শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

প্রবাস জীবন

প্রবাসে জাতীয় ঐক্যের ডাক, দেশের স্বার্থের প্রশ্নে কোন বিভাজন নয়- এডভোকেট তাজুল ইসলাম

যুক্তরাষ্ট্র সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:৫৭ এএম

নতুন রাজনৈতিক দল এবি পার্টির যুগ্ম-আহবায়ক এডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেছেন – একটি নাগরিক বান্ধব কল্যান রাষ্ট্র গড়া ছাড়া বাংলাদেশের সামনে আর কোন উপায় নেই। ৩০ লাখ শহীদের রক্তে যে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন হয়েছে; সেই দেশের তরুণ আজ ইউরোপ আমেরিকা পাড়ি দিতে গিয়ে সাগরে ডুবে মরছে। একটি জাতির জন্য এ এক চরম হতাশাজনক অধ্যায়। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের এই আইনজীবী রবিবার নিউ ইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে এক আলোচনা সভায় এই মন্তব্য করেন। বাংলাদেশ অ্যাফেয়ার্স ফোরাম ‘স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীঃ আগামীর বাংলাদেশ’ বিষয়ে ঐ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

তিনি বলেন- ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর পরও মানুষ তার পাওনা বুঝে পায় নি। উল্টো নানা কারণে এমন রাজনীতির চর্চা চলছে যেখানে এক জন আরেক জনকে সমুলে উৎখাত করতে ব্যস্ত। একটি দেশের রাজনীতি এমন হতে পারে না যে একদল আরেক দলকে শেষ করে ফেলবে। রাজনীতির লক্ষ্য হতে হবে নাগরিকের জন্য কত বেশি সেবা দেয়া সম্ভব বা কত বেশি অধিকার দেয়া সম্ভব। নতুন দল হিসেবে নাগরিক সেবা আর অধিকারকে প্রাধান্য দিয়েই এবি পার্টি রাজনীতি করছে বলেও মন্তব্য করেন তাজুল ইসলাম।
তিনি আরো বলেন – ‘ বাংলাদেশের ১৮ কোটি মানুষ উন্নত জীবনের আশায় বিদেশে পাড়ি জমাতে পারবেন না। এই মাটিতেই তাদের বসবাস করতে হবে। যে রাজনৈতিক পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে সেখানে মানবিক মর্যাদা নিয়ে বেঁচে থাকাই দায়। এই অবস্থায় বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মের সামনে যেন দুটো পথ খোলা – হয় বঙ্গোপসাগরে ঝাঁপ দেয়া আর নয়ত বাংলাদেশের ভেতর থেকেই নাগরিক অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম করা”।

আশিক মাহমু ও আব্দুর রহিম দিপুর সন্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও খ্যাতিমান চিকিৎসক ডাঃ মজিবুর রহমান। তিনি বলেন – ‘বাংলাদেশ নিয়ে আমি অনেক আশাবাদী। পঁচিশে মার্চের কালো রাতের পর যখন সবাই আশা হারিয়েছিল তখন একজন মেজর জিয়াউর রহমান আশার আলো দেখিয়েছিলেন। গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ ছিল মুক্তিযুদ্ধের অঙ্গীকার, সেই গনতান্ত্রিক ব্যবস্থা আজকে ধ্বংস হয়ে গেছে। মানুষ তার ভোটের অধিকার হারিয়েছে। তারপরও ধ্বংসস্তূপের উপর বাংলাদেশ আবার উঠে দাঁড়াবে”।

ঐ আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ ডক্টর শওকত আলী, গনমাধ্যম ব্যক্তিত্ব কাজী জেসিন,খ্যাতিমান সাংবাদিক মাইনউদ্দিন নাসের, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শরাফত হোসেন বাবু ও যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক কোষাধাক্ষ্য জসিম উদ্দিন ভুইয়া, মহানগর বিএনপি সভাপতি সেলিম রেজা, রুহুল আমিন নাসির, রেজবুল কবির, মো: কাশেম , । অনুষ্ঠানে বক্তারা সুষ্ঠু নির্বচনের মাধ্যমে প্রকৃত জন প্রতিনিধিদের কাছে দেশের দায়িত্ব দেয়ার দাবী জানান। অনুষ্ঠানে সুচনা বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ অ্যাফেয়ার্স ফোরামের সমন্বয়ক আশিক মাহমুদ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন