শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ০৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

রাস্তার বাঁকে বাঁকে মরণফাঁদ

লামা-আলীকদম-ফাসিয়াখালী সড়ক : থামছে না দুর্ঘটনা

মোহাম্মদ শামছুদ্দোহা, লামা (বান্দরবান) থেকে | প্রকাশের সময় : ১০ অক্টোবর, ২০২১, ১২:০২ এএম

বান্দরবানের লামা, আলীকদম ও ফাঁসিয়াখালি সড়কটির বাঁকে বাঁকে যেন মরণ ফাঁদ লুকিয়ে আছে, না দেখলে বুঝা যাবে না, কি রকম মরণফাঁদ। এই সড়কের বাঁকে পড়ে মানুষ প্রতিনিয়ত মারা যাচ্ছে। শত শত মানুষ আহত হচ্ছেন। গত দুই তিন দিনে অর্ধ শত লোক আহত হয়েছে। এই সময় চালকের মৃত্যুও হয়েছে।
এই সড়কটি ১৯৮৮ সালে নির্মাণ করা হয়েছিল অনেক পরিশ্রম ও ত্যাগের মাধ্যমে। তৎকালীন সেনা বাহিনী এই সড়কের পূর্ণতা দিয়েছিল। তখন হতে লামা আলীকদমের উন্নয়নের যাত্রা শুরু হয়। কিন্ত এই সড়ক আবিষ্কার হওয়ার পর হতে দুর্ঘম এলাকার মানুষের জীবনের পরিবর্তন আসে ধীরে ধীরে। বলাবাহুল্য এই সড়কটি সমুদ্রপৃষ্ট হতে দেড় হাজার ফুট ওপরে অবস্থিত। সড়কটি যেন আঁকা বাঁকা চুরীমাছের মত হয়ে বেকে চলে গেছে সুদুর চকরিয়া হয়ে লামার বুক চিরে আলীকদম পর্যন্ত। সড়কটির দৈর্ঘ্য ৪৪ কিলোমিটার। এই ৪৪ কি.মি. পথ অতিক্রম করে নাম ধারণ করল লামা-আলীকদম-ফাসিয়াখালী সড়ক। রাস্তাটি পরিপাটি কম হলেও চলাচলের উপযাগী করেছে সরকার। তবে রাস্তার বাঁকে বাঁকে কঠিন বিপদ লুকিয়ে রয়েছে। খুব সাবধানে চলাচল করতে হয়। যাতায়াতের সময় একটু অমনযোগী বা অসচেতন হলে চলে যাবে ঝিরির তলদেশে ও কুরুমের ভেতরে প্রায় ১০০০ ফুট নিচে। এমন মরণবাঁক রয়েছে এই রাস্তাতে না দেখলে বুঝা যাবেনা। কি ধরণের রাস্তা দিয়ে মানুষ গাড়ি নিয়ে আসা যাওয়া করছে।
সড়কের এই মরণ বাঁকগুলো চিহ্নিত করে নিরাপদ রাস্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সরকারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন লামা উপজেলা ও আলীকদম উপজেলাবাসী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন