রোববার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

রাজশাহীতে গত ৯ মাসে ৭৯ জন কন্যা শিশু নির্যাতনের শিকার

রাজশাহী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১ অক্টোবর, ২০২১, ৪:১৪ পিএম

উন্নয়ন সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার (লফস) রাজশাহী জেলায় দীর্ঘদিন যাবৎ নারী ও শিশুর উন্নয়নে কাজ করছে। মানবাধিকার সংগঠন হিসেবে লফস সংস্থার ডকুমেন্টেশন সেল থেকে রাজশাহীর প্রচারিত দৈনিক পত্রিকার সংবাদের ভিত্তিতে নিয়মিত নারী ও শিশু নির্যাতনের পরিস্থিতি প্রকাশ করে। লফস মনে করে অত্র অঞ্চলে নারী ও শিশু নির্যাতন পরিস্থিতি বিভিন্ন মাত্রায় অবনতি ঘটছে।

রাজশাহীতে গত নয় মাসে (জানুয়ারী ও সেপ্টেম্বর) ৭৯ জন কন্যা শিশু নির্যাতনের শিকার। এর মধ্যে হত্যা ৩, আত্মহত্যা ১১, ধর্ষণ ১৯, নির্যাতন ও যৌন নির্যাতন ২০, পর্নোগ্রাফী ১২ নিখোঁজ ও অপহরণ ১৪ জন নারী ও শিশু।

করোনা থাবাও কমাতে পারেনি শিশু নির্যাতন বরং দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সহ সব বন্ধ থাকায় বাল্য বিবাহ বৃদ্ধি, মোবাইল আসক্ত, বিয়ের পর যৌতুকের চাপ, পরকীয়ার কারনে অধিকাংশ কিশোরী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া পারিবারিক কলহ ও প্রেম ঘটিত কারনে হত্যা-আত্মহত্যা ও অমানবিক নির্যাতনের মতো ঘটনা ঘটছে। বিষয়গুলো কারও জন্য সুখকর নয়।

এমন বাস্তবতায় আমরা কন্যা শিশু, প্রযুক্তিতে সমৃদ্ধ হবো- ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়বো এই শ্লোগানে এবারের জাতীয় কন্যা শিশু দিবস ২০২১ উদয্যাপিত হয়েছে। স¤প্রতি সময় যেমন কিশোরী ও কন্যা শিশুরা নির্যাতনের শিকার হয়েছে তেমনি অনেক ক্ষেত্রে তারা নিজেদের ‘আমরাও পারি’ প্রতিষ্ঠা করেছে। শিক্ষা জগতে ডিজিটাল পদ্ধতিতে তারা অগ্রগামী হয়েছে, নির্যাতন প্রতিরোধে ৯৯৯ এর ব্যবহার শিখেছে, সহপাঠিদের বাল্য বিবাহ বন্ধে উৎসাহিত করছে যা আমাদের অর্জন।

আমরা চাই সকল শিশু অধিকার প্রতিষ্ঠায় সরকারী-বেসরকারী সংস্থাগুলোর সমন্বয়ে কন্যা শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে কার্যকরী পদক্ষেপের মাধ্যমে একটি নিরাপদ শিশু নির্যাতনমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা করা। একই সাথে শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করার আহবান জানান লফস এর নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন। তিনি বলেন একজন শিক্ষিত নারী তার পুরো পরিবারকে শিক্ষিত করার ক্ষমতা রাখে।

তিনি বলেন একজন বন্ধু, একজন বোন, একজন স্ত্রী, একজন মা, একজন কন্যা। একটি মেয়ে শিশুকে হত্যা করা মানে এই পুরো প্রজন্মকে হত্যা করা। কন্যা সস্তানকে বাঁচান, তাকে শ্রদ্ধা করুন। আপনার কন্যা পরিবার এবং সমাজের ভবিষ্যত।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন