শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

পুলিশ পরিচয়ে স্বর্ণ ছিনতাইয়ের চেষ্টা, হাতে-নাতে আটক ২

সহায়তাকারী স্বর্ণের দোকানের কর্মচারী

মাদারীপুর থেকে স্টাফ রির্পোটার | প্রকাশের সময় : ১১ অক্টোবর, ২০২১, ৫:৫৪ পিএম | আপডেট : ৬:৩৬ পিএম, ১১ অক্টোবর, ২০২১

নিজ দোকানের কর্মচারীর পরিকল্পনা ও সহযোগিতায় পুলিশের পরিচয়ে মাদারীপুরের শিবচরে ব্যবসায়ীর স্বর্ণ ছিনতাই চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার সময় ২ ছিনতাইকারীকে স্থানীয়রা ছিনতাই হওয়া স্বর্ণসহ হাতে নাতে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। রবিবার বিকেলে ঢাকা-খুলনা এক্সপ্রেস হাইওয়ের শিবচরের সূর্য্যনগর বাজারের নিকটে এ ঘটনা ঘটে। আটককৃতরা হচ্ছে: শিবচর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের চরবাচামারা গ্রামের মজিবর সিকদারের ছেলে রাজিব সিকদার (২৬) ও ইমারত সিকদারের ছেলে রিফাত সিকদার (২০)।

পুলিশ ও ক্ষতিগ্রস্থ স্বর্ণ ব্যবসায়ী নির্মল পাল জানায় রবিবার বিকেলে তার ভাই দীনেশ পাল চার ভরি স্বর্ণ হলমার্ক করানোর জন্যে ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলে ফরিদপুর যাচ্ছিল। মোটরসাইকেলটি ঢাকা-খুলনা এক্সপ্রেস হাইওয়ের শিবচরের সূর্য্যনগর বাজার পার হওয়ার পর দুটি মোটরসাইকেল এসে তাদের গতিরোধ করে। ওই দুটো মোটরসাইকেলের লোকেরা নিজেদের পুলিশের লোক পরিচয় দিয়ে দীনেশের কাছে অবৈধ মাল আছে বলে দেহ তল্লাশী শুরু করে। এসময় তারা দীনেশকে মোটরসাইকেলে তোলার ও স্বর্ণ ছিনতাইয়ের চেষ্টাসহ মোটরসাইকেলের চালককে বেদম মারধর করতে থাকে। তাদের চিৎকারে আশপাশের স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ছিনতাইকারীদলের লোকদের মধ্যে দুই ছিনতাইকারীর হাতে-নাতে আটক করলেও অবস্থা বেগতিক দেখে সহযোগীরা পালিয়ে যায়।

আটককৃতদের শিবচর থানায় নেয়া হলে তারা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে পুলিশকে জানায়, স্বর্ণের দোকান থেকে দীনেশ পাল স্বর্ণ নিয়ে বের হওয়ার সংবাদটি দোকানের কর্মচারী কিশোর তাদেরকে দেয়ার পর তারা স্বর্ণ ছিনতাইয়ের ঘটনায় নামে। এদিকে আটককৃতদের দেয়া তথ্যমতে পুলিশ স্বর্ণের দোকানের কর্মচারী কিশোরকে গ্রেফতার করে। কিশোর সরকার শিবচর উপজেলার দক্ষিণ বহেরাতলা ইউনিয়নের নমোকান্দি গ্রামের বিকাশ সরকারের ছেলে।

শিবচর থানার ওসি মিরাজ হোসেন জানান এ ঘটনায় মামলা হলে গ্রেফতারকৃতদের সোমবার বেলা ১২টার দিকে মাদারীপুর আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে পাঠানো হয়। মূলত কিশোরই এই চক্রটিকে খবর দিয়েছিল। স্বর্ণ ব্যবসায়ী মামলা করেছে। এঘটনার সাথে জড়িত বাকীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন