বিপক্ষে। তবে কেভিন গামেইরোর, অঁতোয়ান গ্রিজম্যান ও দিমিত্রি পায়েতোর গোলে ৪-১ গোলের জয় পায় ফরাসিরা। জোড়া গোল করেন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড গামেইরো। ‘এ’ গ্রæপে আরেক ফেভারিট নেদারল্যান্ডস বেলারুশকে হারায় একই ব্যবধানে। লুক্সেমবার্গকে হারিয়ে তাদের সমান ৪ পয়েন্ট নিয়ে লঢ়াইয়ের বার্তা দিয়ে রেখেছে সুইডেনও। ওদিকে ‘এইচ’ গ্রæপ শাসন করছে ইউরোপের নব্য শক্তি বেলজিয়াম। বসনিয়া ও হার্জেগোভিনাকে এদিন তারা হারায় ৪-০ গোলে। একই গ্রæপে টানা দুই জয়ে হ্যাজার্ডদের পরেই আছে গ্রিস। সাউপ্রাসকে এদিন ২-০ গোলে হারায় গ্রিকরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps