বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

ভারতের ‘মামা বাড়ির আবদার’!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

আর কয়েকদিন পরই শুরু হবে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। করোনা মহামারী শুরুর পর বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে দর্শকদের প্রবেশাধিকার না থাকলেও বিশ্বকাপ মাঠে বসেই উপভোগ করতে পারবেন দর্শকরা। তবে করোনার সংক্রমণ যথাসম্ভব ঠেকাতে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোতে দর্শক ধারণক্ষমতার ৫০ শতাংশ আসনের টিকিট বিক্রি করা হবে। তা সম্ভব হচ্ছে ম‚লত সংযুক্ত আরব আমিরাতে ব্যাপক হারে টিকা প্রদানের কারণে। তবে বিশ্বকাপ ফাইনালে ৫০ শতাংশ দর্শকের পরিকল্পনায় মন ভরছে না বিসিসিআইয়ের। তারা চায় শতভাগ দর্শক।
বিশ্বকাপের আয়োজক ম‚লত বিসিসিআই, যা অনুষ্ঠিত হবে ওমান ও আরব আমিরাতে। প্রথম রাউন্ডের কিছু ম্যাচ ওমানে অনুষ্ঠিত হবে। যদিও মূল ভেন্যু আরব আমিরাতই। সেখানেই ১৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল। আর শিরোপা নির্ধারণী এই ম্যাচেই ২৫ হাজার দর্শককে মাঠে বসে খেলা দেখার সুযোগ করে দিতে চায় বিসিসিআই। সেজন্য আমিরাত সরকারের অনুমতিও চেয়েছে সৌরভ গাঙ্গুলির বোর্ড।
আরব আমিরাতের একেক ভেন্যুতে দর্শকদের প্রবেশাধিকারে জন্য একেক নিয়ম প্রযোজ্য। দুবাইয়ে শুধু প‚র্ণ টিকা গ্রহণের সনদ দেখালেই খেলা দেখা যায়। আবুধাবি ও শারজায় সাথে নিতে হয় করোনা নেগেটিভ সনদ। ফাইনাল দুবাইয়ে বলেই শতভাগ দর্শক মাঠে রাখার ইচ্ছা পোষণ করেছে বিসিসিআই। দুবাইয়ে একসাথে মোট ২৫ হাজার দর্শক একত্রে বসে খেলা দেখতে পারেন। বিশ্বকাপের আয়োজন স্বত্ব বিসিসিআইয়ের কাছে থাকলেও এই ইচ্ছা প‚রণে অবশ্য সবুজ সংকেত লাগবে আরব আমিরাতের।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
ডালিম ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৪:৪৭ এএম says : 0
এসব আবদার মানার কোন মানে হয় না
Total Reply(0)
জব্বার ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৪:৪৭ এএম says : 0
ভারত সব সময় একটু বেশি বাড়াবাড়ি করে
Total Reply(0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন