শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দাওয়াতের পথ রুদ্ধ করার পরিণতি ভালো হবে না

পীর সাহেব চরমোনাই

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:৫২ এএম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, নাগরিক অধিকার, স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষা, জাতীয় সংস্কৃতি ও মন-মানসিকতা তৈরীতে ওলামায়ে কেরাম দাওয়াত, শিক্ষা ও আন্দোলন এর সমন্বিত প্রচেষ্টার মাধ্যমেই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যান। ওলামায়ে কেরাম ঘাম ঝড়ানো পরিশ্রমের মাধ্যমে সামাজিক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন এবং নাগরিকদের নৈতিক ভাবে প্রশিক্ষিত করেন। ওলামারা দুনিয়াবি সম্পদ ও ক্ষমতাকে সর্বদাই এড়িয়ে চলেন। তারা নিবৃত্তে জাতি গঠনে কাজ করে যান। কিন্তু দুঃখের কথা হলো, ইসলাম বিরোধী কায়েমি স্বার্থবাদি শক্তি বারংবারই ওলামাদের ওপরে খড়গহস্ত হয়। গ্রেফতার, হামলা, মামলার মাধ্যমে দাঈ ও ওলামাদের হয়রানি করে। আতংক তৈরি করে দাওয়াহ-শিক্ষা ও আন্দোলনের পথকে রুদ্ধ করার চেষ্টা করে। যার পরিণতি কখনোই ভালো হয় না।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ-আইম্মা পরিষদ ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত নগর সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সংগঠনের ঢাকা মহানগর উত্তর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুফতি হেমায়েতুল্লাহ কাসেমীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করিম শায়খে চরমোনাই, মুফতি মিজানুর রহমান সাঈদ, আল্লামা নূরুল হুদা ফয়েজী, মাওলানা গাজী আতাউর রহমান।
সম্মেলনে মুফতি হেমায়েতুল্লাহ কাসেমীকে সভাপতি, শায়খুল হাদীস মাওলানা আবুল কালাম আযাদ আনোয়ারীকে সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মুফতি মোহাম্মদুল্লাহ আনসারীকে সাধারণ সম্পাদক করে ৪১ সদস্য বিশিষ্ট জাতীয় ওলামা মাশায়েখ-আইম্মা পরিষদ ঢাকা মহানগর উত্তর নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়।

জাতীয় শিক্ষক ফোরাম : জাতীয় শিক্ষক ফোরাম এর কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান বলেন, করোনার ধাক্কা সামলিয়ে স্বল্প খরচ এবং শিক্ষার্থী ঝরে পড়া রোধে অনতিলম্বে সামগ্রিক শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ করতে হবে। তিনি বলেন, দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীর শিক্ষাব্যয় বিবেচনা এবং শিক্ষকদের যথোপযুক্ত সম্মান রক্ষায় শিক্ষকদের প্রত্যাশিত জাতীয়করণের দাবী মেনে নেওয়াই বুদ্ধি মানের কাজ হবে। গতকাল শুক্রবার সকালে জাতীয় শিক্ষক ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রৈমাসিক বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন