বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মাগুরার বালিয়াডাঙ্গায় দুই দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, ৩০ জন আহত

১০টি বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট

মাগুরা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৯:৫৬ পিএম

পূর্ব বিরোধের জের ধরে মাগুরা সদর উপজেলা বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে শুক্রবার সকালে দুই দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে ৩০জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ১০টি বাড়ি ঘর ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার সকালে বালিয়াডাঙ্গা উত্তর ও পশ্চিম পাড়া এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের পান্নু মোল্ল্যাসহ অন্যরা জানান, দীর্ঘ দিন ধরে সামাজিক আধিপত্য বিস্তার নিয়ে এ গ্রামের ইউনুস মোল্ল্যা ও রহমত মোল্ল্যার সমর্থকদের বিরোধ চলে আসছে। তারই সূত্র ধরে ইতিপূর্বে কয়েকবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

গত বৃহস্পতিবার বিকালে স্থানীয় আলোকদিয়া বাজারে বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের বিল্লাল হোসেনের দোকানে গিয়ে রহমত মোল্ল্যার কয়েকজন সমর্থক তার পা কেটে নেওয়ার হুমকি দেয়। এতে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে বিল্লাল হোসনের মামাতো ভাই রানা স্থানীয় আলোদিয়া ব্রিজের উপর দুখু মিয়া নামে রহমত মোল্ল্যার সমর্থকে মারপিট করে। বিষয়টি নিয়ে গ্রামে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

এক পর্যায়ে শুক্রবার ভোরে রহমত মোল্ল্যা ও ইউনুস মোল্ল্যার সমর্থকরা ধারালো দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় উভয় দলের ৩০জন আহত ও ১০টি বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাট হয়। আহতদের মধ্যে তিলাব হোসেন (৬৩), বিল্লাল মোল্ল্যা (২২), পান্নু মোল্ল্যা (৩২), মামুন মিয়া (৪০), জুবায়ের (২৪), ইদ্রি মোল্ল্যা (৫০), সিরাজ (২৬) নয়ন (২২) কে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনার বিষয়ে মাগুরা সদর থানার ওসি মঞ্জুরুল আলম বলেন, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। এই ঘটনায় উভয় পক্ষের ৩০ জনের অধিক লোক আহত হয়েছে। আহতদের মাগুরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে বলে জানান তিনি। দুই পক্ষের তিনজন করে মোট ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এছাড়া এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা রয়েছে। মাগুরা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন