রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০১ কার্তিক ১৪২৮, ০৯ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বাগেরহাটে বিজয়ী ইউপি সদস্য ও পরাজিত প্রার্থী মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ২১

বাগেরহাট জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:৩০ পিএম

বাগেরহাট সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের বিজয়ী ইউপি সদস্য ও পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ২১ জন আহত হয়েছে। শুক্রবার জুম্মার নামাজ শেষে শেকড়া জামে মসজিদ থেকে পরাজিত ইউপি সদস্য প্রার্থী আব্দুল লতিফ লোকজন বের হবার পর বিজয়ী ইউপি সদস্য আনিসুর রহমানের লোকজন অতর্কিত হামলা চালায়। এতে উভয় পক্ষের ২১ জন আহত হয়। আহতদের বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় বাবুল ফকির (৫৫) নামে একজনকে বিকেলে খুলনা মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জুম্মার নামাজ শেষে বিষ্ণুপুর শেকড়া মসজিদে পরাজিত ইউপি সদস্য প্রার্থী আব্দুল লতিফের সমর্থক বাবুল ফকির, কামরুল ফকিরের সাথে ৯নং ওয়ার্ডের সদ্য নির্বাচিত ইউপি সদস্য আনিসুর রহমান গ্রুপের রবিউল ও বাচ্চু মল্লিক মসজিদের মধ্যেই তর্কে লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে ধারালো অস্ত্র নিয়ে আক্রমণ করে। এতে উভয় পক্ষের ২১ জন আহত হয়।

আহতদের মধ্যে ধারালো অন্ত্রের আঘাতে মাথায় গুরুতর আহত লতিফ গ্রুপের বাবুল ফকিরকে খুলনা মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতদের মধ্যে রয়েছে শেখরা গ্রামের রুবেল মল্লিক, সোহেল শেখ, শওকত শেখ, রাসেল শেখ, রবিউল শেখ, সাইফুল শেখ, মাহতাব মল্লিক, সজিব মোল্লা, কামরুল ফকির, মল্লিক ইমামুল কবির, সোহেল মল্লিক, জাহাঙ্গীর মল্লিক, তৈয়ব আলী মল্লিক, আলম মল্লিক, মহিউদ্দিন শেখ।

পরাজিত প্রার্থী আব্দুল লতিফ জানান, পূর্ব পরিকল্পিত ভাবেই আনিসুর রহমানের লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে মসজিদে জুম্মার নামাজ পড়তে যাওয়া আমার সমর্থকদের উপর হামলা করেছে। বাবুল ফকিরসহ তার পক্ষের ১৩ জন বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

অপরদিকে নির্বাচিত বিজয়ী ইউপি সদস্য অনিসুর রহমান হামলার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, মসজিদের মধ্যেই বাবুল ফকির, কামরুল ইশারাত শেখসহ বেশ কজন আমার লোকজনের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে মারমুখী আচরণ করে। তখন উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুর ইসলাম বলেন, জুম্মার নামাজ শুরু হবার আগে থেকেই শেখরা জামে মসজিদের সামনে উভয়পক্ষের লোকজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে নামাজের পর উভয়পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে উভয় পক্ষের অনেকে আহত হয়েছেন। আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Burhan uddin khan ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১১:১৭ পিএম says : 0
Not acceptable between two group fighting...
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন