বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ইসকন-সনাতন দ্বন্দ্ব চরমে : ঠাকুরগাঁওয়ে মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:১৮ এএম

শ্রী শ্রী রশিক রায় জিউ মন্দিরের জমির দখল নিয়ে হিন্দুধর্মের সনাতন ও ইসকন অনুসারীদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই বিরোধ চলে আসছিল। ২০০৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর রশিক রায় জিউ মন্দিরে দুর্গাপূজা নিয়ে অনুসারীদের সঙ্গে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বড় ধরনের সংঘর্ষ হয়। এ সময় ইসকন ভক্তদের হামলায় ফুলবাবু নামের একজন সনাতন ধর্ম অনুসারী মারা যান। এরপর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে উপজেলা প্রশাসন মন্দির সিলগালা করে দেন। একই সঙ্গে কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্ব নেয়।

এবারও শারদীয় দুর্গাপূজায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয় ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার আউলিয়াপুরের মাদারগঞ্জ ভাতগাঁও শ্রী শ্রী রশিক রায় জিউ মন্দিরে।

মন্দির এলাকায় শনিবার (৯ অক্টোবর) বিকেল থেকে পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারির আদেশ দিয়েছেন সদর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহরিয়ার রহমান।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম জানান, কয়েক বছর ধরেই দুর্গাপূজার সময় ওই মন্দিরে সনাতন আর ইসকনের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। এর আগে সেখানে মারামারিতে খুনের ঘটনাও ঘটে। এজন্য এ সময় মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি করে প্রশাসন। এবারও করা হয়েছে। প্রশাসন তৎপর রয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান জানান, এ সমস্যার সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে মন্দিরটি নিয়ে মামলা থাকায় বিষয়টির সুরাহায় বিলম্ব হচ্ছে। মামলা নিষ্পত্তি হলে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে পর থেকে দুর্গাপূজা নিয়ে আইনশৃঙ্খলা অবনতির আশঙ্কায় ১৪৪ ধারা জারি করে আসছে উপজেলা প্রশাসন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (13)
ফিরদাউস হাসান ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১:০৪ পিএম says : 0
ইস্কনকে নিষিদ্ধ করা হোক, স্বামী প্রভুপাদ এর এই ভক্তরা সব সময় চৈতন্যদেবের স্লোগানকে সামনে রেখে কাজ করার চেষ্টা করে। চৈতন্যদেবের বহু স্লোগানের একটি শ্লোগান হচ্ছে"নির্যবন করো আজি সকল ভুবন"অর্থাৎ মুসলিম মুক্ত বিশ্ব গড়ে তোল। ইসকন রা কখনোই সনাতন ধর্মের মূল ভিত্তিতে বিশ্বাসী নয়। এরা মূল সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বড় ধরনের শত্রু। স্বামী প্রভুপাদ এর জন্ম যদিও ভারতের নদীয়ায়, কিন্তু তার বেড়ে ওঠা আমেরিকার কলোরাডোয়। গির্জাগুলো থেকে তার ধর্মীয় শিক্ষার শুরু এবং শেষ। এখন বিবেচনা করে দেখুন, ইহুদিদের গির্জায় সনাতন ধর্ম শিক্ষা কতটুকু নিরাপদ?
Total Reply(0)
শোয়াইব মানছুর ১১ অক্টোবর, ২০২১, ৩:৩৯ পিএম says : 2
ইসকন কে নিষিদ্ধ করা হোক।আমাদের দেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ।এখানে ইসকন এর জায়গা নাই।
Total Reply(0)
Md.Rashadujaman ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫১ এএম says : 2
ইসকন না বলে বলুন ইন্ডিয়ান আর বাংলাদেশী দের দ্বন্দ্ব।
Total Reply(0)
Mohammad Ullah Prodhan ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫১ এএম says : 1
ইসকন কোন সনাতন ধর্মাবলম্বী মনে হয়না।তারা হিন্দু ধর্মের আড়ালে অন্য কোন মিশন আছে।
Total Reply(0)
Razib Hossain ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫১ এএম says : 0
ইসকন কে নিষিদ্ধ করাহোক
Total Reply(0)
Imran Hossain ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫১ এএম says : 1
ইসকন একটি উগ্রবাদী সংগঠন,দেশ কে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছাড়ানোই তাদের মূল লক্ষ্য
Total Reply(0)
Didar Al Ashik ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫২ এএম says : 1
সনাতন আর ইসকন দুইটা বাংলাদেশি আর ইন্ডিয়ান। ইসকন বাংলাদেশ থেকে নিষিদ্দ করা হোক। এদের অন্য কোন মিশন আছে।
Total Reply(0)
Tamim Shikdar ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫২ এএম says : 0
ইসকন উগ্রবাদী সংঘটন এরাই দেশে মুসলিম ও হিন্দুদের মধ্যে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে এমনি বিগত বছর গুলোতে ফেসবুক পোস্ট নিতে উত্তেজনার জন্য এরাই দায়ী।
Total Reply(0)
Mohammed Siraj ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫৩ এএম says : 0
উগ্র ইসকন /সনাতন ধর্মাবলম্বী দের জিম্মি করে নিচ্ছে যেখানে জিম্মি করতে পারছে না সেই জায়গা তে ঝামেলা লাগাচ্ছে।
Total Reply(0)
Tomato ১১ অক্টোবর, ২০২১, ১১:২৬ এএম says : 1
ইসকনকে নিষিদ্ধ করা অতিব জরুরী।
Total Reply(0)
Jalal Uddin ১২ অক্টোবর, ২০২১, ১০:৫৪ এএম says : 0
ইসকন আর রাম বাম এই দুই গ্রুপই শয়তান আর জঙ্গী।সনাতনদের বাদে
Total Reply(0)
md ismail ১১ অক্টোবর, ২০২১, ৯:৪২ পিএম says : 0
ইস্কনকে নিষিদ্ধ করা হউক
Total Reply(0)
Solaiman nadwe ১২ অক্টোবর, ২০২১, ৬:২৪ পিএম says : 0
ইস্ক‌নের উ‌দ্দিশ‌্য হল দে‌শে এক ধর‌নের নৈরাজ‌্য তৈরী করা , ওরা ধর্মকে ডাল হি‌সে‌বে ব‌্যবহার কর‌ছে বাচার জন‌্য , মূলত ওরা হ‌চ্ছে মানবজা‌তির চরম শত্রু ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন