সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮, ২০ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সিআরবিতে হাসপাতাল, চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন প্রধানমন্ত্রী - চট্টগ্রামে রেলমন্ত্রী সুজন

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:০৯ পিএম

সিআরবিতে সরকারি বেসরকারি যৌথ মালিকানায় হাসপাতাল নির্মাণে লিখিত আপত্তি পেয়েছেন জানিয়ে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন প্রধানমন্ত্রী। সিদ্ধান্ত দেওয়ার জন্য তো তিনি সর্বোচ্চ গার্জিয়ান। উনি সর্বশেষ যে সিদ্ধান্ত দেবেন সেটা সবার জন্য শিরোধার্য। প্রাথমিক অবস্থায় আমরা খতিয়ে দেখব এরপর প্রধানমন্ত্রী তো উপরে আছেনই। শুক্রবার চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের তিনি এ সব কথা বলেন।

সিআরবিতে হাসপাতাল প্রকল্প নিয়ে আন্দোলন চলছে, সরকারের সিদ্ধান্ত কী? এমন প্রশ্নের জবাবে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, এটাকে যতটা গুরুত্ব দিয়ে বা যেভাবে আপনারা তুলে ধরছেন কিম্বা যা হচ্ছে।এটা আমার মনে হয় অতটা করার কোনো অর্থ নেই। আপনারা জানেন যে জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময় জনগণের কল্যাণের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। আপনারা চট্টগ্রামের মানুষ যদি কোনো স্থাপনা না চান সেটা আমাদের জোর করে চাপিয়ে দেয়ার তো কোনো প্রয়োজন নেই।

আর এটা তথ্যগত কোনো ভুল হচ্ছে কিনা সেটাও একটু খতিয়ে দেখা দরকার। যে কথাগুলো বলে অভিযোগ দিয়ে যে আন্দোলনের কথা বলা হচ্ছে, সেটার ভিত্তি কতটুকু। সেটুকু আমাদের যাচাই বাছাই করার জন্য সময় দিতে হবে।

যাচাই বাছাই চলছে কিনা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে কয়েকদিন পূর্বে আমরা একটা অভিযোগ পেয়েছি। আন্দোলন তার পূর্বেই শুরু হয়েছে। তার পূর্বেই পেপার পত্রিকায় সেখানে দেখতেছি। কিন্তু কী নিয়ে আন্দোলন তা আনুষ্ঠানিকভাবেও রেলের কাছে কোনো দরখাস্ত করেনি।

উনারা দরখাস্ত বা অভিযোগ দেয়ার পরেও যদি জোর করে কিছু হয় তখন না আন্দোলনের প্রশ্ন আসবে।

শহীদের কবরের স্থানে হাসপাতাল নির্মাণ প্রকল্প বিষয়ে জানতে চাইলে রেলমন্ত্রী বলেন, আমি তো সে বিতর্কে যেতে চাইছি না। বলছি যে, অভিযোগ আনুষ্ঠানিকভাবে পাইনি। যখন বলা হয়েছে অভিযোগ কী সেটা বলেন। সে অভিযোগ আনুষ্ঠানিকভাবে গতকালকে বোধহয় আমরা পেয়েছি। এখন সেটা বিবেচনা করব।

তিনি বলেন, ২০১৩-১৪ সাল থেকে এটার প্রক্রিয়া চলছে। তখন কিন্তু কেউ আপত্তি তোলেনি। এটা যখন বাস্তবায়ন পর্যায়ে আসলো তখনই আপত্তি আসছে। আপত্তিগুলোর কারণ তো আমাদের আগে জানাবে। আর এটা তো একটা হাসপাতাল হচ্ছে, মেডিকেল কলেজ হচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন