শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

বরিশালে আওয়ামী লীগে দুই নেতার বিরোধের জেরে তিন ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩ অক্টোবর, ২০২১, ৭:৫২ পিএম

বরিশাল মহানগরীর ২৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীন বিরোধের জের ধরে ৩ ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম করেছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের এক নেতা। মারধর করেছেন এক পরিবহন ঠিকাদারকে। রোববার দুপুরে কালিজিরা বাজারে ঐ হামলর ঘটনায় আহত ছাত্রলীগ কর্মী রাজিব মল্লিক, রায়হান মুন্সী ও জুবায়েরকে শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
একাধিক সূত্র জানিয়েছে, ২৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ুন হাওলাদারের সঙ্গে সম্প্রতি বিরোধ সৃষ্টি হয় ওয়ার্ড সাধারন সম্পাদক সোলায়মান বাপ্পির। সোলায়মান বাপ্পির মদদে তার কর্মী সমর্থকরা কালিজিরা বাজারের ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে নানাভাবে নিয়মিত চাঁদাবাজি করছিল।
সভাপতি হুমায়ুন হাওলাদারের সমর্থকরা এর প্রতিবাদ জানালে সোলায়মান বাপ্পির সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। ওই বিরোধের কারনে গত ২৮ সেপ্টেম্বর সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক আলাদাভাবে মিছিল করে অংশ নেন মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে। সভাপতির মিছিলে লোকজন বেশী হওয়ায় সাধারন সম্পাদক সোলায়মান বাপ্পি ও তার সমর্থকরা আরো ক্ষিপ্ত হয়।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, রোববার ২৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের পাশে দাঁড়ানো ছিলেন ছাত্রলীগ কর্মী রায়হান মুন্সী, রাজিব মল্লিক ও জুবায়ের। এসময় সাধারন সম্পাদক সোলায়মান বাপ্পি তার সঙ্গে থাকা ধারালো অস্ত্র দিয়ে ওই তিনজনকে কুপিয়ে জখম করে। আহত ছাত্রলীগ কর্মী রায়হান মুন্সী বলেন, চাঁদা না দেয়ায় সকালে পরিবহন ঠিকাদার মনিরকে মারধর করে সাধারন সম্পাদক ও তার সমর্থকরা। সে আরো জনায়, আমারা মারধরের প্রতিবাদ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে সোলায়মান বাপ্পি হামলা চালিয়েছে। রাজিব মল্লিক বলেন, আমরা দলীয় কার্যালয়ের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলাম। কিছু বুঝে ওঠার আগেই সাধারন সম্পাদক আমাদের কুপিয়ে জখম করে।
২৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি হুমায়ুন হাওলাদার বলেন, তার কমিটির সাধারন সম্পাদক বেপরোয়া হয়ে পড়েছেন। মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বিষয়টি দেখবেন বলে জানিয়েছেন। তাই থানায় অভিযোগ দেইনি।
তবে সব অভিযোগ অস্বীকার করে সাধারন সম্পাদক সোলায়মান বাপ্পি বলেছেন, আমাদের মধ্যে কোন বিরোধ নেই। আমি পারিবারিকভাবে স্বচ্ছল। চাঁদাবাজির প্রয়োজন হয়না। কোতোয়ালী থানার ওসি মো. নুুরুল ইসলাম সাংবদিকদের বলেন, ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের ঘটনা শুনেছি। কোনপক্ষ থানায় অভিযোগ দেয়নি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ৩ অক্টোবর, ২০২১, ৮:৪২ পিএম says : 0
O'Allah let them kill each and wipe out from from our country so that a muslim leader take over and he will rule our mother land so that we will be able to live life security, with human dignity and also there will be no more people poor in our country.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন