রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৮ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

মহানগর

ভারতে মুসলিম নির্যাতনের ঘটনা মুসলমানদের কলিজায় আঘাত করছে

বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৮:১২ পিএম

ভারতের আসামে মন্দির স¤প্রসারণের নামে মুসলিমদের উচ্ছেদ ও পুলিশের গুলিতে হতাহতের ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন প্রধান আমীরে শরীয়ত আতাউল্লাহ হাফেজ্জী। তিনি বলেন, আসামের নৃশংস ঘটনা ভারতকে মুসলিমশুন্য করার রাষ্ট্রীয় ষড়যন্ত্রেরই বহিঃপ্রকাশ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিও তে দেখা গেছে একজন মুসলিমকে গুলি করে হত্যা করার পর তাঁর নিথর লাশের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে। যা মধ্যযুগীয় বর্বরতাকেও হার মানিয়েছে। মুসলিম নির্যাতনের এসব ঘটনা বিশ্ব মুসলিমের কলিজায় আঘাত করছে। ভারতের মুসলিম নিধনের বর্বরতা কোন বিবেকবান মানুষ বরদাশত করতে পারে না। তিনি বলেন আসামের বাঙালি মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দারং জেলার ধলপুরগ্রামে প্রায় ৮০০ শত পরিবারকে তাদের পৈতৃক ভিটেমাটি থেকে বেআইনি ভাবে উচ্ছেদ করছে মুসলিম বিদ্বেষী মুদি সরকার। তিনি ভারতের মুসলিম নিধন বন্ধে বিশ্ব নেতৃবৃন্দ কে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

আজ শনিবার বিকেলে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর মাদরাসায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের কেন্দ্রীয় মজলিসে আমেলার বৈঠকে সভাপতির ভাষনে তিনি এসব কথা বলেন। বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াজি, নায়েবে আমীর শায়খুল হাদীস মাওলানা হাজী ফারুক আহমদ, আলহাজ আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সি,মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, মাওলানা ইউসুফ সাদেক হক্কানি মাওলানা আব্দুল মান্নান, হাজী জালাল উদ্দীন বকুল, মাওলানা ফিরোজ আশরাফী, মুফতি সুলতান মহিউদ্দিন, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী, মাওলানা জুনাইদ কাটখালী, মুফতি শিহাবুদ্দিন, মাওলানা মাহবুবর রহমান, মাওলানা ইলিয়াস মাদারীপুরী, মাওলানা মামুনুর রশিদ ও মাওলানা সানাউল্লাহ ফিরোজ।

মাওলানা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী আরো বলেন, ভারতের বিভিন্ন এলাকায় সংখ্যালঘু মুসলিমদের উপর মিথ্যা অপবাদ দিয়ে হামলা চালাচ্ছে দেশটির হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন। হামলাকারী উগ্র হিন্দুরা সন্তানের সামনে বাবাকে নির্যাতন করছে এবং জোর করে হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ জয় শ্রী রাম এ ধরনের স্লোগান দিতে বাধ্য করছে। হিন্দু প্রধান এলাকাগুলোতে মুসলিম পরিবারগুলো স্বাধীনভাবে তাদের ধর্ম কর্ম পালন ও নিরাপদে বসবাস করতে পারছে না। একটি ধর্মনিরপেক্ষগণতান্ত্রিক দেশের পক্ষ থেকে বিশ্ববাসী এটা আশা করে না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন