মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

জাহাজে ১৩০০ মানুষ থাকলেও কেন ১৭ জনকে ধরা হলো

ফের জামিনের আর্জি খারিজ : জেলহাজতেই থাকতে হচ্ছে আদালতে আরিয়ান খানের প্রশ্ন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০৩ এএম

মাদককাণ্ডে মিলল না রেহাই! গত রোববার থেকে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর হেফাজতে রয়েছেন আরিয়ান খান। বৃহস্পতিবার তাঁকে কোর্টে পেশ করা হলে, শাহরুখ-পুত্রের জামিনের আবেদন নাকচ করে তাঁকে ১৪ দিনের জেল হেফাজত দেন বিচারপতি। জামিন মামলার শুনানি ছিল গতকাল শুক্রবার। কিন্তু সেখানেও আরিয়ানের অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের আবেদন নাকচ করে দেয় কোর্ট।

শুক্রবার আরিয়ান-সহ প্রমোদতরীর মাদককাণ্ডে আরো ২ জনের জামিনের আবেদন বাতিল করে দেয় ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট। শুনানি চলাকালে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো শাহরুখ-পুত্রকে জামিন দেওয়ার বিরোধিতা করে জানায়, ‘আরিয়ান খান যথেষ্ট প্রভাবশালী। জামিনে ছাড়া পেলেই তথ্য-প্রমাণাদি নষ্ট করে দিতে পারে’। সেই প্রেক্ষিতেই আদালতের তরফে আরিয়ান খান, আরবাজ মারচেন্ট ও মুনমুন ধামেচার জামিনের আবেদন নাকচ করে দেয়। পাশাপাশি জামিনের জন্য ফের তাঁদের এনডিপিএস কোর্টের কাছে আবেদন জানানোর নির্দেশও দেয়।

আদালতে শুনানি চলাকালে আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর বিরোধিতা করে আরিয়ান খানের হয়ে কোর্টকে জানান, ‘প্রভাবশালী পরিবারের ছেলে বলেই যে তথ্য-প্রমাণাদি নষ্ট করে দেবে, এ দাবির কোনো যুক্তি নেই। কোন প্রভাবটা আমি খাটিয়েছি? গত ৬-৭ দিন ধরে আমি ভুগে যাচ্ছি। আর এর থেকেও গুরুতর অপরাধ করে লোকেরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আমি তো ওদের মতো নই’।

আদালতে চাপা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বলিউড কিং শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান। প্রমোদতরীর পার্টিতে অনেক লোক থাকলেও বেছে বেছে কিছু লোককে কেন গ্রেফতার করা হলো এমন প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

আরিয়ান বলেন, ‘পার্টিতে ছিল ১৩০০ লোক। কিন্তু গ্রেফতার করা হলো শুধু ১৭ জনকে।’ একইসঙ্গে আদালতে আরিয়ান দাবি করেন, প্রমোদতরীতে ওঠার সময় তার ব্যাগ পরীক্ষা করা হয়েছিল, সেখানে মাদক পাওয়া যায়নি।
এদিকে, মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থা (এনসিবি)-র দাবি, মাদক সেবনের কথা স্বীকার করেছেন আরিয়ান। গ্রেফতারি পরোয়ানায় হাতে লিখে নিজের ‘ভুল’ কবুল করেছিলেন আরিয়ান। আরিয়ানের সেই হাতে লেখা বয়ানও প্রমাণ হিসাবে আদালতে দাখিল করেছেন তদন্তকারীরা।

গত বৃহস্পতিবার আরিয়ানকে ১৪ দিনের জন্য জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন আদালত। এর পরেই শাহরুখ নিযুক্ত আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে তার অন্তর্বর্তী জামিনের আবেদন করেন। গতকাল জামিনের শুনানির সময় নিজের ক্ষোভ উগরে দেন শাহরুখ তনয়।

আরিয়ান জানিয়েছেন, প্রতীক নামে তার এক বন্ধু এই পার্টির আয়োজকদের সঙ্গে তার আলাপ করিয়েছিলেন। শাহরুখ খানের পুত্র এলে পার্টির জাঁকজমক বেড়ে যাবে, মূলত এই কারণেই নাকি ডেকে আনা হয়েছিল আরিয়ানকে।

আরিয়ান জানিয়েছেন, প্রমোদতরীতে ওঠার পরেই তার ব্যাগ তল্লাশি করেন এনসিবি-র কর্মকর্তারা। কিন্তু খোঁজাখুঁজির পরেও নাকি তারা শাহরুখ-পুত্রের কাছ থেকে কোনো মাদক পাননি।

আরিয়ান বলেছেন, ‘ওই পার্টির আয়োজকদের সঙ্গে আমার কোনো যোগাযোগ নেই। আরবাজের সঙ্গে বন্ধুত্বের কথা আমি অস্বীকার করছি না। কিন্তু ওর ক্রিয়াকলাপের সঙ্গে আমি যুক্ত নই।’ সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, টাইমস অব ইন্ডিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Ashim Kumar Dey ৯ অক্টোবর, ২০২১, ৬:১৮ এএম says : 0
এবার থেকে যদি একটু ভালো হওয়ার চেষ্টা করে।
Total Reply(0)
Gazi Hasan ৯ অক্টোবর, ২০২১, ৬:১৭ এএম says : 0
ভিষন অন্যায় হচ্ছে,এর ফলে ভালো হবে না,ভারত বর্ষে মুসলিম পরিবার গুলো এমন ভাবে হয়রানি হচ্ছে।
Total Reply(0)
Md Amir Khan ৯ অক্টোবর, ২০২১, ৬:১৭ এএম says : 0
একে ফাঁসানো হয়েছে বিজেপি নোংরা রাজনীতি ঢাকার জন্য
Total Reply(0)
Biswajit Pradhan ৯ অক্টোবর, ২০২১, ৬:১৭ এএম says : 0
বেশি বড়ো বাড়ির ছেলে রা এইরকম হয়। এতো চিন্তা করার দরকার নেই জামিন পেয়ে যাবে। কিন্তু প্রশ্ন হলো গরীব ঘরের ছেলে হলে কি হতো।আইন তো সবার জন্য সমান।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন